BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মুখ্যমন্ত্রীর বিমান বিভ্রাটে সাসপেন্ড ছয় বিমানচালক

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 7, 2016 1:02 pm|    Updated: September 16, 2020 4:01 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত বুধবার পাটনা থেকে ফেরার পথে জ্বালানি কম থাকায় জরুরি অবতরণ করতে হয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিমানকে৷ আর কয়েক মিনিট দেরি হলে প্রাণ সংশয় হতে পারত তাঁর৷ আর তার জেরে মঙ্গলবার ছ’জন বিমানচালককে নির্বাসিত করল বেসামরিক বিমান পরিবহণ দফতর (ডিজিসিএ)৷

কম জ্বালানি থাকা সত্ত্বেও ঝুঁকি নিয়ে বিমান চালানোর অপরাধে সাসপেন্ড করা হল ইন্ডিগো, স্পাইস জেট এবং এয়ার ইন্ডিয়ার মোট ছ’জন বিমানচালককে৷ ইন্ডিগোর বিমানে পাটনা থেকে ফিরছিলেন মুখ্যমন্ত্রী৷ তাঁর বিমানটির আগে এয়ার ইন্ডিয়া এবং স্পাইস জেটের বিমানগুলি অবতরণ কথার কথা ছিল৷ কিন্তু গোটা ঘটনায় অনেকটা সময় চলে যায়৷ ফলে অবতরণের আগে প্রায় আধ ঘণ্টা আকাশে চক্কর কাটতে থাকে মুখ্যমন্ত্রীর বিমানটি৷ সেই কারণে ইন্ডিগোর পাশাপাশি ওই দু’টি সংস্থার বিমানচালককেও সাসপেন্ড করেছে বিমান পরিবহণ দফতর৷

পুরো ঘটনাকে রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র আখ্যা দিয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেস৷ রাজ্যসভায় বিষয়টিকে ষড়যন্ত্র বলে অভিযোগ তুলেছিলেন সাংসদ ডেরেক’ও ব্রায়েন৷ বিরোধীরাও একই সুর তুললে বিষয়টি নিয়ে সরকারের তরফে তদন্তের আশ্বাস দেওয়া হয়েছিল৷

জ্বালানি কম থাকলে ঝুঁকি নিয়ে বিমান চালাতে নিষেধ করা হয় বিমানচালকদের৷ বিশেষ করে শীতকালে, যখন কুয়াশায় আকাশপথ প্রায় আচ্ছন্ন হয়ে যায়৷ কারণ সেক্ষেত্রে অনেক সময় অন্য পথে চালানো হয় বিমান৷ তবে ডিজিসিএ-র এমন সিদ্ধান্তে অখুশি বিমান সংস্থা৷ তাদের দাবি, বিমানচালকরা একটি বন্দরের কাছে গিয়ে জ্বালানির খবর দিয়েছিল৷ নিয়ম মেনে তেমনটাই করার কথা চালকদের৷ তাই ছ’জনকে সাসপেন্ড করায় ক্ষুব্ধ সংস্থা৷ আবার, ইন্ডিগোর চালক ও ট্রাফিক কন্ট্রোলের মধ্যে বোঝাপড়ার অভাবেই এই ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি তোলা হয়েছে৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement