১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কারও চাকরি না যাওয়ার আশ্বাস মুখ্যমন্ত্রীর

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 9, 2016 8:38 am|    Updated: June 9, 2016 8:38 am

An Images

স্টাফ রিপোর্টাররাজ্য সরকারি পরিবহণ নিগমের কোনও কর্মীর চাকরি যাবে না বলে আশ্বাস দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ বুধবার নবান্নে রাজ্যের তিন সরকারি পরিবহণ নিগমকে এক করে দেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করে মুখ্যমন্ত্রী জানান, রাজ্যের উন্নয়ন প্রক্রিয়াকে অব্যাহত রাখতে ও  ভরতুকি ব্যয় কমাতে এই তিন নিগমকে এক করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত৷

তবে এজন্য তিন নিগমের কোনও কর্মীর চাকরি যাওয়ার প্রশ্নই নেই৷ তাঁর কথায়, “তিনটি কর্পোরেশনকে এক করে দেওয়া হল কারণ সরকারের টাকা বাঁচাতে হবে৷ উন্নয়নও করতে হবে৷ কারও চাকরি যাবে না৷ সবাইকে অপশন বেছে নেওয়ার সুযোগ দেওয়া হবে৷”

রাজ্য পরিবহণে ভরতুকি কমানো এবং যাত্রী পরিষেবাকে আরও মসৃণ করার জন্য দীর্ঘদিন ধরেই ভাবনাচিন্তা চলছে৷ তারই প্রথম ধাপ হিসাবে এক ছাতার তলায় নিয়ে আসা হল রাজ্যের তিন সরকারি পরিবহণ নিগমকে৷ তবে এই সিদ্ধান্তের কারণে নিগম কর্মীদের কারও জীবন জীবিকা নিয়ে কোনও আশঙ্কা যে নেই তা বারবার নিশ্চিত করে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী৷ নিজে তো স্পষ্ট করে বলেইছেন, তার পরেও এবিষয়ে কোনওরকম সংশয় যাতে তৈরি না হয়, সেজন্য রাজ্য সরকারের দৃষ্টিভঙ্গি ব্যাখ্যা করতে পাঠিয়েছেন পরিবহণ সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে৷ আলাপনবাবু জানিয়েছেন, তিন নিগমকে এক ছাতার তলায় নিয়ে আসায় কোনও কর্মীর চাকরি যাওয়ার কোনও প্রশ্নই নেই৷ প্রত্যেককেই নিজের পছন্দমতো অপশন বেছে নেওয়ার সুযোগ দেওয়া হবে৷

রাজ্যের পাঁচ সরকারি নিগমের পরিচালন পর্ষদগুলিকে নতুন করে গঠন করা সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সিএসটিসি, সিটিসি ও ভূতল পরিবহণ নিগমকে একটি অভিন্ন পরিচালন পর্ষদের অধীনে নিয়ে আসা হচ্ছে৷ এই পর্ষদের চেয়ারম্যান করা হয়েছে রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী রচপাল সিংকে৷ ভাইস চেয়ারম্যান হয়েছেন এন্টালির বিধায়ক স্বর্ণকমল সাহা৷ সদস্য হিসাবে থাকছেন দুই বিধায়ক নয়না বন্দ্যোপাধ্যায় ও সুজিত বসু৷

পাশাপাশি দক্ষিণবঙ্গ সরকারি পরিবহণ নিগমের নতুন পরিচালন পর্ষদের চেয়ারম্যান রাখা হয়েছে তমোনাশ ঘোষকেই৷ ভাইস চেয়ারম্যান বিধায়ক অসিত মজুমদার৷ সদস্য হিসাবে রাখা হয়েছে দুই বিধায়ক কৃষ্ণচন্দ্র সাঁতরা ও জ্যোৎস্না মণ্ডল, রাজেশ মাহাতো এবং নিখিলেশ্বর বন্দ্যোপাধ্যায়কে৷ উত্তরবঙ্গ রাজ্য পরিবহণ নিগমের চেয়ারম্যান হয়েছেন পুরনো মুখ সৌরভ চক্রবর্তীই৷ ভাইস চেয়ারম্যান অর্ঘ্য রায়প্রধান৷

পর্ষদের সদস্য দুই বিধায়ক হামিদুল রহমান ও অনিল অধিকারীর পাশাপাশি শান্তা ছেত্রী, দেবাশিস গোস্বামী, আবদুল জলিল আহমেদ৷ আলাপনবাবু জানান, রাজ্য পরিবহণ নিগমগুলির পুনরুজ্জীবনে বিখ্যাত আন্তর্জাতিক সংস্থা ‘জোনস ল্যাঙ্গ লাসাল’-কে দিয়ে করানো সমীক্ষার ভিত্তিতেই এই তিন নিগম এক করার সিদ্ধান্ত৷ এই একত্রীকরণে একদিকে যেমন ‘অপারেশনাল’ সুযোগসুবিধা এক লাফে অনেকটা বেড়ে যাবে, পাশাপাশি একই রুটে সরকারি পরিবহণ নিগমগুলির পারস্পরিক প্রতিযোগিতার অবসান হবে৷ এতে আর্থিক লাভের পাশাপাশি যাত্রী পরিষেবাও আরও মসৃণ হবে৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement