BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

৩৬৫ দিন, ২৪ ঘণ্টা জাতীয় পতাকা ওড়াতে চেয়ে হাই কোর্টে মামলা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 20, 2018 3:29 am|    Updated: January 20, 2018 3:31 am

An Images

শুভঙ্কর বসু: ২৪ ঘণ্টা জাতীয় পতাকা ওড়াতে চান মেদিনীপুরের বিশ্বেশ্বর মাইতি। দাঁড়িবাঁধেরর ভোলা ময়রার চকে মতিঝিল পুকুর পাড়ে রীতিমতো একটি দৈত্যাকার পতাকা বছরের প্রতিটি দিন, প্রতি মুহূর্তে ওড়াতে চান মেদিনীপুর পুরসভার এই নির্দল কাউন্সিলার। এই মর্মে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকে একটি আবেদন জানিয়েছেন বিশ্বেশ্বরবাবু। মন্ত্রকে তিনি জানান, পূর্ণ সম্মান, মর্যাদা ও আইন মেনে তাঁকে একটি ১০০ ফুট উচ্চতা, ৩০ ফুট লম্বা ও ২০ ফুট চওড়া মাপের জাতীয় পতাকা প্রতিদিন ২৪ ঘণ্টা ওড়াতে দেওয়া হোক।

[ভাড়া বৃদ্ধির দাবিতে রাজ্য জুড়ে ২ দিনের বাস ধর্মঘট]

কিন্তু তাঁর অভিযোগ, গত বছর নভেম্বর মাসে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের যুগ্ম সচিবের কাছে (প্রশাসন) দরখাস্ত করলেও এখনও কোনও জবাব আসেনি। বাধ্য হয়ে তাই  হাই কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন তিনি। শুক্রবার বিচারপতি দেবাংশু বসাকের এজলাসে মামলার শুনানিতে বিশ্বেশ্বরবাবুর আইনজীবী আশরাফ আলি অভিযোগটি তুলে ধরেন। এই প্রসঙ্গে তিনি প্রাক্তন কংগ্রেস সাংসদ নবীন জিন্দালের উদাহরণ দেন। তিনি বলেন, “একজন ভারতীয় নাগরিকের জাতীয় পতাকা ওড়ানোর অধিকার রয়েছে। এমনকী রাতেও পতাকা ওড়ানোর ছাড়পত্র দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। তবুও কোনও উত্তর দিচ্ছে না স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক।”

অভিযোগটি শোনার পর এবিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের মত জানতে চেয়েছেন বিচারপতি বসাক। আট সপ্তাহের মধ্যে মন্ত্রককে জানাতে হবে এই আবেদন গ্রহণযোগ্য কি না। গ্রহণযোগ্য না হলে তার কারণও ব্যাখ্যা করতে হবে মন্ত্রককে।

[ঐত্রীর পরিবারকে শাসানির জের, বরখাস্ত আমরি মুকুন্দপুরের ইউনিট হেড জয়ন্তী]

কিন্তু বিশ্বেশ্বরবাবুর এই আবেদন সত্যি কী গ্রহণযোগ্য? আইন কী বলছে? ২০০২ সালে একজন ভারতীয় নাগরিকের ‘ফ্ল্যাগ কোড অফ ইন্ডিয়া’-র সমস্ত শর্ত মেনে জাতীয় পতাকা ওড়ানোর অধিকার দেয় শীর্ষ আদালত।

কী বলেছে ফ্ল্যাগ কোড অফ ইন্ডিয়া?

জাতীয় পতাকার মাপ হতে হবে ৩:২। কোনও বাণিজ্যিক উদ্দেশে জাতীয় পতাকা ব্যবহার করা যাবে না। জাতীয় পতাকা মাটিতেও ফেলা বা তার কোনওরকম সম্মানহানি করা যাবে না। এছাড়াও বলা হয়েছে, সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত জাতীয় পতাকা ওড়ানো যাবে।

ফ্ল্যাগ কোড অফ ইন্ডিয়ার শেষের এই শর্তটিকে চ্যালেঞ্জ করে ২০০৯ সালে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হন নবীন জিন্দাল। তিনি বলেন, মালেশিয়া, জর্ডন, আবুধাবি, উত্তর কোরিয়া, ব্রাজিল, মেক্সিকোর মতো দেশগুলিতে রাতেও জাতীয় পতাকা ওড়ানো হয়। এরপর দু’টি শর্ত চাপিয়ে রাতেও জাতীয় পতাকা ওড়ানোর অনুমতি দেয় শীর্ষ আদালত। কী শর্ত? রাতে পতাকা ওড়ালে সেটি যাতে দূর থেকে দেখা যায় সেজন্য নিরবচ্ছিন্ন ও পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা করতে হবে। আবহাওয়ার কারণে পতাকা ক্ষতিগ্রস্ত হলে অবিলম্বে তা পালটে ফেলতে হবে।

এখন প্রশ্ন হল, এ রাজ্যের বাসিন্দা বিশ্বেশ্বর মাইতি কি অনুমতি পাবেন ২৪ ঘণ্টা পতাকা ওড়ানোর? আদালতের রায়ের দিকেই এখন তাকিয়ে রয়েছেন তিনি।

[জেল হেফাজতে রিষড়ার ছাত্রনেতা, ছাত্রীর বিরুদ্ধেই এবার চাঞ্চল্যকর অভিযোগ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement