২২  শ্রাবণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৯ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বাড়ি সারাতে টাকার চাপ কাউন্সিলরের স্বামীর, অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রীকে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 12, 2018 1:13 pm|    Updated: September 12, 2019 1:28 pm

Kolkata: Councilor’s husband demands ‘bribe’ for house renovation

স্টাফ রিপোর্টার:  কলকাতা পুরসভার এক কাউন্সিলরের স্বামীর বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ। অভিযোগ, আড়াই লক্ষ টাকা না দিলে বাড়ি সারানোর কাজ করতে দেওয়া যাবে না, এমনই হুমকি দিয়েছে কাউন্সিলরের স্বামী। এই হুমকির ভিত্তিতে ই-মেল করে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে অভিযোগ জানালেন বাড়ির মালিক। অভিযোগকারী মধ্য কলকাতার মুচিপাড়ার বাসিন্দা। যদিও অভিযোগ মানতে চাননি ওই কাউন্সিলরের স্বামী। উলটে দাবি, এমন কিছুই করেনি। এমনকী, অভিযোগকারী ব্যক্তি ও তাঁর পরিবারের পাশে রয়েছেন তিনি। এই ঘটনায় পালটা অভিযোগ উঠেছে, কলকাতা পুরসভার অনুমতি না নিয়েই ছাদ সারানোর মতো বেশ কিছু বাড়ির কাজ করা হচ্ছে।

[১১৫টি দেশ ঘুরে বিশ্ব পর্যটনে অনন্য নজির প্রবাসী বাঙালি ব্যবসায়ীর]

জানা গিয়েছে,  মধ্য কলকাতার গোবিন্দ সরকার লেনের বাসিন্দা জ্যোতির্ময় বসুরায়। পুরসভার ৫১ নম্বর ওয়ার্ডে তাঁর একটি পুরনো বাড়ি রয়েছে। গত পাঁচ জানুয়ারি সেই বাড়ি সারানোর কাজ শুরু করান। অভিযোগ,  দিন ২০ কাজ চলে। এরপর ২৫ জানুয়ারি জ্যোতির্ময়বাবুর প্রতিবেশী কলকাতা পুরসভা ও কাউন্সিলরের কাছে অভিযোগ জানান। প্রতিবেশীর অভিযোগ, জানালার শেড ও কিছু নির্মাণের কারণে তাঁর বাড়িতে আলো-হাওয়া বন্ধ হয়ে গিয়েছে।

এই ঘটনার পরের দিনই বাড়িতে এসে হাজির হন এলাকার কাউন্সিলরের স্বামী। তিনি বলেন,  প্রতিবেশীরা বাধা দিচ্ছেন। তাই কাজ বন্ধ করতে হবে। এই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে জ্যোতির্ময়বাবু জানান, তাঁর কাছে পুরসভার অনুমতি রয়েছে। অভিযোগ, এরপরেও ওই ব্যক্তির কাছে আড়াই লক্ষ টাকা চান কাউন্সিলরের স্বামী। চাহিদা মতো টাকা না দিলে তাঁকে কাজ করতে দেওয়া হবে না, এই হুমকিও দেওয়া হয়। হুমকির পরপরই গোটা ঘটনার বিবরণ দিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে ই-মেলে অভিযোগ জানান জ্যোতির্ময়বাবু।

এই প্রসঙ্গে জ্যোতির্ময়বাবু জানিয়েছেন,  এক পুলিশকর্তা তাঁকে ডেকে পাঠিয়ে গোটা ঘটনা শোনেন। এর ভিত্তিতে ঘটনার তদন্তও শুরু করেছে। তদন্তের পর পুলিশ পরবর্তী পদক্ষেপ নিতে পারে। অন্যদিকে কাউন্সিলরের তরফে জানানো হয়েছে,  বাড়িতে কাজ চলতেই পারে। কিন্তু কোনও প্রতিবেশী আপত্তি তোলাতেই তা বন্ধ করে দিতে বলা হয়। টাকা চাওয়ার কোনও প্রসঙ্গ নেই।

[অভিনেত্রী মৌমিতার রহস্যমৃত্যুর তদন্তে নাটকীয় মোড়, জেরার মুখে প্রোডাকশন ম্যানেজার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে