BREAKING NEWS

০৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

এসডিএফ বিল্ডিংয়ে আগুন, আতঙ্কিত অফিসকর্মীরা সুরক্ষিতই

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: January 30, 2019 10:59 am|    Updated: January 30, 2019 11:49 am

Fire at Salt Lake's SDF building

নব্যেন্দু হাজরা ও কলহার মুখোপাধ্যায়:  সপ্তাহের কর্মব্যস্ত দিনের শুরুতেই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় আতঙ্ক ছড়াল সল্টলেকের এসডিএফ বিল্ডিংয়ে। আজ  সকাল ১০টা ১৫ নাগাদ আগুন লাগে সেক্টর ফাইভের অন্যতম বিখ্যাত বহুতলে। চার তলা থেকে ধোঁয়া বেরোতে দেখেন আশেপাশের মানুষজন। ছড়িয়ে পড়ে আতঙ্ক। খবর পৌঁছায় দমকলে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ৪টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। ততক্ষণে ধোঁয়ায় ঢেকে গিয়েছে বিল্ডিংটি। তা খালি করে দেওয়ার তোড়জোড় শুরু হয়। আতঙ্কে সকলে বাইরে বেরিয়ে আসেন।

একের পর এক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় শহরের অগ্নিসুরক্ষা নিয়ে বেড়েই চলেছে সংশয়। সম্প্রতি বেশ কয়েকটি জনবহুল এলাকায় অগ্নিকাণ্ডের পর এবার আগুনের কবলে সল্টলেক সেক্টর ফাইভের অন্যতম আধুনিক এবং জনবহুল এসডিএফ বিল্ডিং। ৬ তলা বিল্ডিংয়ের অধিকাংশেই রয়েছে অফিস। সপ্তাহের কাজের দিনে সকাল থেকেই এই এলাকায় ব্যস্ততা শুরু হয়ে যায়। বেসরকারি অফিসগুলিতে অন্যান্য দিনের মতো এদিনই কাজে পৌঁছে যান কর্মীরা। সকাল ১০ টা মানে এসডিএফ বিল্ডিংয়ের বেশিরভাগ অফিসে কাজ শুরুর তোড়জোড়। এমনই সময়ে  বেজে ওঠে ফায়ার অ্যালার্ম। দেখা যায়, বিল্ডিংয়ের চার তলা থেকে ধোঁয়া বেরোচ্ছে। আতঙ্কিত হয়ে পড়েন বিল্ডিংয়ের মানুষজন। ধোঁয়া থেকে বাঁচতে মুখে রুমাল চেপে অফিস থেকে বেরিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন সকলে। কারও কারও শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় দমকলে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় দমকলের ৪টি ইঞ্জিন। সবকটি অফিস থেকে কর্মীদের নিরাপদে বের করে আনার কাজ শুরু করে দমকল। আনা হয় হাইড্রলিক ল্যাডার, গ্যাস মাস্ক। বহুতলের জানলার কাচ ভেঙে ভেতরে ঢুকে উদ্ধারকাজে নামেন দমকলকর্মীরা। তবে বহুতলে অগ্নিনির্বাপণ যন্ত্র থাকলেও তা ঠিকমতো কাজ করেনি বলে অভিযোগ ওঠে। তবে দমকলের তৎপরতায় কিছুক্ষণের মধ্যে আগুন নিয়ন্ত্রণে চলে আসে। কোথাও কোথাো পকেট ফায়ার আছে। সেসব দ্রুত নিভিয়ে ফেলার চেষ্টা চলছে।

                                             বিগ বি-র কণ্ঠস্বর নকল করে কেবিসির নামে চলছিল লটারি প্রতারণা

কীভাবে আগুন লাগল, তা এখনও স্পষ্ট নয় বলে জানিয়েছেন দমকলকর্মীরা। তবে দমকলের প্রাথমিক অনুমান, আগুনের উৎস আসলে বহুতলের দোতলা। সেখান থেকেই আগুন ছড়িয়ে পড়েছে তিন এবং চার তলায়। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বিল্ডিংয়ের বেশ কিছুটা অংশ। পুড়ে গিয়েছে প্লাস্টিকের চেয়ার, কম্পিউটার, বহু গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র। এসডিএফ বিল্ডিংয়ের এক অফিসকর্মী জানাচ্ছেন, ‘কাজ শুরুর সঙ্গে সঙ্গে এমন একটি ঘটনায় আমরা সবাই আতঙ্কিত হয়ে পড়ি। অফিসে এসে এমন বিপদের মধ্যে পড়েছি যে ভাবতেই পারছি না। বাড়ির লোকজনও অত্যন্ত দুশ্চিন্তায় পড়েছেন।তবে আমরা বিল্ডিংয়ের বাইরে বেরিয়ে আসায় নিরাপদ আছি।’

অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছন দমকল প্রতিমন্ত্রী তথা সল্টলেকের বিধায়ক সুজিত বসু। গোটা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে তিনি জানান, ‘একটি অ্যানিমেশন সেন্টার  আগুনের উৎস বলে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে। দমকল অত্যন্ত দ্রুততার সঙ্গে কাজ করায় আগুন ততটা বেশি ছড়াতে পারেনি। শর্ট সার্কিটের ফলে আগুন লেগেছে বলে মনে হচ্ছে। অভিযোগ শুনছি, বিল্ডিংয়ের অগ্নিনির্বাপণ যন্ত্রের মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে গেছে, তাই ঠিকমতো কাজ করেনি। সেসব তদন্তের ভিত্তিতে পরে দেখা হবে।শহরের সব বহুতল, অফিস, জনবহু জায়গার মতো এসডিএফ বিল্ডিংয়েও ফায়ার অডিট করা হবে।’

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে