৮ ফাল্গুন  ১৪২৬  শুক্রবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: কুকথার জেরে দিলীপ ঘোষকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেছিলেন বাবুল সুপ্রিয়। তবে বিজেপির দুই সাংসদের মধ্যে সম্পর্ক এখনও মজবুত। দলীয় অন্তর্কলহ প্রকাশ্যে চলে এসেছে বিরোধীদের এই গুঞ্জনেরই জবাব দিলেন আসানসোলের বিজেপি সাংসদ। দ্বিতীয়বার দিলীপ ঘোষের বিজেপি রাজ্য সভাপতি দায়িত্ব পাওয়ার পর প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়েই সম্পর্ক নিয়ে মুখ খোলেন বাবুল। সাংসদ বলেন, ‘মতানৈক্য থাকলেও সম্পর্ক মজবুত’।

যোগী রাজ্যের পুলিশের মতো সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বিরোধীদের গুলি করে মারার হুঁশিয়ারি দিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বিরোধীরা তাঁর মন্তব্যকে হাতিয়ার করেই সমালোচনার সুর চড়িয়েছিলেন। দলের অন্দরেও চাপে পড়ে গিয়েছিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি। টুইটে দিলীপ ঘোষের মন্তব্যের বিরোধিতায় সুর চড়িয়েছিলেন বাবুল সুপ্রিয়। দিলীপ ঘোষ দায়িত্বজ্ঞানহীনের মতো মন্তব্য করেছেন বলেই কটাক্ষ করেছিলেন আসানসোলের বিজেপি সাংসদ। বাবুলকে পালটা জবাব দিয়েছিলেন দিলীপ। গেরুয়া শিবিরের দুই সাংসদের মতবিরোধের জেরে অন্তর্কলহ প্রকাশ্যে চলে এসেছিল বলেই দাবি রাজনৈতিক মহলের।

[আরও পড়ুন: প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগারে বন্দি ছেলে, পাকা পেঁপেতে ভরে মাদক পাচার মায়ের]

দলে দ্বিতীয়বার রাজ্য সভাপতি হিসাবে মনোনীত হওয়ার পর দুই সংসদের মতবিরোধ নিয়ে গুঞ্জনের জবাব দিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। তিনি বলেন, “যে যার মতো করে রাজনীতি করে। মতানৈক্য হতেই পারে। তা বলে দেখা হলে দিলীপদা আমাকে জড়িয়ে ধরবেন না তা হতে পারে না। আমাদের সম্পর্ক মজবুত। তিন-চারদিন আগে কী হয়েছে তা নিয়ে জলঘোলা করে কোনও লাভ নেই।”

নতুন করে আবারও রাজ্য বিজেপি সভাপতির দায়িত্ব পাওয়ার পরই আপনার স্বমেজাজে দিলীপ ঘোষ। এদিনও তিনি তাঁর বক্তব্যের মাধ্যমে আগ্রাসী মনোভাবের প্রমাণ দেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি। কর্মীদের আক্রমণ করা হলে তাঁর থেকে ভাল কথা শোনা সম্ভব নয় বলেও জানান দিলীপ ঘোষ।  ভোটের মাধ্যমে সমালোচনার জবাব দেওয়া হবে বলে আশাবাদী গেরুয়া শিবিরের সৈনিক।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং