BREAKING NEWS

১৪ কার্তিক  ১৪২৭  রবিবার ১ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

পুজোয় করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আরও জোর, চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীদের ছুটি বাতিল নবান্নের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: October 12, 2020 4:26 pm|    Updated: October 12, 2020 11:26 pm

An Images

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: উৎসবের মরশুমে আনন্দে মেতে ওঠার সঙ্গে কোভিড (COVID-19) মোকাবিলায় কোনও সমঝোতা নয়। আজ ফের নবান্ন থেকে এই সতর্কবার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি, পুজোর দিনগুলোয় চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীদের বাড়তি দায়িত্ব নিতে বললেন তিনি। ওই কটা দিন ছুটি বাতিল ডাক্তার, নার্স ও অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মীদের। হাসপাতালগুলিতে আরও প্রায় ২৫০০ নার্স নিয়োগ হবে এই সময়ে, জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

পুজোর আনন্দে যেন কোভিড চিকিৎসায় কোনওরকম গাফিলতি না হয়, এই বার্তা বরাবরই দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। আজ নবান্ন থেকে ফের পুজোর দিনগুলোয় করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের গাইডলাইন ঠিক করে দিলেন তিনি। এই সময়ে অতিরিক্ত রোগীর চাপ সামলাতে আগামী দু’দিনের মধ্যে নতুন করে ২৯৪ টি শয্যা বাড়ানো হচ্ছে সরকারি হাসপাতালগুলিতে, আইসিইউ-তে (ICU) প্রায় ৬০০ অতিরিক্ত বেড দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া ২৪৭৫ জন নার্স নতুন করে নিয়োগ করছে স্বাস্থ্যদপ্তর। স্বাস্থ্যকর্তা থেকে চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী কারও কোনও ছুটি নেই পুজোয়। এছাড়া বেসরকারি হাসপাতালের অ্যাম্বুল্যান্স ভাড়াও বেঁধে দেওয়া হয়েছে। ৩০০০ টাকার বেশি ভাড়া নেওয়া যাবে না।  এমনই কিছু কড়া নির্দেশিকার মাধ্যমে উৎসবের মরশুমে করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের অস্ত্রে শান দিতে বললেন মুখ্যমন্ত্রী। নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার পর অবশ্য বিকেলে স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রক কমিশনও বৈঠক করে এই গাইডলাইন নির্দিষ্ট করে দেয়।

[আরও পড়ুন: কলকাতা মেডিক্যালে দুর্গাপুজোর আয়োজন, করোনা যুদ্ধে শামিল চিকিৎসকদের সিদ্ধান্তে জোর বিতর্ক]

উৎসবের ভিড়ে যথেষ্ট সাবধানতা অবলম্বন সত্ত্বেও করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছেই। বিশেষজ্ঞদের সেই সতর্কবার্তা নিয়ে যথেষ্ট চিন্তিত রাজ্যের স্বাস্থ্যমহল। তাই ওই সময়টার জন্য কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াই আরও জোরদার করার পক্ষেই একদফা নতুন সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। যার মধ্যে সরকারি হাসপাতালে নতুন করে নার্স নিয়োগ, শয্যা সংখ্যা বাড়ানো এমনকী আইসিইউ-তেও বাড়তি ব্যবস্থার মাধ্যমে পরিস্থিতির মোকাবিলা যথাযথভাবেই করা যাবে বলে আশাবাদী স্বাস্থ্যদপ্তর। এই উৎসবের সময়ে যেমন আনন্দ উদযাপনকে কিছুটা দূরে সরিয়ে চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীরা নিরলস পরিশ্রম করবেন, তেমনই স্বাস্থ্যদপ্তরের কর্তারাও কাজে থাকবেন। স্বাস্থ্যভবনের আধিকারিকদেরও ছুটি বাতিলের ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। 

[আরও পড়ুন: হঠাৎ অসুস্থ দিলীপ ঘোষ, দিনের সমস্ত কর্মসূচি বাতিল করলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement