BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

কসবায় বাসের রেষারেষিতে প্রাণ গেল ১ পথচারীর, আহত কমপক্ষে ৮

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: April 11, 2018 12:44 pm|    Updated: January 29, 2019 7:56 am

Kolkata: Bus ploughs through crowd in Kasba, 1 killed

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শহরের ব্যস্ত রাস্তায় দুটি যাত্রীবাহী বাসের রেষারেষি। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পরপর বেশ কয়েকটি অটোকে ধাক্কা মারল একটি মিনিবাস। প্রাণ গেল একজনের। আহত কমপক্ষে ৮ জন। আহতদের মধ্যে কয়েকজনের শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক। বুধবার সকালে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে কসবার নিউ মার্কেটের কাছে। প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, ঘাতক মিনিবাসটির গতি অত্যন্ত বেশি ছিল। অন্য একটি বাসের সঙ্গে রেষারেষি চলছিল। ঘাতক বাসের চালক পলাতক।

auto_web

দক্ষিণ কলকাতার অন্যতম ব্যস্ত এলাকা কসবা। এই এলাকাটিকে শহরের প্রবেশদ্বারও বলা চলে। কলকাতা থেকে বাইপাস হয়ে সল্টলেক পর্যন্ত বিভিন্ন রুটে বাস চলাচল করে। প্রতিটি বাসই কসবা হয়ে গন্তব্যে যায়। এই এলাকায় চলে একাধিক রুটে অটোও। সোমবার সকালে কসবা নিউ মার্কেটে কাছে ঘটল মর্মান্তিক। একটি নয়, পরপর বেশ কয়েকটি অটোকে ধাক্কা মারল একটি মিনিবাস। দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন এক জন। আহত কমপক্ষে ৮ জন। জানা গিয়েছে, ঘাতক মিনিবাসটি আনন্দপুর-হাওড়া রুটের। বুধবার সকালে বাইপাস থেকে অত্যন্ত দ্রুত গতিতে বালিগঞ্জের দিকে যাচ্ছিল মিনিবাসটি। কসবা নিউ মার্কেট সামনে বাসের নিয়ন্ত্রণ হারান চালক। ওই এলাকায় রয়েছে একটি অটো স্ট্যান্ড। কিছু বুঝে ওঠার আগেই পরপর বেশ কয়েকটি অটোয় ধাক্কা দেয় মিনিবাসটি। বাসের ধাক্কায় মারা যান একজন। আহত হয়েছে কমপক্ষে ৮ জন। আহতদের সকলেই ভরতি হাসপাতালে। জানা গিয়েছে, কয়েকজনের শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, ঘাতক মিনিবাসটির গতি তো অত্যন্ত বেশি ছিলই, অন্য একটি বাসের সঙ্গে রেষারেষিও করছিলেন চালক। কিন্তু কসবা নিউ মার্কেট সামনে পৌঁছনোর পর, বাসটিকে আর নিয়ন্ত্রণ করতে পারেননি তিনি। তারজেরেই ঘটে গেল মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। দিন কয়েক আগে বেহালার তারাতলায় ডায়মন্ডহারবার রোডে এক স্কুল ছাত্রীকে পিষে দিয়েছিল একটি ক্রেন। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়েছিল ওই কিশোরীর।

ছবি: শুভাশিস রায়

[ফের মেট্রোয় মরণঝাঁপ, অফিস টাইমে ব্যাহত পরিষেবা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে