৭ ফাল্গুন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পার্কের গেট ধরে খেলতে খেলতেই মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়ল কিশোরী। লোহার গ্রিলের গেট মাথার উপরে ভেঙে পড়ে তার। হাসপাতালে নিয়ে গেলেও তাকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি।

শনিবার সন্ধেয় দক্ষিণ কলকাতার ট্যাংরা পার্কের এমন ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ায়। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতার নাম সুশীলা হালদার। বয়স ১১ বছর। এদিন পার্কের লোহার গ্রিলের গেটের শিক ধরে ঝুলে খেলা করছিল সে। আচমকাই হুড়মুড়িয়ে পড়ে যায় গেটটি। গ্রিলের নিচেই চাপা পড়ে যায় কিশোরী। রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে এনআরএস হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে। মৃতের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে পুলিশ। কিন্তু এই ঘটনায় সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন।

[আরও পড়ুন: ছেলে বাড়ি না নিয়ে যাওয়ায় হাসপাতালে ‘বন্দি’ মা, বৃদ্ধাকে নিয়ে বিপাকে এনআরএস]

ট্যাংরা পার্কের ওই স্থানে অনেকেই হাঁটাচলা করেন। কচিকাঁচারা খেলাধুলো করে। সেখানে এভাবে গ্রিলের গেট ভেঙে পড়ায় স্বাভাবিকভাবেই আতঙ্কিত স্থানীয়রা। প্রশ্ন উঠছে, তবে কি দীর্ঘদিন ধরে কোনও রক্ষণাবেক্ষণ হয় না এই পার্কের? স্থানীয়রা জানাচ্ছেন, পুর কর্তৃপক্ষকে এ নিয়ে আগেই অভিযোগ জানানো হয়েছে। কিন্তু অভিযোগ পেয়েও তারা মেরামতির ব্যবস্থা করেনি। প্রশাসন বিষয়টির দিকে নজর দিলে এভাবে কিশোরীকে প্রাণ হারাতে হত না বলেও অভিযোগ করেছেন এলাকার বাসিন্দারা। গোটা ঘটনায় শোকাহত কিশোরীর পরিবার।

[আরও পড়ুন: NRC, CAA, NPR-এর বিরুদ্ধে ফের বিশিষ্টদের পদযাত্রা, পথে নামলেন অনির্বাণ-অনীকরা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং