BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

চালকের কানে মোবাইল, ছবি তুলে পুরস্কার পেলেন ক’জন?

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: February 19, 2018 8:52 am|    Updated: February 19, 2018 8:52 am

Kolkata Police rewards Samaritans for spilling beans on drivers using mobile while driving

নব্যেন্দু হাজরা: নিরন্তর বেজেই চলেছে হোয়াটসঅ্যাপ অ্যালার্ট। কারণ, কড়কড়ে ৫০০ টাকার হাতছানি। মোবাইল কানে কাউকে গাড়ি চালাতে দেখলেই সে ছবি তুলে সরাসরি ট্রাফিকের নম্বরে পাঠাচ্ছেন পথচারী।

[ভিআইপি রোডে দুর্ঘটনার কবলে খাদ্যমন্ত্রীর কনভয়, অল্পের জন্য রক্ষা জ্যোতিপ্রিয়র]

কিন্তু! ছবিতেই বিপত্তি। কেউ মোবাইল কানে চালকের ছবি তুললেও সেই গাড়ির নম্বর পাঠাতে পারছেন না। কেউ গাড়ির নম্বর তুলছেন বটে। কিন্তু চালকের কানে মোবাইল ধরার দৃশ্য নিজে ক্যামেরাবন্দি করতে পারছেন না। কেউ আবার এমন ছবি পাঠাচ্ছেন, যেখানে চালককে চেনাই যাচ্ছে না। ফলে লালবাজারের ট্রাফিক কর্তারাও হাতড়াচ্ছেন চালকের পরিচয়। আর শহরবাসীর কাছেও হাতছাড়া হয়ে যাচ্ছে ৫০০-র অফার।

[‘ঘুমিয়ে পড়েছিলাম’, মেধাবী সায়ন্তনের মৃত্যুতে বয়ান অ্যাপ ক্যাব চালকের]

কানে মোবাইল নিয়ে কোনও চালককে গাড়ি চালাতে দেখলে সেই ছবি তুলে কলকাতা ট্রাফিকের হোয়াটস অ্যাপ নম্বরে পাঠানোর কথা জানিয়েছিল কলকাতা ট্রাফিক। ফেসবুকেও বিজ্ঞাপন করা হয়। বলা হয়েছিল, ঠিকঠাক ছবি পাঠালে ৫০০ টাকা পুরস্কার জিততে পারবেন প্রেরক। আর সেই লোভেই দিনে শয়ে শয়ে মেসেজ ঢুকছে ট্রাফিকের দেওয়া নম্বরে। কিন্তু সূত্রের খবর, এখনও পর্যন্ত মাত্র পাঁচজন যাবতীয় ডিটেল দিয়ে সঠিক ছবি পাঠিয়েছেন। যা দেখে সেই পাঁচ চালককে চিহ্নিত করে শাস্তি দিয়েছেন লালবাজারের কর্তারা। আর ছবির প্রেরকদের কলকাতা পুলিশের সদর দপ্তরে ডেকে সম্প্রতি পুরস্কৃত করেছেন। কলকাতা ট্রাফিকের এক কর্তার কথায়, যে যেমন পারছেন ছবি পাঠাচ্ছেন। সে ছবি দেখে ভরাপ্রাপ্ত পুলিশ আধিকারিকদের চক্ষু  চড়কগাছও হচ্ছে কখনও কখনও। তবুও মানুষের সচেতনতা বৃদ্ধিতে কাজ তো করতেই হবে।

KOL-POLICE-PHOTO-AWARD-2

[সল্টলেক-রাজারহাটে গীতাঞ্জলির শো রুমে জোর তল্লাশি ইডির]

৯৯০৩৫৮৮৮৮৮। এটিই হচ্ছে মোবাইল কানে চালকের ছবি পাঠানোর হোয়াটস অ্যাপ নম্বর। ২৪ ঘণ্টার জন্যই তা খোলা। তাতেই ঢুকছে আম-আদমির তোলা ছবি। যা থেকে হচ্ছে ঝাড়াই-বাছাই। কলকাতা পুলিশের ডিসি ট্রাফিক সুমিত কুমার বলেন, “সম্প্রতি আমরা কয়েকজনকে ৫০০ টাকা করে পুরস্কার দিয়েছি। তাঁরা কানে মোবাইল দিয়ে গাড়ি চালানোর ছবি পাঠিয়েছিল আমাদের নম্বরে। তা থেকে বেছে নিয়ে পুরস্কৃত করা হয়েছে।রবিবারও শহরে একাধিক পথ দুর্ঘটনা ঘটেছে। যার একটি ঘটনায় চালকের ঘুমিয়ে পড়ার তত্ত্ব সামনে আসছে। এবিষয়ে কলকাতা ট্রাফিকের তরফে জানানো হয়েছে, গাড়ি চালানোর সময় যাতে চালকদের চোখ লেগে না আসে, সেকারণে ভোরের দিকে বিভিন্ন ট্রাফিক গার্ডে চালকদের চোখেমুখে জল দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। কারণ শীতকালেই বেশি চোখ লেগে যায় ড্রাইভারদের। শীতকাল চলে গেলেও এই উদ্যোগ চালিয়ে যেতে চায় বলে জানিয়েছে কলকাতা ট্রাফিক পুলিশ।

[আধার কার্ড হারিয়েছেন? জেনে নিন কীভাবে সহজেই পাবেন নতুনটি]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে