১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৬ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

Abhishek Banerjee: ‘চাঁদা তুললেই বহিষ্কার’, একুশে জুলাইয়ের প্রস্তুতি বৈঠকে কড়া হুঁশিয়ারি অভিষেকের

Published by: Sayani Sen |    Posted: June 17, 2022 5:01 pm|    Updated: June 17, 2022 6:33 pm

No extortion for 21 July programme, warns TMC leader Abhishek Banerjee

কৃষ্ণকুমার দাস: একুশে জুলাইয়ের সমাবেশের জন্য তোলা যাবে না চাঁদা। কেউ নির্দেশ অমান্য করলে দল থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত। সমাবেশের প্রস্তুতি বৈঠকে দলীয় নেতা-কর্মীদের কড়া হুঁশিয়ারি দিলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। এছাড়া উত্তরবঙ্গ এবং জঙ্গলমহলের বাসিন্দাদের আরও বেশি করে সমাবেশে নিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় এদিনের বৈঠকে।

প্রতি বছর ২১ জুলাইয়ের সমাবেশ থেকে দলীয় নেতা-কর্মীদের গোটা বছরের কর্তব্য ঠিক করে দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। কেন্দ্র-বিরোধী লড়াইয়ের অভিমুখ স্পষ্ট করে দেন। দল ইতিমধ্যে বড় হয়েছে। রাজ্যের বাইরে পা রেখেছে। একাধিক রাজ্যে লড়াইয়ের মধ্যে দিয়ে অত্যন্ত প্রাসঙ্গিক এবং তাৎপর্যপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছে। তার উপর আবার পরপর দু’বছর ভারচুয়ালি একুশে জুলাই পালন করেছে তৃণমূল। সে কারণে এবারের একুশে জুলাই অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কীভাবে সমাবেশের আয়োজন করা হবে, তা স্থির করতে শুক্রবার মেট্রোপলিটনের তৃণমূল ভবনে প্রস্তুতি বৈঠক করেন অভিষেক (Abhishek Banerjee)। তাতেই দলের নেতারা অংশ নেন।

[আরও পড়ুন: দিঘা বেড়াতে যাওয়াই কাল, উদয়পুরে সমুদ্রে স্নান করতে নেমে মৃত্যু ছাত্রের]

ওই বৈঠকেই দলীয় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে কড়া হুঁশিয়ারি দেন অভিষেক। তিনি সাফ বলেন, “একুশে জুলাইয়ের সমাবেশের জন্য ১০ পয়সাও চাঁদা নেওয়া যাবে না। যদি কেউ দলের নির্দেশ অমান্য করে চাঁদা আদায় করে, তবে তার বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাকে করা হবে বহিষ্কার।” উল্লেখ্য, এর আগে হলদিয়ায় শ্রমিক সমাবেশে যোগ দিয়েও জোর করে টাকা আদায়ের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন অভিষেক। তৃণমূল (TMC) করলে এসব যে করা যাবে না, কড়া ভাষায় সেকথা জানিয়ে দিয়েছিলেন তিনি।

প্রতি বছর একুশে জুলাইয়ের সমাবেশে রেকর্ড ভিড় হয়। এবারও তার ব্যতিক্রম হবে না বলেই আশাবাদী দলীয় নেতৃত্ব। তবে এদিনের প্রস্তুতি বৈঠক শেষে সাংবাদিক বৈঠকে পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee) জানান, এবার একুশে জুলাইয়ের সমাবেশে উত্তরবঙ্গ ও জঙ্গলমহলের বাসিন্দারা যাতে বেশি করে অংশ নিতে পারেন, সেদিকে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হবে। কারণ, ধর্মতলার সমাবেশে এসে দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বার্তা শোনার ইচ্ছা থাকে উত্তরের নেতা-কর্মীদের। তবে ওইদিন উত্তরবঙ্গ থেকে কলকাতায় আসার জন্য ঠিক কী বন্দোবস্ত করা হবে, সে বিষয়ে এখনও স্পষ্টভাবে কিছু জানা যায়নি।

[আরও পড়ুন: অঙ্গনওয়াড়িতে চাকরির নামে আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ, কাঠগড়ায় তৃণমূল বিধায়ক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে