৩০ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রাণের শহর, আনন্দের শহর। এ শহরে অপরাধপ্রবণতা যে কম হবে তা হয়তো প্রত্যাশিতই। কলকাতাবাসী অনেক বেশি একাত্ম, অনেক বেশি মিশুক। সেজন্যই তো প্রাণের শহর কলকাতা সবচেয়ে নিরাপদও। না, আমরা বলছি না। একথা বলছে খোদ কেন্দ্রীয় সংস্থার তৈরি করা রিপোর্ট।

ন্যাশনাল ক্রাইম ব্যুরোর রিপোর্ট বলছে, দেশের বৃহত্তম ১৯ শহরের মধ্যেই কলকাতাই সবচেয়ে নিরাপদ। দ্বিতীয় স্থানে কোয়েম্বাটোর। ২০১৬ সালের তুলনায় ২০১৭ সালে কলকাতায় কমেছে অপরাধপ্রবণতা।

[আরও পড়ুন: কাশ্মীরে রাতভর গুলির লড়াইয়ে নিকেশ ৩ জঙ্গি, শহিদ এক সেনা আধিকারিক]

ওই রিপোর্টেই বলছে, লাখপ্রতি জনসংখ্যার নিরিখে কলকাতায় অপরাধপ্রবণতা সবচেয়ে কম। সংস্থার রিপোর্ট বলছে, ২০১৭ সালে এক লক্ষ জনসংখ্যার পিছনে কলকাতায় অপরাধের সংখ্যা ছিল ১৪১.২। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬ সালে এই সংখ্যাটাই ছিল ১৫৯.৬। এই নিরিখে গোটা দেশের গড় ৪৬২.২। অর্থাৎ, এক লক্ষ জনসংখ্যার পিছনে অপরাধের সংখ্যার নিরিখে গোটা দেশের গড়ের তুলনায় কয়েক যোজন এগিয়ে কলকাতা। ২০ লক্ষের বেশি জনসংখ্যা বিশিষ্ট মোট ১৯টি শহরের অপরাধের রিপোর্ট পেশ করেছে ন্যাশনাল ক্রাইম ব্যুরো। যার নিরিখে কলকাতাই সেরা নির্বাচিত হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে কোয়েম্বাটোর। তৃতীয় স্থানে হায়দরাবাদ, চতুর্থস্থানে কোঝিকোড় এবং পঞ্চম স্থানে ঠাঁই হয়েছে মুম্বইয়ের।

[আরও পড়ুন: হরিয়ানায় উলটো ফলের ইঙ্গিত নয়া সমীক্ষায়, আশায় বুক বাঁধছে কংগ্রেস]


এই প্রথম নয় টানা ৪ বছর ধরেই কলকাতায় অপরাধের সংখ্যা কমছে। ২০১৪ সালে যেখানে মোট অপরাধের সংখ্যা ছিল ২৬ হাজার ১৬১টি। সেখানে ২০১৭ সালে এসে তা দাঁড়িয়েছে ১৯৯২৫-এ। একা কলকাতা নয়, গোটা বাংলাতেই কমছে অপরাধপ্রবণতা। ২০১৭ সালে নিরাপত্তার নিরিখে গোটা দেশের মধ্যে ১১তম স্থানে আছে বাংলা। ২০১৬ সালে বাংলা ছিল ১৯ তম স্থানে। বাংলায় প্রায় সমস্তরকম অপরাধই আগের তুলনায় বেশ খানিকটা কমেছে। এই নিরিখে সবচেয়ে খারাপ ফল যোগী আদিত্যনাথের উত্তরপ্রদেশের। পিছিয়ে নেই সদ্য নির্বাচন হওয়া মহারাষ্ট্রও।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং