BREAKING NEWS

১৪ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

শহরে ফের ভেঙে পড়ল বিপজ্জনক বাড়ি, গোটা পরিবার নিশ্চিহ্ন

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: September 5, 2017 7:54 am|    Updated: September 29, 2019 4:11 pm

Dilapidated building collapses in Kolkata, 1 dead

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তিন সপ্তাহের মধ্যে ফের উত্তর কলকাতায় ভেঙে পড়ল বাড়ি। মৃত্যু হল একই পরিবারের তিনজনের। বড়বাজারের শিবতলা লেনে বাড়ি ভেঙে মারা যান এক প্রৌঢ়। পরে হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাঁর মৃতের স্ত্রী এবং কন্যার। পুরসভা জানিয়েছে বিপজ্জনক ঘোষণার পরও দুর্ঘটনাগ্রস্ত বাড়িতে ছিলেন তিনজন।

[শহরের অভিজাত আবাসনে মহিলা চিকিৎসকের রহস্যমৃত্যু নিয়ে ধন্দে পুলিশ]

বেলা তখন সাড়ে এগারোটা। চিত্তরঞ্জন অ্যাভিনিউ লাগোয়া ১৬ নম্বর শিবতলা লেনের পুরনো বাড়িটির তিন তলার একাংশ প্রথমে ভেঙে পড়ে। সেই চাপ রাখতে না পারে কয়েক মুহূর্তের মধ্যে তিন তলা বাড়িটি ধূলিসাৎ হয়ে যায়। এলাকার বাসিন্দারা জানান ওই বাড়িতে ছিলেন ৮৪ বছরের তারাপ্রসন্ন সাহা, তাঁর স্ত্রী শোভারানি সাহা এবং মেয়ে বিউটি রায়। দুর্ঘটনার পর স্থানীয় বাসিন্দারা উদ্ধারকাজে হাত লাগান। দ্রুত সেখানে পৌঁছে যায় দমকল, পুরসভার কর্মী ও বিপর্যয় মোকাবিলা দল। উদ্ধারকারীরা ধ্বংসস্তূপ থেকে তিনজনকে বের করেন। তাদের নিয়ে যাওয়া হয় মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। সেখানে তারাপ্রসন্নবাবুকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। বিকেলের দিকে মৃত্যু হয় শোভারানি সাহা এবং মেয়ে বিউটি রায়ের।  পুরসভার কর্মীরা দুপুর পর্যন্ত ভাঙা বাড়ির অংশ সরানোর কাজ করেন। বাড়ির নিচে কেউ আটকে নেই বলে তারা জানান।

[আধুনিক সমাজকে ‘আলবিদা’ জানিয়ে কুড়ি বছর গাছের কোটরে জিগর ওরাওঁ]

ঘটনাস্থলে যান স্থানীয় বিধায়ক স্মিতা বক্সি। তাঁর বক্তব্য, বিপজ্জনক ঘোষণার পরও বাড়িটিতে জোর করে লোকজন ছিলেন। পুরসভার তরফে এব্যাপারে সতর্ক করা হলেও কিছু হয়নি। স্থানীয় বাসিন্দাদের বক্তব্য বাড়িটির অবস্থা ক্রমশ খারাপ হচ্ছিল। ঝুঁকি নিয়েই তিনজন বাড়িতে থাকতেন। গত কয়েক দিনের টানা বৃষ্টিতে বাড়িটি আর ভার নিতে পারেনি। তার ফলেই মঙ্গলবার এই বিপত্তি ঘটে। গোটা পরিবার নিশ্চিহ্ন হয়ে যায়। প্রসঙ্গত, গত ১৫ আগস্ট ওই এলাকার একটি বিপজ্জনক বাড়ি ভেঙেছিল। এবার শিবতলা লেনে বাড়ি ভাঙার ঘটনায় নাগরিকদের সচেতনতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

ফাইল ছবি

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে