BREAKING NEWS

২ মাঘ  ১৪২৮  রবিবার ১৬ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

প্রবল চাপের মুখে গাড়ি থেকে লালবাতি খুললেন বরকতি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 13, 2017 10:25 am|    Updated: May 13, 2017 10:32 am

Imam Barkati cave into pressure, removes red beacon

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ঘরে-বাইরে প্রবল চাপে পড়ে শেষ পর্যন্ত নিজের গাড়ি থেকে লালবাতি খুলতে কার্যত বাধ্য হলেন টিপু সুলতান মসজিদের ইমাম মৌলানা নূর-উর রহমান বরকতি৷ টিপু সুলতান মসজিদ কর্তৃপক্ষ এই খবর জানিয়ে বলেছে, এই বিষয়ে বরকতি সাহেবের কোনও বক্তব্য নেই৷ তিনি নাকি অসুস্থ৷ এদিন সকালেই বরকতির সঙ্গে রাজ্য সরকারের এক প্রতিনিধি দল দেখা করে৷ রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমও দীর্ঘক্ষণ কথা বলেন বরকতির সঙ্গে৷ সেই বৈঠকের পরই টিপু সুলতান মসজিদের তরফে জানিয়ে দেওয়া হল, ইমাম বরকতির গাড়ি থেকে লালবাতি খুলে ফেলা হয়েছে৷

[নরেন্দ্র মোদিকে ন্যাড়া করে, কালি ঢালার ফতোয়া বরকতির]

এর আগে টিপু সুলতান মসজিদের শাহি ইমাম দাবি করেন, ব্রিটিশ সরকার তাঁর গাড়িতে লালবাতি ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে৷ তাই বর্তমান ভারত সরকার নিষেধাজ্ঞা জারি করলেও তিনি গাড়িতে লালবাতি ব্যবহার করবেনই৷ বরকতি বলেন, ‘‘রাজ্য সরকার তো কোনও বিধিনিষেধ জারি করেনি। আমাকে লালবাতি ব্যবহার করতে কেউ বারণও করেননি। লালবাতি ব্যবহারে কোনও বাধা নেই।’’ কেন্দ্রের নিষেধাজ্ঞা অগ্রাহ্য করে লালবাতি লাগানো গাড়িতে চড়ে ঘুরে বে়ড়ানোর জন্য বরকতিকে গ্রেপ্তার করার দাবি তোলে রাজ্য বিজেপি। রাজ্য বিজেপির সম্পাদিকা লকেট চট্টোপাধ্যায় ‘সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল’-কে তাঁর একান্ত প্রতিক্রিয়ায় জানান, বিশেষ সম্প্রদায়ের সদস্য হওয়ার জন্যই বরকতিকে ছাড় দিয়েছে রাজ্য সরকার। এর আগে বরকতি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে ফতোয়া জারি করেন, ভারত-বিরোধী বক্তব্য প্রকাশ্যে পেশ করেন বলে অভিযোগ করেন লকেট চট্টোপাধ্যায়। রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব কার্যত হুঙ্কার দিয়ে জানায়, প্রশাসন ও পুলিশ বরকতিকে গ্রেপ্তার করতে না পারলে তাঁরাই ওই সংখ্যালঘু নেতাকে তুলে লালবাজারে দিয়ে আসবেন।

[বরকতিকে গ্রেপ্তারের দাবিতে ২৫ মে লালবাজার অভিযান বিজেপির]

শুধু কেন্দ্রীয় সরকার নয়, কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই-কেও তীব্র আক্রমণ করেন টিপু সুলতান মসজিদের শাহি ইমাম। তিনি বলেন, “সিবিআই বলে কিছু নেই, সব আরএসএস।” কেন্দ্রের শাসক দল এখন সিবিআই দিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ভয় দেখাতে চাইছে বলেও বরকতি মন্তব্য করেন।
বরকতির এই আচরণের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে ওঠে মুসলিম সমাজের একটা বিশাল অংশ। বরকতির বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হয় তপসিয়ায়। কলকাতাতেও এই নিয়ে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে টিপু সুলতান মসজিদ কর্তৃপক্ষ । শুধু লালবাতি ব্যবহারই নয়, নানা রাজনৈতিক বিষয়ে বরকতি যে সব মন্তব্য করন ও ফতোয়া দেন, তারও দায় নিতে নারাজ টিপু সুলতান মসজিদ কর্তৃপক্ষ। কেন্দ্রীয় আইন অমান্য করার অভিযোগে টিপু সুলতান মসজিদের ইমাম নূর-উর রহমান বরকতির বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হয়তপসিয়ায়। সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে এই খবর মিলেছে। নয়া কেন্দ্রীয় নিয়মকে অগ্রাহ্য করে গত মঙ্গলবার বরকতি দাবি করেন, তিনি লালবাতি লাগানো গাড়িতেই ঘুরবেন। কারণ, এ রাজ্যে কেন্দ্রের আইন চলে না। তিনি ব্রিটিশ সরকারের কাছ থেকে গাড়িতে লালবাতি ব্যবহার করার অনুমতি পেয়েছেন। মোদির জন্য তিনি গাড়ি থেকে লালবাতি সরাবেন না।

[ইমাম বরকতিকে গ্রেপ্তারের দাবিতে সরব নেটদুনিয়া]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে