BREAKING NEWS

২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  সোমবার ১৫ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের ফ্ল্যাটে প্রশাসনিক আধিকারিকরা, দ্রুত শুরু হবে মেরামতি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 2, 2018 6:45 pm|    Updated: June 23, 2022 6:13 pm

Mamata Banerjee directs authorities to renovate Ex-CM Buddhadeb Bhattacharya’s residence

বুদ্ধদেব সেনগুপ্ত: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের বাড়ি মেরামতিতে তৎপর প্রশাসন। শুক্রবার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর পাম অ্যাভিনিউয়ের বাড়িতে যান প্রশাসনিক আধিকারিকরা। দীর্ঘক্ষণ বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের স্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেন তাঁরা। সূত্রের খবর, খুব তাড়াতাড়ি বাড়ি মেরামতি কাজ শুরু করতে চলেছে পূর্ত দপ্তর।

[সৌজন্যের নজির, বুদ্ধদেবকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা মমতার]

এ রাজ্যে বাম জমানার শেষ মুখ্যমন্ত্রী তিনি। কিন্তু, ২০১১ সালে পালাবদলের পর থেকে শরীর ভাঙতে শুরু করে জ্যোতি বসুর উত্তরসূরীর। শারীরিক অসুস্থতার কারণে সক্রিয় রাজনীতি থেকেও নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। এখন সকাল-বিকেল নিয়ম মেনে সিপিএমের সদর দপ্তর আলিমুদ্দিন স্ট্রিটে যান ঠিকই। তবে দীর্ঘদিন দলের কোনও কর্মসূচি বা প্রকাশ্যে জনসভায় আর দেখা যায় না বাম জমানার মুখ্যমন্ত্রীকে। শহরের বাইরে দলের বৈঠকে যোগ দেন না বুদ্ধবাবু। যাবতীয় দায়িত্ব থেকেও অব্যহতি চেয়ে দলের কাছে আবেদনও করেছেন। মাস খানেক আগে সন্ধেবেলায় আলিমুদ্দিন স্ট্রিটে থাকাকালীন গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। দলের কার্যালয়েই অক্সিজেন দিয়ে চিকিৎসা হয়েছিল তাঁর। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে দেখতে পাম অ্যাভিনিউয়ে বাড়িতে গিয়েছিলেন বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, তখনই বাড়িটির জরাজীর্ণ দশা তাঁর নজরে আসে। পরে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের ফ্ল্যাটের শৌচাগার-সহ বিভিন্ন অংশের বেহাল দশা কথাও জানতে পারেন তিনি। বুধবার বিধানসভার নিজে ঘরে প্রশাসনিক আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী। বুদ্ধবাবুর পরিবারের সঙ্গে কথা বলে অবিলম্বে বুদ্ধবাবুর ফ্ল্যাট মেরামত করে দেওয়ার নির্দেশ দেন তিনি।

[ভেনিসের ধাঁচে এবার কলকাতায় ওয়াটার ট্যাক্সি, আরামদায়ক জলসফরের ব্যবস্থা]

দীর্ঘদিন যাবৎ বালিগঞ্জের পাম অ্যাভিনিউয়ের একটি আবাসনে ২ কামরায় ফ্ল্যাটে সপরিবারে থাকেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন এই ফ্ল্যাট থেকে রাজ্যপাট সামলেছেন তিনি। ফ্ল্যাটটি সরকারের মালিকাধীন। সূত্রে খবর, মাস ছয়েক আগে ওই আবাসনের ফ্ল্যাটগুলির মালিকানা হস্তান্তরের ফাইলে সইও করে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু, তারপরেও কেন ফ্ল্যাটের মালিকানা কেন হস্তান্তর করা হয়নি? প্রশাসনের আধিকারিকদের কাছে জানতে চেয়েছেন তিনি। বিষয়টি দ্রুত মিটিয়ে ফেলার জন্য আবাসন দপ্তরের সচিব খলিল আহমেদ নির্দেশও দিয়েছেন। প্রসঙ্গত, বুদ্ধবাবুর ফ্ল্যাটটি সারিয়ে দেওয়ার জন্য রাজ্য সরকারের কাছে দলগতভাবে আবেদন জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল সিপিএমও। শুক্রবার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের পাম অ্যাভিনিউয়ের বাড়িতে যান প্রশাসনিক আধিকারিকরা। ফ্ল্যাটটি ঘুরে দেখেন তাঁরা। কথা বলেন বুদ্ধ-জায়া মীরা ভট্টাচার্যের সঙ্গেও। সূত্রের খবর, খুব তাড়াতাড়ি প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর ফ্ল্যাট মেরামতির কাজ শুরু করবে পূর্ত দপ্তর।

[আয় বাড়াতে ঘুম চোখেই স্টিয়ারিংয়ে হাত চালকদের, বাড়ছে বিপদ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে