১৬ মাঘ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৩১ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

শুক্রবারও বৃষ্টির ভ্রুকুটি, আকাশ অংশত মেঘলা শহরে

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: March 15, 2019 9:34 am|    Updated: March 15, 2019 9:34 am

MeT predicts rain in South Bengal

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বসন্তের অকালবর্ষণ আগামী আরও দু’দিন পর্যন্ত থাকছে। কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের আরও বেশকিছু জেলায় আগামী দু’দিন বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। বাঁকুড়া, মেদিনীপুর, বর্ধমান, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রামের মতো একাধিক জেলায় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এই তালিকা থেকে বাদ যাচ্ছে না তিলোত্তমাও। বৃহস্পতিবার রাতেও কলকাতা এবং কলকাতা সংলগ্ন এলাকাতে আংশিক বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টিপাত হয়েছে। শুক্রবারও এই আবহাওয়া বহাল থাকবে রাজ্যের দক্ষিণের একাধিক জেলাতে। অর্থাৎ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। আকাশ আংশিক মেঘলা থাকবে বলেও পূর্বাভাস দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর।

[তৃণমূল নেতৃত্বের সঙ্গে টুইট যুদ্ধ বাবুলের, ভোটের আবহে সরগরম আসানসোল]

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের অধিকর্তা গণেশকুমার দাস আগেই পূর্বাভাস দিয়েছিলেন, পশ্চিমি ঝঞ্ঝা এবং পুবালি হাওয়ার মধ্যে সংঘর্ষের জেরে বজ্রগর্ভ মেঘ তৈরি হয়ে বৃষ্টি ঘটাতে পারে। তবে, তা হালকা থেকে মাঝারি মানের বৃষ্টি। দিন কয়েক আগে কালবৈশাখীর সম্ভাবনা থাকলেও এই পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাবে কালবৈশাখীর দ্বার রুদ্ধ হতে পারে বলে মত আবহাওয়াবিদদের। রাঢ়বঙ্গ, ঝাড়খণ্ডে তেমন গরম না পড়ায় বাতাস গরম হচ্ছে না। ফলে, কালবৈশাখীও দানা বাঁধতে পারছে না। সাধারণত, মার্চে সাধারণত দু’ধরনের কালবৈশাখী হয় গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে। আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন, ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলে আবহাওয়ার চরিত্রগত পরিবর্তনের প্রভাব সারা দেশেই পড়েছে। যেমন উত্তর ভারতে শীতের বিদায় পিছিয়ে গিয়েছে। যার ফলে মার্চের শুরুতে তেমন উষ্ণ হয়নি দক্ষিণবঙ্গ। আকাশ মেঘলা থাকায় বেশিরভাগ দিনই সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ঘোরাফেরা করেছে স্বাভাবিকের নিচে। যদিও মেঘের কারণে হেরফের ঘটেছিল তাপমাত্রার। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা কম থাকলেও আর্দ্রতা বেড়ে গিয়ে নাভিশ্বাস উঠছিল শহর ও শহরতলির বাসিন্দাদের। মার্চের প্রথম সপ্তাহান্তেই একটু একটু করে গরম পড়তে শুরু করেছিল। বিগত দু’দিনে সেই তাপমাত্রার পরিমাণ একটু বাড়লেও বৃহস্পতিবারের স্বস্তির বৃষ্টি যে সেই তাপমাত্রার পারদ বেশ খানিক নামিয়েছে, তা বলাই বাহুল্য।

[নির্বাচনে অশান্তি রুখতে আন্তঃরাজ্য সীমান্তে সিসি ক্যামেরার নজরদারি]

তবে, শনিবার এই বৃষ্টির হাত থেকে দক্ষিণবঙ্গবাসী কিছুটা রেহাই পেলেও আগামী রবিবার পর্যন্ত রোদের তেজ তেমন পাওয়া যাবে না বলেই খবর আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে।

 

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে