BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনায় মৃত হিন্দুদের অস্থি পরিবারের হাতে দেওয়া হোক, রাজ্যের কাছে দাবি দিলীপের

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: May 12, 2020 9:42 pm|    Updated: May 12, 2020 9:42 pm

An Images

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: করোনা নিয়ে রাজ্যের শাসকদল ও মুখ্যমন্ত্রী রাজনীতি করে চলেছে বলে পালটা অভিযোগ তুলে সরব হল বিজেপি। একইসঙ্গে স্বাস্থ্যসচিবকে সরিয়ে দেওয়া নিয়ে রাজ্যের ব্যর্থতাকেই মুখ্যমন্ত্রী ঢাকতে চাইছেন বলে অভিযোগ তুলে সরব হয়েছেন বিজেপির কেন্দ্রীয় থেকে রাজ্য নেতারা। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী সব ব্যাপারেই রাজনীতি করেন। মৃতদেহ নিয়েও রাজনীতি করেন। এভাবেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণের নিশানা করেছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

মঙ্গলবার তিনি বলেন, “প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে অন্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা তাদের সুবিধা-অসুবিধার কথা জানালেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেবল রাজনীতি করছেন। তৃণমূলকে তুলে ধরছেন। পশ্চিমবঙ্গের সাধারণ মানুষের সমস্যার কথা তুলে ধরেননি।” স্বাস্থ্যসচিবকে সরানো প্রসঙ্গে দিলীপ বাবুর অভিযোগ, করোনা নিয়ে ব্যর্থতার দায় সচিবদের উপর চাপানো হচ্ছে। একই সুরে আক্রমণ করেছেন রাহুল সিনহা থেকে মুকুল রায়ও। রাহুলবাবুর বক্তব্য, প্রথমে খাদ্য সচিব ও পরে স্বাস্থ্য সচিবকে সরিয়ে দেওয়া হল। সচিবদের ঘাড়ে দায় চাপাচ্ছে সরকার। আসলে করোনা ব্যর্থতায় সরকারের ভুল নীতি দায়ী। এ প্রসঙ্গে মুকুল রায় বলেন, পুলিশ-প্রশাসন জীবন বাজি রেখে কাজ করছে। কিন্তু তাদের পরিচালনার লোকের অভাব। ম্যানেজমেন্টটা নষ্ট হয়ে গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: হুগলির তেলিনিপাড়ায় হিংসা থামাতে রাজ্যপালের দ্বারস্থ লকেট-সহ বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্ব]

এদিকে, স্বাস্থ্যসচিবের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে এক টুইটে মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ করেছেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়। মুখ্যমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে কৈলাস বলেন, “দিদি ভুল স্বীকার করতে শিখুন। এতে কেউ ছোট হয় না।” এদিন, দিলীপ ঘোষ রাজ্য সরকারের কাছে দাবি করেছেন, করোনা সংক্রমণে মৃত হিন্দু ব্যক্তিদের অস্থি তাদের পরিবারের হাতে তুলে দিতে হবে। কারণ, আত্মার শান্তির জন্য অস্থি গঙ্গায় বিসর্জন দেয় হিন্দুরা। একইসঙ্গে রাজ্য সরকারের কাছে তাঁর দাবি, করোনা মোকাবিলায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে লালারসের নমুনা সংগ্রহ করা হোক।

[আরও পড়ুন: লকডাউন ভেঙে দাঙ্গা করলে রেয়াত নয় কাউকে, তেলিনিপাড়ার ঘটনায় হুঁশিয়ারি মমতার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement