BREAKING NEWS

১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  সোমবার ৫ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

উৎসবে বেপরোয়া নাগরিক! পাঁচদিনে প্রায় ৩৫ হাজার ট্রাফিক মামলা ঠুকল কলকাতা পুলিশ

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: October 6, 2022 7:34 pm|    Updated: October 6, 2022 9:21 pm

In this Puja Kolkata Traffic Police prosecuted approximately 35 thousands case | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পুজোর সময় ট্রাফিক আইনের পরোয়া করে না রাজ্যের বিরাট অংশের নাগরিক। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। কলকাতা পুলিশের (Kolkata Police) মামলার বহর সেই বার্তাই দিচ্ছে। গাড়ি পার্কিং (Car Parking), হেলমেট (Helmet Wearing) না পরা, গতি সীমা লঙ্ঘন-সহ (Speed Limit) অন্যান্য মামলার পরিমাণ কয়েক হাজার। বৃহস্পতিবার যে পরিসংখ্যান দিয়েছে পুলিশ তাতে জানা গিয়েছে, উৎসবের দিনগুলিতে সব মিলিয়ে ট্রাফিক মামলা হয়েছে ৩৪ হাজার ৬৮৯টি।

পুলিশ জানিয়েছে, সবচেয়ে বেশি মামলা হয়েছে গাড়ি পার্কিং সংক্রান্ত। স্বভাবতই মণ্ডপ থেকে দূরে ছিল গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা। এবং তা যে অনেক ক্ষেত্রে মানা সম্ভব হয়নি সাধারণ মানুষের পক্ষে, মামলার পরিমাণে তা স্পষ্ট। কলকাতা পুলিশ জানিয়েছে গত পাঁচদিনে ১১ হাজার ৪৯৮টি পার্কিংয়ের নিয়ম ভাঙার মামলা হয়েছে। পার্কিং সংক্রান্ত সমস্যা সবচেয়ে বেশি দেখা গিয়েছে সপ্তমীতে। উল্লেখ্য, বয়স্কদের সঙ্গে নিয়ে ঠাকুর দেখতে বেরিয়ে অনেকে গাড়ি পার্কিং নিয়ম মানেননি বলে মনে করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: জন্মদিনে জেলের সেলে নিঃসঙ্গ পার্থ, শুভেচ্ছা জানাতে চেয়েও অনুমতি পেলেন না অর্পিতা]

পুজোর সময় হেলমেট না পরা রেওয়াজ হয়ে উঠেছে। যেন বা পুজোয় দুর্ঘটনা হলে মাথায় লাগার সম্ভাবনা নেই। যদিও বিষয়টা উলটো। উৎসবের দিনগুলোয় বেপরোয়া গাড়ি চালান অনেকেই। এর ফলে দুর্ঘটনা ঘটে। এরপরেও পুলিশের তথ্য অনুয়ায়ী প্রায় সাড়ে সাত হাজারের কাছাকাছি হেলমেট ছাড়া গাড়ি চালানোর মামলা হয়েছে পুজোর চারদিনে। এর মধ্যে নবমীর দিন হেলমেট ছাড়া বাইক আরোহীদের সংখ্যা ছিল সবচেয়ে বেশি।

[আরও পড়ুন: মাল নদীতে দুর্ঘটনার রিপোর্ট তলব করল নবান্ন, বিসর্জনে দুর্ঘটনা এড়াতে জারি কড়া নির্দেশিকা]

এরপর রয়েছে গতির বিষয়ে পরোয়াহীন গাড়ি চালকদের বিরুদ্ধে হওয়া মামলা। জানা গিয়েছে, গত পাঁচ দিনে ৫ হাজার ৭৭৫টি গতি সীমা লঙ্ঘনের মামলা করেছে কলকাতা পুলিশ। এখানেই শেষ নয়। এছাড়া ট্রাফিক সিগন্যাল ভাঙায় ২ হাজার মামলা হয়েছে, স্টপলাইনের নির্দেশ না মানার মামলায় একই সংখ্যক মামলা হয়েছে। সব মিলিয়ে ট্রাফিক আইনে না মানার ক্ষেত্রে অরাজক পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল এবারের পুজোয়। যা উদ্বেগের বিষয় বটেই।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে