১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  সোমবার ৩ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

কন্যাশ্রী-সহ একাধিক প্রকল্পের প্রশংসায় পঞ্চমুখ নোবেলজয়ী কৈলাস সত্যার্থী, ধন্যবাদ জানালেন মমতা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: July 29, 2022 11:04 am|    Updated: July 29, 2022 11:56 am

Kailash Satyarthi meets West Bengal CM Mamata Banerjee | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নারী পাচার এবং বাল্য বিবাহ রুখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছে কন্যাশ্রী-সহ রাজ্য সরকারের একাধিক প্রকল্প। প্রশংসায় পঞ্চমুখ নোবেল শান্তি পুরস্কারজয়ী কৈলাস সত্যার্থী (Kailash Satyarthi)। পালটা নোবেলজয়ীকে ধন্যবাদ জানিয়ে টুইট করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। এই বিশ্বকে শিশুদের জন্য নিরাপদ, সুখী এবং উজ্বল করার জন্য একত্রে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার নবান্নে (Nabanna) মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন নোবেল শান্তি পুরস্কার জয়ী কৈলাস সত্যার্থী। এদিন রাজারহাট নিউটাউনে শুরু হওয়া একটি মানব পাচার বিরোধী সম্মেলনে অংশ নিতে এসেছিলেন সত্যার্থী। সেখান থেকেই অনুষ্ঠানের ফাঁকে নবান্নে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন তিনি। তিনি এদিন কন্যাশ্রী (Kanyashree Prakalpa) ও মিড-ডে মিল প্রকল্পের প্রশংসা করেন। বলেন, “এই প্রকল্প শুধু স্কুলছুট কমায় না। বাল্যবিবাহের ঘটনাও কমায়।” মেয়েদের ক্ষমতায়নে স্বয়ংসিদ্ধা প্রকল্পেরও প্রশংসা করেন নোবেলজয়ী।

[আরও পড়ুন: SSC Scam: কী হবে অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হওয়া বিপুল টাকার?]

পরে টুইট করে তিনি জানান, “কলকাতায় বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) সঙ্গে দেখা করে বেশ ভাল লাগল। ওনার অসাধারণ সামাজিক প্রকল্পগুলি নিয়ে আমাদের মধ্যে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে। কন্যাশ্রী এবং স্বয়ংসিদ্ধা দুটি প্রকল্প নারীদের ক্ষমতায়ন, বাল্যবিবাহ এবং শিশুপাচার রোধে অত্যন্ত উপযোগী।” শুক্রবার সেই টুইটের জবাবে নোবেলজয়ীকে ধন্যবাদ জানান মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, “আপনার এই সাধুবাদের জন্য ধন্যবাদ। চলুন এই বিশ্বকে আমরা নিরাপদ, সুখী এবং উজ্বল করার চেষ্টা করি।”

[আরও পড়ুন: ‘বলির পাঁঠা পার্থ’, প্রতিক্রিয়া সুকান্তর, ‘অপসারণ করেই দায় এড়ানো যায় না’, বলছে সিপিএম]

প্রসঙ্গত, কৈলাস সত্যার্থী মমতা সরকারের যে দু’টি প্রকল্পের প্রশংসা করেছেন, দু’টিই এর আগে বিভিন্ন মহলে প্রশংসিত। কন্যাশ্রীতে ১৩ থেকে ১৯ বছর বয়সি মেয়েদের সরকারের তরফে টাকা দিয়ে সাহায্য করা হয়। স্বয়ংসিদ্ধা শিশু পাচার প্রতিরোধে স্কুলের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলে সরকার।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে