১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  রবিবার ২ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মলদ্বারে লুকনো কেজি খানেক সোনা, পাচারের আগেই কলকাতা বিমানবন্দরে পাকড়াও যাত্রী

Published by: Paramita Paul |    Posted: February 23, 2022 1:58 pm|    Updated: February 23, 2022 3:36 pm

Man held with smuggled gold at Kolkata airport | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

দীপালি সেন: ফের অভিনব কায়দায় সোনা পাচারের চেষ্টা কলকাতা বিমানবন্দরে। মলদ্বারে লুকিয়ে কলকাতায় আনা হচ্ছিল সোনা। কিন্তু শুল্কদপ্তরের তৎপরতায় হাতেনাতে ধরা পড়ল অভিযুক্ত যাত্রী। উদ্ধার হল প্রচুর সোনা। অন্য আরেকটি ঘটনায় বিপুল পরিমাণ সিগারেটও উদ্ধার হয়েছে।

জানা গিয়েছে, প্রায় এক কেজি গলানো সোনা মলদ্বারে লুকিয়ে পাচারের চেষ্টা করছিলেন এক যাত্রী। ধৃত বিমানযাত্রী ইম্ফল থেকে আসছিলেন। তবে আগে থেকেই শুল্কদপ্তরের সন্দেহের তালিকায় ছিলেন ওই যাত্রী। তাই কলকাতা বিমানবন্দরে পা রাখা মাত্র তাঁকে আটক করেন কলকাতা বিমানবন্দরের শুল্ক দপ্তরের এয়ার ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের আধিকারিকরা।

[আরও পড়ুন: চুরির অভিযোগে ২ ধৃতকে এলাকায় ঘোরাল পুলিশ, উঠল মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ]

তল্লাশির সময় ধৃত ব্যক্তির পায়ুপথ থেকে উদ্ধার হয়েছে ৯৩৮.১১ গ্রাম সোনা। যার বাজার মূল্য প্রায় ৪৭ লক্ষ টাকা। শুল্কদপ্তর সূত্রে খবর, পায়ুপথে তরল আকারে লুকানো ছিল উদ্ধার হওয়া সোনা। উদ্ধার হওয়া সোনা বাজেয়াপ্ত করেছে শুল্কদপ্তর এবং ধৃত ব্যক্তিকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।

অন্য আরেকটি ঘটনায় প্রায় পাঁচ লক্ষ সিগারেট উদ্ধার হয়েছে কলকাতা বিমানবন্দর থেকে। সোমবার বিমানবন্দরের ডোমেস্টিক কার্গো কমপ্লেক্স থেকে বাজেয়াপ্ত করা হয় সিগারেট। শুল্কদপ্তরের কাছে আগে থেকেই খবর ছিল, বিমানে থাকতে পারে বিপুল পরিমান সিগারেট। সেই খবরের ভিত্তিতে সোমবার ডিমাপুর থেকে কলকাতায় আসা একটি বিমানকে আটক করে পরীক্ষা করে এনএসসিবিআইয়ের (কলকাতা) বিমানবন্দরের এয়ার ইন্টেলিজেন্স ইউনিট। 

[আরও পড়ুন: শীঘ্রই শিয়ালদহ থেকে ফুলবাগান রুটে মিলবে মেট্রো পরিষেবা, গুণতে হবে বাড়তি ভাড়া]

তল্লাশিতেই উদ্ধার হয় ৪.৮ লক্ষ সিগারেট স্টিক। জানা গিয়েছে, উদ্ধার হওয়া সিগারেটের বাজার মূল্য প্রায় ৪৮ লক্ষ টাকা। বিপুল পরিমাণ সিগারেট বাজেয়াপ্ত করার পাশাপাশি একটি মামলাও দায়ের করেছে শুল্ক দপ্তর। মাদকদ্রব্য বহনকারীদের খোঁজে চলছে তল্লাশি।

প্রসঙ্গত, পোশাকের ভিতর লুকিয়ে কিংবা গোপনাঙ্গে আটকে সোনা পাচার এখন ‘ব্যাক ডেটেড’। কাস্টমসের কর্মীরা হাতেনাতে ধরে ফেলছে পাচারকারীদের কায়দা-কানুন। তাই নিত্যনতুন পদ্ধতিতে সোনা পাচারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে তারা। এবার যেমন শুল্ক দপ্তরের চোখে ধুলে দিতে ‘সোনার মলম’ তৈরি করে ফেলেছে তারা। তাও আবার পোশাকে সেলাই করে রাখা অংশে এমন ভাবে আটকে রাখছেন যে বুঝে ওঠাই দুষ্কর।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে