১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

শহরে ফের ডেঙ্গু আতঙ্ক, ৯ দিনের জ্বরে মৃত্যু মহিলার

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: October 21, 2018 11:25 am|    Updated: October 21, 2018 11:25 am

Dengue claims another life in the city

ফাইল ফটো

আকাশনীল ভট্টাচার্য, বারাকপুর: পুজোর মুখে মৃত্যু হয়েছিল ১০ বছরের এক শিশুর৷ আর পুজোর রেশ কাটতে না কাটতেই মারা গেলেন এক মহিলা৷ রাজ্যে ডেঙ্গুতে মৃত্যু অব্যাহত৷ মৃতার পরিবারের দাবি, ডেথ সার্টিফিকেটে মৃত্যুর কারণ হিসেবে ডেঙ্গুর কথা উল্লেখ করেছেন চিকিৎসকরা৷

[ খুল্লমখুল্লা মদ্যপান করে অভব্য আচরণ, প্রতিবাদ করায় পুলিশকে পেটাল পুলিশ]

উত্তর ২৪ পরগনার কাঁচরাপাড়ার সিদ্ধেশ্বরী লেনের বাসিন্দা  লক্ষ্মী বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তাঁর স্বামী অবসরপ্রাপ্ত রেলকর্মী৷ পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন, গত ১০ অক্টোবর, দ্বিতীয়ায় জ্বর আসে লক্ষ্মীদেবীর৷ তাঁকে স্থানীয় এক চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল৷ কিন্তু, কোনও লাভ হয়নি৷ উলটে শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে শুরু করে৷ পরিস্থিতি এতটাই খারাপ হয়, যে ওই গৃহবধূকে কাঁচরাপাড়া মহকুমা হাসপাতালে ভরতি করতে হয়৷ পরে স্থানান্তরিত করা হয় শিয়ালদহের বি আর সিং হাসপাতালে৷ শেষপর্যন্ত লক্ষ্মী বন্দ্যোপাধ্যায়কে ভরতি করা হয় কলকাতার একটি নার্সিংহোমে৷ কিন্তু, তাতেও শেষরক্ষা হয়নি৷ শনিবার রাতে মারা যান লক্ষ্মীদেবী৷ পরিবারের লোকেদের দাবি, ডেথ সার্টিফিকেটে মৃত্যুর কারণ হিসেবে ডেঙ্গুর কথাই উল্লেখ করা হয়েছে৷ যদিও মৃতার অন্যান্য শারীরিক সমস্যাও ছিল বলে জানা গিয়েছে৷ এদিকে ডেঙ্গুতে পাড়ার এক মহিলার মৃত্যুতে আতঙ্কিত কাঁচরাপাড়ার সিদ্ধেশ্বরী লেনের বাসিন্দারা৷

বস্তুত, রাজ্যজুড়ে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বাড়ছে৷ পুজোর ঠিক মুখে ৯ অক্টোবর বাইপাসের ধারে মারা গিয়েছিল বছর দশেকের অনীশ সরকার৷ এর আগে ২ সেপ্টেম্বর ইএম বাইপাসের ধারে এক নার্সিংহোমে মৃত্যু হয় পারস্মিতা ঘোষ নামে এক ছাত্রীর৷ তার আগে বিশরপাড়ার মানস দাস মারা যান দক্ষিণ কলকাতার নার্সিংহোমে৷ ডেঙ্গুতে পার্কস্ট্রিটে এক কিশোর ও উল্টোডাঙায় এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে৷ প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে দক্ষিণ শহরতলির একবালপুরেও৷

[ গঙ্গাদূষণ রুখতে প্রতিমা বিসর্জনে কড়াকড়ি কলকাতা পুরসভার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে