১ আশ্বিন  ১৪২৫  মঙ্গলবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮  |  পুজোর বাকি আর ২৮ দিন

মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও রাশিয়ায় মহারণ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

তরুণকান্তি দাস: ঘোষণা হয়ে গিয়েছিল আগেই। এবার সরকারি শিলমোহর পড়ে গেল। বেতন বাড়ছে রাজ্য পুলিশ ও কলকাতা পুলিশের অধীনে কর্মরত সিভিক ভলান্টিয়ারদের। সাড়ে ৫ হাজার টাকা থেকে বেতন বেড়ে হচ্ছে ৮ হাজার টাকা।

[বিশ্বকর্মা পুজো নিয়ে বিবাদ, বেহালায় অটো বন্ধ রেখে বিক্ষোভ চালকদের]

গত মে মাসে বঙ্গ সম্মানের মঞ্চ থেকে খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন দ্রুত বেতন বাড়ানো হবে সিভিক ভলান্টিয়ারদের। মূলত পঞ্চায়েত নির্বাচনে ভাল কাজের পুরস্কার পেয়েছিলেন সিভিকরা। তাছাড়া দীর্ঘদিন ধরেই বেতনবৃদ্ধির দাবি জানিয়ে আসছিলেন তাঁরা। এবার তাদের সেই দাবি পূরণ হতে চলেছে। বুধবার রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে সরকারিভাবে মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণায় শিলমোহর পড়ে গেল। বৈঠক শেষে রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য একথা ঘোষণা করেছেন। এতদিন পর্যন্ত সিভিক ভলান্টিয়ারদের বেতন ছিল সাড়ে পাঁচ হাজার টাকা। ১ অক্টোবর থেকে তা বাড়িয়ে করা হবে আট হাজার টাকা। তাছাড়া যাঁরা বর্তমানে সিভিক ভলান্টিয়ার হিসেবে কাজ করছেন, তাঁদের প্রশিক্ষণ দিয়ে হোম গার্ড ও পরে কনস্টেবল করে নেওয়ারও পদ্ধতি শুরু হবে বলে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী। অর্থাৎ এবার সিভিক ভলান্টিয়ারদের সরাসরি পুলিশকর্মী হওয়ার সুযোগ থাকল। সিভিকদের পাশাপাশি জুনিয়র হোম গার্ডদেরও বেতন বাড়ানো হল। এই নতুন ঘোষণার ফলে রাজ্যের কোষাগারে অবশ্য টান পড়ার সম্ভাবনা থাকছে। কারণ, নয়া ঘোষণার ফলে রাজ্যের কোষাগার থেকে অতিরিক্ত ৩৯৪ কোটি ৩৯ লক্ষ টাকা খরচ হবে বলে জানিয়েছেন চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য।

[পোস্তা-মাঝেরহাটের জের, সেতু পরীক্ষায় বিদেশি সংস্থা নিয়োগের ভাবনা রাজ্যের]

এর পাশাপাশি হাসপাতালগুলিতে নার্সদের চাহিদা মেটাতে বাড়ানো হচ্ছে তাদের অবসরের বয়স। সরকারি হাসপাতালে নার্সদের অবসরের বয়স ৬০ বছর থেকে বেড়ে হচ্ছে ৬২ বছর। সেই সঙ্গে আগামিদিনে রাজ্যে যাতে নার্সদের ঘাটতি তৈরি না হয় তা নিশ্চিত করতে অতিরিক্ত ২৭টি নার্সিং স্কুল তৈরিরও সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এর ফলে উপকৃত হবেন রাজ্যের পড়ুয়ারা। পুজোর আগে রাজ্যের এই ঘোষণায় স্বস্তিতে সিভিক ভলান্টিয়াররা। নতুন সিদ্ধান্তে উপকৃত হবেন কয়েক হাজার সিভিক। সেই সঙ্গে নার্সদের বয়স বাড়ানোই স্বাস্থ্যক্ষেত্রেও সমস্যা বেশ খানিকটা মিটবে বলে মনে করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং