BREAKING NEWS

৮ শ্রাবণ  ১৪২৮  রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘উনি কি বাংলার সংস্কৃতি জানেন?’ জয় শ্রীরাম মন্তব্যে অমর্ত্য সেনকে কটাক্ষ দিলীপের

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: July 6, 2019 7:10 pm|    Updated: July 6, 2019 7:10 pm

Dilip Ghosh slams Amartya Sen over 'Jai Shri Ram' Comment

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জয় শ্রীরাম স্লোগান তুলে মারধর বাংলার সংস্কৃতি নয়। শুক্রবার শহরে এসে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রতীচী ট্রাস্টের একটি অনুষ্ঠানে এসে এমনই মন্তব্য করেছিলেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন। সেই মন্তব্যের জন্য গতকালই অর্থনীতিবিদকে আক্রমণ করেছিলেন বঙ্গ বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। শনিবার আবার কটাক্ষ করলেন মেদিনীপুরের সাংসদ। প্রশ্ন তুললেন, উনি কি বাংলা বা ভারতীয় সংস্কৃতি সম্পর্কে কিছু জানেন?

সপ্তাহান্তের সন্ধেয় নিজের পুরনো বিশ্ববিদ্যালয়ে পা রেখে অমর্ত্য সেন বলেন, “জয় শ্রীরাম যে খুব প্রাচীন বাঙালি বক্তব্য, এমনটা তো শুনিনি। বরং আমার মনে হয় এই শব্দ ইদানীংকালের আমদানি।” প্রেসিডেন্সির স্বর্ণযুগের অর্থনীতির ছাত্র জানিয়েছেন, “এখন শুনছি বাংলায় রাম নবমী খুব হচ্ছে। আগে এত হত বলে শুনিনি। সেদিন আমার চার বছরের নাতনিকে জিজ্ঞাসা করলাম টিভিতে যা দেখো তোমার সবচেয়ে কাকে ভাল লাগে? ও বলল, মা দুগ্গা। ঠিকই বলেছে এই বাংলায় মা দুর্গার যা প্রতিপত্তি তার সঙ্গে রাম নবমীর তুলনা চলে না।”

এরপরই অধ্যাপক সেনের মন্তব্যের প্রেক্ষিতে দিলীপ ঘোষ শুক্রবার বলেছিলেন, ‘অমর্ত্য সেনদের কথা শোনার লোক নেই। আজ কমিউনিস্টরা শেষ। আর সেকুলাররা রাস্তায় ঘুরে বেড়াচ্ছে। মানুষ অমর্ত্য সেনদের মতো বুদ্ধিজীবীদের কথা আর শুনছে না। শুনলে নির্বাচনে এই ফলাফল হত না। মানুষ দু’হাত তুলে জয় শ্রীরাম বলছেন। সারা ভারতেই মানুষ যা বলছে, বাংলাও তার বাইরে নয়। অমর্ত্য সেনরা আসবেন, সরকারি পয়সায় খাবেন, চলে যাবেন। বাংলার কোনও দায়িত্ব নেবেন না।’ শনিবার ফের কটাক্ষ করেন দিলীপ ঘোষ। সংবাদ সংস্থা এএনআইকে তিনি বলেন, ‘অমর্ত্য সেন হয়তো বাংলাকে চেনেন না। উনি কি বাংলা বা ভারতীয় সংস্কৃতি সম্পর্কে কিছু জানেন? বাংলার প্রত্যেক গ্রামে জয় শ্রীরাম ধ্বনি উঠছে। গোটা বাংলা এই স্লোগান দিচ্ছে।’

[আরও পড়ুন: ‘জয় শ্রীরাম স্লোগান তুলে মারধর বাংলার সংস্কৃতি নয়’, মন্তব্য অমর্ত্য সেনের]

প্রসঙ্গত, রাজনীতিতে ভগবানের নাম নিয়ে স্লোগানের লড়াই দেখে অমর্ত্য সেন যে কার্যত বিরক্ত তাও বুঝিয়ে দিয়েছেন ঠারেঠোরে। বিজেপির জয় শ্রীরাম স্লোগান সম্বন্ধে তাঁর মত, “ওই শব্দ ঠিক কোন জায়গায় পড়ে জানি না। তবে বর্তমান সময়ে এর ব্যবহার দেখে মনে হয় লোককে প্রহার করতে গেলেই এই শব্দ ব্যবহার করতে হচ্ছে।” রাজ্যে বিশেষ কিছু পুজোর বাড়বাড়ন্ত নিয়েও বিরক্ত প্রকাশ করে বলেছেন, “কেউ আবার হনুমান নিয়ে উৎসাহিত। কিন্তু, অনেকে দুষ্টুমি করলেও বলা হয় তুমি একটি হনুমান। এটা তো খুব প্রশংসিত শব্দ বলে মনে হয় না। আগেকার দিনে যাত্রাপালায় হনুমান লেজে আগুন লাগিয়ে লাফালাফি করত। হনুমান বিষয়টি যাত্রার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকাই ভাল।”

তার প্রেক্ষিতেই নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদকে কটাক্ষ করেন দিলীপ ঘোষ। উল্লেখ্য, এর আগে নোট বাতিলের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করায় অমর্ত্য সেনের উপর খড়গহস্ত হয়েছিলেন দিলীপ ঘোষ। নাম না করে আক্রমণের সুরে বলেছিলেন, ‘আমাদের একজন নোবেল প্রাইজ পেয়েছিলেন। তিনি কী করেছেন, বাংলার কেউ বোঝে না! কী দিয়েছেন দেশকে? এমন লোকের জন্য আমরা গর্ববোধ করি যাঁর চরিত্র নেই, মেরুদণ্ড নেই। এঁদের কেনা যায়, বিক্রি করা যায়, চমকানো যায়।’

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement