১ আশ্বিন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়: শহরের বুকে বড়সড় হাওয়া চক্রের হদিশ পেলেন কলকাতা পুলিশ আধিকারিকরা৷ মঙ্গলবার দুপুরে মধ্য কলকাতার বড়বাজার এলাকা থেকে এই হাওলা চক্রের দু’জনকে পাকড়াও করল বড়বাজার থানার পুলিশ৷ ধৃতদের নাম সঞ্জিত সিং ও অমরজিৎ সিং৷ ধৃতদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে প্রায় এক কোটি টাকা৷ তাদের জেরা করে এই চক্রের চাঁইয়ের খোঁজ পেতে চাইছেন তদন্তকারীরা৷

[ আরও পড়ন: বাড়ি মেরামতির পরই সুড়ঙ্গের কাজ, বউবাজারের পরিস্থিতি দেখে সিদ্ধান্ত বিশেষজ্ঞদের ]

পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃত সঞ্জিত সিংয়ের বাড়ি পাটনাতে৷ এবং ধৃত অমরজিৎ সিং উত্তর কলকাতার জোড়াবাগান এলাকার বাসিন্দা৷ এরা দু’জনেই ধানবাদে একটি টিএমটি বারের কারখানায় কাজ করে৷ এদিন গাড়ি ভরতি করে টাকা নিয়ে সেখান থেকেই এসেছিল তারা৷ উদ্দেশ্য ছিল, হাওলা চক্রের মাধ্যমে এই টাকা বিদেশে পাচার করা৷ কিন্তু কলকাতা পুলিশের তৎপরতায় তা আর সম্ভব হয়নি৷ জানা গিয়েছে, গোপন সূত্রে পাওয়া খবরের ভিত্তিতে আগে থেকেই বড়বাজার এলাকায় ওঁৎ পেতে বসেছিলেন বড়বাজার থানার পুলিশ আধিকারিকরা৷ সন্দেহভাজন দু’জনকে দেখার সঙ্গে সঙ্গে পাকড়াও করেন তাঁরা৷ উদ্ধার হয় এক কোটিরও বেশি টাকা৷ যার কোনও হিসাব দিতে পারেনি ধৃতরা৷ সঙ্গে সঙ্গে তাদের হেফাজতে নেন পুলিশ আধিকারিকরা৷ শুরু হয় জেরা৷ সূত্রের খবর, জেরায় ধৃতদের কাছ থেকে এই চক্রের চাঁইয়ের সন্ধান পেতে চাইছেন তদন্তকারীরা৷

[ আরও পড়ন: রবিনসন স্ট্রিটের ছায়া এবার দমদমে, দিদির দেহ আগলে ভাই! ]

তবে এই প্রথম নয়, এর আগেও শহরের বিভিন্ন এলাকা থেকে উদ্ধার হয়েছে মোটা অংকের হাওলার টাকা৷ গোয়েন্দা রিপোর্টে আগেই প্রকাশ পেয়েছে যে, এই হাওলার টাকাই যায় সন্ত্রাসবাদী সংগঠনগুলির হাতে৷ এই টাকার সাহায্যেই ভারতের বিরুদ্ধে নাশকতার ছক কষার রসদ পায় সন্ত্রাসবাদী সংগঠনগুলি৷ এই হাওলার টাকা বিদেশে পাচার বন্ধে রাজ্যগুলিকে কড়া নির্দেশ দিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকও৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং