BREAKING NEWS

১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

উদ্ধার অবসরপ্রাপ্ত সরকারি আধিকারিকের পচাগলা দেহ, চাঞ্চল্য যাদবপুরে

Published by: Bishakha Pal |    Posted: July 23, 2019 10:10 am|    Updated: July 23, 2019 10:10 am

Decomposed body of elderly man found in Kolkata's Jadavpur

অর্ণব আইচ: যাদবপুর থেকে উদ্ধার হল অবসরপ্রাপ্ত সরকারি অফিসারের পচাগলা দেহ। ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়েছে যাদবপুরের ইব্রাহিমপুরে। সোমবার রাতে যাদবপুর থানার পুলিশ ইব্রাহিমপুরের একটি বাড়ি থেকে মৃত বৃদ্ধের দেহ উদ্ধার করে যাদবপুর থানার পুলিশ।  কীভাবে তাঁর মৃত্যু হয়েছে, তা এখনও জানা যায়নি। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছেন তদন্তকারী অফিসাররা।

[ আরও পড়ুন: বিয়ের দাবিতে ধরনা প্রেমিকার, অভিযোগের ভিত্তিতে শ্রীঘরে ঠাঁই প্রেমিকের ]

জানা গিয়েছে, ওই বৃদ্ধের বয়স ৮০ বছর। নাম সুকৃতীভূষণ দত্ত। ভাড়াবাড়িতে একাই থাকতেন তিনি। ডব্লুবিসিএস অফিসার হিসেবে দীর্ঘদিন কাজ করেছেন। এখন অবসরের পর যাদবপুরের ইব্রাহিমপুরের এই ভাড়াবাড়ির দোতলায় থাকতেন। সোমবার বিকেলে ওই বাড়ি থেকে দুর্গন্ধ পান স্থানীয়রা। খবর দেওয়া হয় যাদবপুর থানায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে দরজার তালা ভেঙে মৃতদেহ উদ্ধার করে।

পুলিশ সূত্রে খবর, সোমবার রাতে খবর পেয়ে ইব্রাহিমপুরের ওই বাড়িতে যায় তারা। ঘরের মধ্যে বৃদ্ধের দেহ পড়েছিল। দেহ পচেগলে গিয়েছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ। সেই কারণেই দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছিল। কিন্তু ঠিক কবে তাঁর মৃত্যু হয়েছে, সেই সম্পর্কে এখনই স্পষ্ট করে কিছু বলতে পারেনি পুলিশ। বৃদ্ধের দেহ উদ্ধার করে আপাতত ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে বাঙুর হাসপাতালে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পরই জানা যাবে প্রকৃত কারণ। ঘর থেকে কোনও সুইসাইড নোটও পাওয়া যায়নি। তাই তিনি আত্মহত্যা করেছেন কিনা, তা নিয়েও ধন্দে রয়েছে পুলিশ। আবার বৃদ্ধের বয়স হয়ে যাওয়ার কারণেও তাঁর মৃত্যুর আশঙ্কাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। সব মিলিয়ে গোটা ঘটনা নিয়ে এখনও ধোঁয়াশায় রয়েছে যাদবপুর থানার পুলিশ।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ওই বৃদ্ধের সঙ্গে কারও কোনও সমস্যা ছিল না। একপ্রকার নির্ঝঞ্ঝাট মানুষ ছিলেন তিনি। একাই থাকতেন। তাঁর কীভাবে মৃত্যু হয় তা নিয়ে প্রতিবেশীদের কাছেও পরিষ্কার কোনও ধারণা নেই। বৃদ্ধের আত্মীয়, পরিবারের খোঁজও চলছে৷

[ আরও পড়ুন: বর্ধমান স্টেশনের নাম বদলে তীব্র আপত্তি জৈন সম্প্রদায়ের, কেন জানেন? ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে