২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সিবিআই বনাম পুলিশ Live Updates: ধরনা মঞ্চে যোগ কানিমোঝি-তেজস্বীর

Published by: Sulaya Singha |    Posted: February 4, 2019 11:00 am|    Updated: February 4, 2019 9:15 pm

Mamata vs CBI: live updates

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজ্য তথা দেশে নজিরবিহীন ঘটনা। কলকাতা পুলিশের কমিশনার রাজীব কুমারকে জেরা করতে এসে পুলিশ আধিকারিকদের কাছে বাধাপ্রাপ্ত হন সিবিআই আধিকারিকরা। আগাম কোনও খবর ছাড়া বিনা অনুমতিতে কমিশনারের বাসভবনে প্রবেশ করা বা তাঁকে জেরা করতে পারেন না সিবিআই আধিকারিকরা। এমনই বক্তব্য কলকাতা পুলিশের আধিকারিকদের। যদিও সিবিআইয়ের আধিকারিকদের দাবি, তাঁদের কাছে সবরকম কাগজ রয়েছে। তবুও তাঁদের তদন্তে বাধা দিয়েছে পুলিশ। এবং এই ঘটনায় আইনিভাবে মোকাবিলা করার কথা জানিয়েছেন সিবিআইয়ের যুগ্ম অধিকর্তা পঙ্কজ শ্রীবাস্তব। কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাতের জেরে রবিবার সন্ধে থেকে অনির্দিষ্টকালীন ধরনায় বসেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সঙ্গে রাজ্যের বেশ কয়েকজন মন্ত্রী, তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্ব।

[সিবিআই বনাম রাজ্য পুলিশ: মমতার পাশে বিরোধীরা, আজ সবার নজর সুপ্রিম কোর্টে]

রাত ৯টা – আরজেডি নেতা তেজস্বী যাদব এবং ডিএমকে  নেত্রী কানিমোঝি যোগ দেন ধর্মতলার মেট্রো চ্যানেলের ধরনা মঞ্চে৷ মমতার পাশে থাকার বার্তা দেন তাঁরা৷ তেজস্বী বলেন, ‘‘প্রধানমন্ত্রী আসে যায়, কিন্তু সংবিধান থেকে যায়৷’’ কানিমোঝি বলেন, ‘‘গণতন্ত্র, সংবিধান নষ্ট করেছে বিজেপি৷’’  

রাত ৮টা – দিল্লিতে শরদ পাওয়ারের বাড়িতে বৈঠক করেন কেজরিওয়াল, চন্দ্রবাবু নায়ডুরা৷ কেন্দ্রের বিরুদ্ধে এককাট্টা হয়ে আন্দোলনের পরিকল্পনা করেছেন তাঁরা৷ 

বেলা ৫:২১- মমতার আন্দোলনকে হাস্যকর বলেলেন বাবুল সুপ্রিয়। তাঁর কটাক্ষ, ‘যাঁরা এই প্রতিবাদে শামিল হয়েছেন সকলেই দুর্নীতিগ্রস্থ। এদিকে মঞ্চ থেকে মুখ্যমন্ত্রী সাফ জানিয়ছেন, কোনওভাবেই এই আন্দোলন থামবে না।  

বেলা ০৪:৪০- বিজেপিতে যোগ দিলেন ভারতী ঘোষ। দলে যোগ দিয়েই মমতাকে আক্রমণ প্রাক্তন আইপিএস অফিসারের। এদিকে দার্জিলিংয়ে মমতার ধরনার সমর্থনে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার বিজেপি বিরোধী বিক্ষোভ মিছিল। সিবিআইয়ের অভিযানের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে দক্ষিণ ২৪ পরগনার সরিষা-তে আন্দোলন তৃণমূল কর্মীদের। সিবিআই অভিযানের প্রতিবাদে বারাকপুর ১৪ নম্বর রেলগেট অবরোধ তৃণমূলের।

বেলা ৪:৩৪- ধরনা মঞ্চ থেকেই পুলিশ পদক প্রদান। রয়েছেন রাজ্য পুলিশের ডিজি বিরেন্দ্র ও কলকাতা পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার। 

বেলা ৪:১৯- বিজেপির উত্থানে ভয় পেয়েছেন মমতা। আইনের রক্ষকদের মধ্যে এহেন সংঘাত গণতন্ত্রের পক্ষে বিপজ্জনক। রাহুল গান্ধী নিজেই বলেছেন বাংলায় চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে টাকা খুইয়েছেন ২০ লক্ষ মানুষ। নারদ ও সারদা, দুই মামলার তদন্ত আমরা ক্ষমতায় আসার আগে থেকেই চলছিল, বললেন কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশংকর প্রসাদ।  

বেলা ৩.৫৬- একযোগে কংগ্রেস-তৃণমূলকে আক্রমণ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশংকর প্রসাদের। তিনি প্রশ্ন তোলেন, তদন্ত করা কি পাপ? কেন সিপি রাজীব কুমারের সমর্থন করছেন মমতা? আগেও চিটফান্ড মামলায় তৃণমূলের নেতা-মন্ত্রীরা গ্রেপ্তার হয়েছে। তখন মমতার ঘুম ভাঙেনি কেন? কংগ্রেসের বিরুদ্ধে তোপ দেগে প্রসাদ আরও বলেন, স দুর্নীতিগ্রস্থরা জোট বেঁধেছে।  

বেলা ৩:৪১- দিল্লি পৌঁছালেন সিবিআইয়ের জয়েন্ট ডিরেক্টর পঙ্কজ শ্রীবাস্তব ও ডিএসপি তথাগত বর্ধন। ভবানীপুরে বিজেপির অফিস ভাঙচুর। অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে।

বেলা ২:৫০-  কেন্দ্রের কাছে রিপোর্ট পেশ করলেন রাজ্যপাল। মমতার সঙ্গে ধরনায় উপস্থিতি ছিলেন আইপিএস অফিসাররাও। এই আন্দোলন সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক। ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলবে মিটিং-মিছিল,  মঞ্চ থেকে বার্তা মমতার।      

বেলা ২:০৫- সিবিআইয়ের জয়েন্ট ডিরেক্টরের পঙ্কজ শ্রীবাস্তবের বিরুদ্ধে পালটা আক্রমণে কলকাতা পুলিশ। ৪৫ লক্ষ টাকার প্রতারণা মামলায় নোটিস পাঠাল ভবানীপুর থানা। নোটিস প্রাপ্তির কথা স্বীকার শ্রীবাস্তবের। আইনি পরামর্শের পরই পরবর্তী পদক্ষেপ নেবেন বলে জানান তিনি।  

বেলা ১:৫৫- নির্বাচন কমিশনে বিজেপি। তৃণমূল ঘনিষ্ঠ অফিসারদের ভোটের কাজে না রাখার আরজি বিজেপির প্রতিনিধি দলের।

বেলা ১:৫২- রাজ্যপালের তলবে রাজভবন পৌঁছলেন এসআইবি ডিরেক্টর মনোজ লাল। 

 

বেলা ১:২০- বাজেট পেশের আগে ধরনা মঞের পাশে মন্ত্রিসভার বৈঠকে মুখ্য়মন্ত্রী।

mamata banerjee

বেলা ১২:৫২- দুপুর ২টো পর্যন্ত মলতুবি লোকসভা।

বেলা ১২:৪৬- সিবিআইয়ের পদক্ষেপের বিরুদ্ধে এবার হাই কোর্টে পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার। আগামিকাল এই মামলার শুনানি।

বেলা ১২:২৩- লোকসভায় জবাবি ভাষণে বিরোধীদের অভিযোগ ওড়ালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। তাঁর অভিযোগ, সিবিআইয়ের তদন্তে বাধা দেওয়া হয়েছে।

বেলা ১২:১৬- সিবিআইকে দিয়ে বিরোধীদের কণ্ঠ রোধ করানোর অভিযোগ লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা মল্লিকার্জুন খাড়গের। সিবিআইকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহারের অভিযোগ তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়ের। কেন্দ্রের বিরুদ্ধে এককাট্টা বিরোধীরা।

বেলা ১২:১০- কেন্দ্র বনাম রাজ্যের সংঘাত ইস্যুতে সাংবাদিক সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একহাত নিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর। তাঁর প্রশ্ন, ধরনা করে কি দুর্নীতিগ্রস্থ পুলিশ কমিশনারকে বাঁচানোর চেষ্টা করছেন মুখ্যমন্ত্রী?

Mamata Banerjee

বেলা ১২:০৫- সিবিআই-রাজ্য সংঘাতে উত্তপ্ত লোকসভা। মুলতুবির পর আবার শুরু অধিবেশন।

সকাল ১১:৩০- ডিজিপি এবং মুখ্যসচিবকে তলব করেছেন রাজ্যপাল। পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চেয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। 

সকাল ১১:০৫- বিরোধীদের হইহট্টলোগের জেরে দুপুর ২টো পর্যন্ত মুলতুবি রাজ্যসভা। 

সকাল ১১:০০- রাজ্যপালকে ফোন করে উষ্মা প্রকাশ করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। বলেন, “এমন ঘটনা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। অফিসারদের নিগ্রহ, বাধা দেওয়া অনভিপ্রেত।”

সকাল ১০:৪৯- সুপ্রিম কোর্টে পিছিয়ে গেল সিবিআই-রাজ্য পুলিশ সংঘাত মামলার শুনানি। সিবিআইয়ের তরফে আইনজীবীর বক্তব্য শোনে আদালত। মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতির বেঞ্চে হবে শুনানি।

সকাল ১০:৪৫- ধরনা মঞ্চের পাশে ফেসবুক লাইভে মুখ্যমন্ত্রীর অনশন-বিরোধী মন্তব্য এক যুবকের। তাঁকে আটক করল হেস্টিংস থানার পুলিশ।

সকাল ১০:৪০- হাওড়া-আমতা শাখায় রেল অবরোধ। বাঁকুড়ার কাছে জাতীয় সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ তৃণমূল সমর্থকদের।

সকাল ১০:১৫- মেট্রো চ্যানেলে  তৃণমূল সমর্থকদের ভিড়। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে দাঁড়াতে অখিলেশ যাদবের হয়ে ধরনা মঞ্চে যোগ দেন কিরণময় নন্দ। 

[সহযোগিতা করেনি পুলিশ, আইনিভাবে মোকাবিলার পথে সিবিআই]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে