BREAKING NEWS

২২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ৯ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মনোজের বিপুল সম্পত্তির হদিশ, রাজ্যকে চিঠি ইডির

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: February 2, 2017 8:32 am|    Updated: February 2, 2017 8:32 am

ED finds huge property of accused investigating officer manoj kumar, writes letter to state

স্টাফ রিপোর্টার: রোজভ্যালি-কাণ্ডের তদন্ত৷ সেই তদন্ত করতে গিয়ে রোজভ্যালি কর্তার পত্নী শুভ্রা কুণ্ডুর সঙ্গে কয়েক কোটি টাকা পাচারের অভিযোগ ছিল ইডির কর্তা মনোজ কুমারের বিরুদ্ধে৷ তারই তদন্তে কলকাতায় এসে দিল্লির জয়েণ্ট ডিরেক্টর ও স্পেশাল ডিরেক্টর পদমর্যাদার অফিসাররা চাঞ্চল্যকর তথ্য পেলেন অভিযুক্ত সহকর্মীর বিরু‌দ্ধে৷ তা হল, ভাড়া বাড়িতে থেকেও রাজারহাট ও উত্তরপাড়ায় বিপুল সম্পত্তি বানিয়েছেন খোদ ইডি কর্তা৷ তার উৎস জানতেই এবার রাজ্য সরকারের ভূমি ও রাজস্ব দফতরের সাহায্য চাইল ইডি৷ একইসঙ্গে শুভ্রার সঙ্গে হোটেল ও বিমানবন্দরের যে ফুটেজ দেখা গিয়েছে, তাও কলকাতা পুলিশের কাছে চেয়ে পাঠালেন ইডির তদন্তকারী শীর্ষ অফিসাররা৷ কারণ, ৭ দিনের মধ্যে মনোজ কুমার নিয়ে তদন্ত শেষ করে রিপোর্ট দেওয়ার জন্য নির্দেশ রয়েছে ইডির সর্বোচ্চ মহল থেকে৷

(শুভ্রা কুণ্ডুর সঙ্গে মনোজের বিতর্কিত ফুটেজ নিয়ে তদন্তে ইডি)

ইডি কর্তা মনোজ কুমার কেষ্টপুরের প্রফুল্লকাননে ভাড়া বাড়িতে থাকতেন৷ তদন্তে নেমে প্রাথমিকভাবে ইডি জানতে পেরেছে ভাড়া বাড়িতে থেকেও তিনি বিএমডব্লু গাড়িতে চড়তেন৷ তথ্যে জানা গিয়েছে, রাজারহাটে একটি ফ্ল্যাট আছে তাঁর৷ হুগলির উত্তরপাড়ায় গঙ্গার ধারে রয়েছে আরও একটি বাড়ি৷ ইডি কর্তার এ হেন সম্পত্তির উৎস কী, তা জানতেই তাঁকে জেরা করতে কলকাতা এসে পৌঁছলো ইডির স্পেশাল ডিরেক্টর ব়্যাঙ্কের এক অফিসার৷ বৃহস্পতিবার সকালে কলকাতায় পা রেখেই তিনি চলে যান সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে ইডির দফতরে৷ দুপুরে সেখানেই অভিযুক্ত ইডি কর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন দফতরের উচ্চপদস্থ কর্তারা৷

(প্রকাশিত হল প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ফল)

সল্টলেকে যখন ইডির দফতরে এই কাণ্ড চলছে, কলকাতার অন্য প্রান্তে তখন নিজের বাড়িতে কলকাতা পুলিশের জেরার মুখে পড়েছেন গৌতম-পত্নী শুভ্রা কুণ্ডু৷ ম্যাডাম রোজভ্যালির এভাবে জেরার মুখে পড়া এই নতুন নয়৷ ইডি কর্তার সঙ্গে একসঙ্গে দমদম বিমানবন্দর হয়ে দিল্লি যাওয়া ও সেখানে একই হোটেলে চেক ইন করার সিসিটিভি ফুটেজ কলকাতা পুলিশের হাতে আসার পর মঙ্গলবার রাতে প্রথম তাঁর দক্ষিণ কলকাতার সাউথ সিটির বাড়িতে বসে তাঁকে এক দফা জেরা করে পুলিশ৷ বুধবার সকালে ফের তাঁকে জেরার মুখে পড়তে হয়েছে৷ রয়েছেন কলকাতা পুলিশের এসটিএফের একাধিক উচ্চপদস্থ কর্তা ও এক ল’ অফিসার৷

জানা গিয়েছে, কলকাতা পুলিশ ইতিমধ্যে একটি রিপোর্ট তৈরি করে ইডির কাছে পাঠিয়েছে৷ পাশাপাশি জেরার সময় বয়ানও রেকর্ড করা হচ্ছে৷ অন্যদিকে, সিসিটিভি ফুটেজের পাশাপাশি শুভ্রা কুণ্ডুকে জেরার তথ্যও কলকাতা পুলিশের কাছে চেয়ে পাঠিয়েছে ইডি৷ এদিকে, ইডি দু’টি পতিতে এগোচ্ছে৷ একদিকে অভিযুক্ত ইডি কর্তার সম্পত্তির বহর কীভাবে বাড়ল, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে৷ মনোজ কুমারের বয়ানের সঙ্গে তার মিল খতিয়ে দেখা হবে৷ অন্যদিকে, সিসিটিভি ফুটেজ সংক্রান্ত তথ্যের কারণ জানতে চাওয়া হবে মনোজ কুমারের কাছে৷ জানা গিয়েছে, ‘অফিসিয়াল অ্যাসাইনমেণ্ট’ ছাড়া নির্দিষ্ট সময়কালের মধ্যে চারবার দিল্লি গিয়েছিলেন মনোজ কুমার৷ সেই টিকিটও সংগ্রহ করেছেন ইডির তদন্তকারী অফিসাররা৷

প্রাথমিক তদন্তে অদ্ভুতভাবে শুভ্রা কুণ্ডু ও মনোজ কুমার একই বয়ান দিয়েছেন৷ যা নিয়ে মনোজ পরে সাংবাদিকদের বলেছেন, তিনি কারও সঙ্গে নয়, একাই ব্যক্তিগত কারণে দিল্লি গিয়েছিলেন৷ টিকিট তিনি নিজেই কেটেছিলেন৷ আর তদন্তের স্বার্থে শুভ্রার সঙ্গে তাঁর আলাপ হয়েছিল৷ তাও একাধিক অফিসারের প্রত্যক্ষে৷ শুভ্রাও পুলিশকে জানিয়েছেন, তিনি একাই যাচ্ছিলেন৷ তাঁর পাল্টা দাবি, যে বিমানে তাঁরা যাচ্ছিলেন, তাতে যদি কোনও মন্ত্রী যেতেন, সেক্ষেত্রে কি তিনি ওই মন্ত্রীর সঙ্গে যাচ্ছিলেন বলে দাবি করা হত? এর পাল্টা হিসাবে দিল্লি বিমানবন্দরে নেমে শুভ্রা যে মনোজ কুমারের সঙ্গে একই গাড়িতে উঠেছিলেন, সেই তথ্যও পেশ করেছে কলকাতা পুলিশ৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে