১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

চিকেন প্যাটিসে ছত্রাক, প্রতিবাদ করায় কলেজ পড়ুয়াকে মারধর

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 28, 2018 12:38 pm|    Updated: May 28, 2018 12:38 pm

Kolkata eatery serves food with fungus, thrashes student for protesting

অর্ণব আইচ, কলকাতা: চিকেন প্যাটিসে পচা গন্ধ! সন্দেহের বশে প্যাটিসের আবরণ খুলতেই বেরিয়ে এল তুলোর মতো ছত্রাক৷ ঘটনার প্রতিবাদ করায় জুটল মারধর ও হেনস্তা৷ রেস্তরাঁ কর্তৃপক্ষের তরফে হেনস্তার শিকার হওয়ার পর ওই পচা খাবারই ‘প্যাক’ করিয়ে সোজা থানায় জমা দিলেন দক্ষিণ কলকাতার একটি কলেজের ছাত্র।

[শহরের পার্লার ও স্পা-এ ছদ্মবেশে হানা দিয়ে মধুচক্রের পর্দাফাঁস গোয়েন্দাদের, গ্রেপ্তার ৫৪]

একদিন আগেই শহরের একটি নামী রেস্তরাঁর ফ্রায়েড রাইসের মধ্যে পাওয়া যায় ‘ভাজা আরশোলা’। তার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ফের শহরের একটি নামী বেকারির দোকানে পচা খাবার বিক্রি করার অভিযোগ। প্রতিবাদ করায় বেকারির দোকানের ভিতরেই এক কলেজছাত্রকে মারধর ও হেনস্তা করা হয় বলে অভিযোগ। এই বিষয়ে ওই ছাত্র বেকারির এক কর্মীর বিরুদ্ধে দক্ষিণ কলকাতার নেতাজিনগর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এই ঘটনায় শনিবার রাতেই ওই বেকারির কর্মী জয় মুখোপাধ্যায়কে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। পুলিশ জানিয়েছে, নেতাজিনগরের বাসিন্দা ও গড়িয়ার একটি কলেজের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ঋজু মুখোপাধ্যায় শনিবার রাতে বাঁশদ্রোণীতে ওই বেকারির একটি শাখায় খেতে যান। এই বিষয়ে ঋজু জানিয়েছেন, শনিবার বিকেলে ওই অঞ্চলে তিনি একটি অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন৷ অনুষ্ঠানের শেষে তাঁর খিদে পায়। ওই নামী বেকারির দোকানটিতে গিয়ে চিকেন প্যাটিস কেনেন। দোকানের কর্মীরা তাঁকে প্যাটিস গরম করেই দেন৷ কিন্তু গোটা দুই কামড় দিয়েই বিস্বাদ লাগে। তাঁর মনে হয় সেটি খারাপ হয়ে গিয়েছে। তিনি সন্দেহের বশে প্যাটিসের আবরণটি খোলার পরই দেখেন, ভিতরে তুলোর মতো ছত্রাক ভর্তি। ওই কলেজছাত্র দোকানের কর্মীদের সেটি দেখিয়ে কেন খারাপ খাবার দেওয়া হয়েছে, সেই বিষয়ে প্রশ্নও তোলেন। অভিযোগ, প্রথমে কর্মীরা বিষয়টিকে আমল দেননি৷

[একই অঙ্গে যোনি ও পুরুষাঙ্গ, শহরে জন্ম বিরল শিশুর]

পুলিশ জানিয়েছে, দোকানের মধ্যেই ওই ছাত্র খারাপ খাবারের প্রতিবাদ করে ওঠেন। চেঁচামেচিও শুরু করেন। তখনই তাঁর সঙ্গে জয় নামে ওই কর্মীর বচসা বেধে যায়। পুলিশের কাছে ছাত্রের অভিযোগ, দোকানের ভিতরই তাঁকে অভিযুক্ত কর্মী মারধর ও হেনস্তা করেন। এই গোলমাল চলার সময় দোকান ঘিরে লোকের ভিড় জমে ওঠে। অভিযোগ উঠেছে, দোকানের কর্মীরা তখন বিষয়টি চেপে যেতে অনুরোধ করেন ছাত্রকে। ওই কলেজ ছাত্র দোকানের কর্মীদের খাবারটি ‘প্যাক’ করে দিতে বলেন৷ কলেজ ছাত্র জানান, তিনি ওই প্যাক করা পচা খাবার নিয়ে সোজা চলে যান নেতাজিনগর থানায়৷ পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযুক্ত কর্মীকে গ্রেপ্তার করার সঙ্গে সঙ্গে কীভাবে ওই নামী বেকারি পচা খাবার বিক্রি করছে, সেই বিষয়েও তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে