BREAKING NEWS

০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  সোমবার ২৩ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বাঁশদ্রোণীতে গৃহবধূর অস্বাভাবিক মৃত্যু, স্বামীকে আটক করল পুলিশ

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 1, 2018 11:44 am|    Updated: June 1, 2018 11:44 am

Kolkata: Housewife found dead, husband detained

অর্ণব আইচ: ফের শহরে এক গৃহবধূর অস্বাভাবিক মৃত্যু। শ্বশুরবাড়ির লোকেদের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ দায়ের। মৃতার স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ। শ্বশুরবাড়ির লোকেদের দাবি, অসুস্থতার কারণে মারা গিয়েছেন বছর বত্রিশের ওই তরুণী। ঘটনাস্থল দক্ষিণ কলকাতার বাঁশদ্রোণী।

[হাতিয়ার স্থূল শরীর, মহিলা চোরের কারসাজিতে নিঃস্ব রেলযাত্রীরা]

মৃতার নাম পায়েল চক্রবর্তী। বাপেরবাড়ি উত্তর ২৪ পরগনার শ্যামনগরে। গত বছর পায়েলের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল বাঁশদ্রোণীর যুবক মৃগাঙ্ক রায়ের। ওই গৃহবধূর বাপের লোকেরা জানিয়েছেন, দাম্পত্যে জীবনে সুখী ছিলেন না তিনি। শ্বশুরবাড়িতে পায়েলের উপর অত্যাচার চলত। স্বামী মৃগাঙ্কের সঙ্গেও সম্পর্ক স্বাভাবিক ছিল না। বাপের বাড়ির লোকেদের দাবি, বৃহস্পতিবার রাতে মৃগাঙ্কদের বাড়ি থেকে ফোনে জানানো হয়, মেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। কিছুক্ষণ পরই পায়েল চক্রবর্তীর মৃত্যুসংবাদ পান তাঁরা। খবর পেয়ে তড়িঘড়ি কলকাতায় পায়েলের শ্বশুরবাড়িতে পৌঁছন ওই গৃহবধূর বাপের লোকেরা। তাঁদের অভিযোগ, অসুস্থতার কারণে মৃত্যু নয়, বছর বত্রিশের ওই তরুণীকে পরিকল্পনামাফিক খুন করেছেন শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। রাতে নেতাজিনগর থানায় খুনের অভিযোগ দায়ের করা হয়। মৃতার স্বামী মৃগাঙ্ক রায়কে আটক করেছে পুলিশ। ভাসুর-সহ পরিবারের অন্যন্যরা পলাতক।

[ডাক্তারি কলেজে ভরতির নামে শহরে প্রতারণার জাল]

মাস ছয়েক আগে বাঁশদ্রোণীর একটি বহুতল থেকে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই বহুতলের একটি ফ্ল্যাটে স্বামীর সঙ্গে থাকতেন অনন্যা সাঁই। পুলিশ জানিয়েছিল, ওই গৃহবধূর দেহে পাশ থেকে একটি সুইসাইড নোট পাওয়া গিয়েছে। সেখানে স্বামীর নির্যাতনের কথা উল্লেখ করে যান অনন্যা। মৃতার স্বামীর বিরুদ্ধেও খুনের অভিযোগ দায়ের করে মৃতার বাপের বাড়ির লোকেরা।

[দেখলেন না আত্মীয়-প্রতিবেশীরা, অসুস্থ হয়ে মৃত্যু ঘরবন্দি বৃদ্ধার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে