BREAKING NEWS

২২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ৯ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

প্রেসিডেন্সির প্রাক্তনীদের সঙ্গে আড্ডা, গড়িয়াহাটে কেনাকাটা করলেন নোবেলজয়ী অভিজিৎ

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: October 23, 2019 2:54 pm|    Updated: October 23, 2019 3:29 pm

Nobel Laureate Abhijit Vinayak Banerjee opts out for shopping

গৌতম ব্রহ্ম: বলেছিলেন গৃহবন্দি হয়ে থাকবেন। বেরবেন না কোথাও। মাত্র অল্প সময়ের জন্য বাড়িতে এসেছেন। তাই মায়ের সঙ্গেই সময় কাটাবেন। কিন্তু হঠাৎ করে সিদ্ধান্ত বদল। বুধবার প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তনীদের শুভেচ্ছা গ্রহণ করে নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায় বেরিয়ে পড়েন। বালিগঞ্জের সপ্তপর্ণী আবাসন থেকে বেরিয়ে তিনি সোজা চলে যান হিন্দুস্থান পার্কে। সেখানে বাংলার আর এক নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেনের প্রাক্তন স্ত্রী নবনীতা দেবসেনের সঙ্গে দেখা করেন। বেশ কিছুক্ষণ সময় কাটান সেখানে। তারপর সেখান থেকে তিনি ঢুকে পড়েন গড়িয়াহাটের একটি ভারত বিখ্যাত প্রসিদ্ধ পোশাক বিপণিতে। ঘুরে-দেখে পরিবারের জন্য কেনাকাটা সারেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ।

অভিজিৎবাবুর ভাই অনিরুদ্ধ বন্দ্যোপাধ্যায় আগেই জানিয়েছিলেন, আমাদের মধ্যে দেখা হলেই উপহার দেওয়ার একটা প্রথা আছে। আমরা একে-অপরকে উপহার দিই। কারণ আমাদের মধ্যে খুব কম দেখা হয়। ফলে মনে করা হচ্ছে অভিজিৎবাবু দেশ ছাড়ার আগে কেনাকাটার পর্বটা সেরেছেন। এদিন, নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ যেখানেই গিয়েছেন, তার পিছু পিছু ছুটল পুলিশের কনভয়। তাঁর স্পষ্ট নির্দেশ ছিল, সংবাদমাধ্যমের লোক যেন কোনওভাবে বিরক্ত না করে। তাঁর ইচ্ছের মর্যাদা দিতেই সারাক্ষণ ঘিরে ছিলেন পুলিশকর্মীরা। তিনি পুলিশকে বলেছিলেন, আমার নিরাপত্তার বিষয়টি দেখতে হবে না। প্রেসের লোকজন যেন বিরক্ত না করে।

[আরও পড়ুন: নোবেলজয়ী অভিজিৎকে এবার সাম্মানিক ডিএসসি দিতে চায় কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়]

এদিন, প্রেসিডেন্সির প্রাক্তনীরা আসেন অভিজিৎবাবুর বাড়িতে। তাঁকে প্রাক্তনী সংসদের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা দেওয়ার বিষয়টি জানানো হয়। প্রাক্তনী সংসদের সদস্যরা বলেছেন, নোবেলজয়ীকে অতুলচন্দ্র গুপ্ত নামাঙ্কিত পুরস্কার দেওয়া হবে। সেই পুরস্কার নেওয়ার জন্য তাঁকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। আগামী জানুয়ারি মাসে অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়কে ওই পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে প্রেসিডেন্সির প্রাক্তনী সংসদ। পুরস্কার নেওয়ার বিষয়ে সম্মতি দিয়েছেন অভিজিৎবাবু বলে জানান প্রাক্তনীরা। সদস্যরা বলেছেন, নোবেলজয়ীকে প্রেসিডেন্সির ফেলে আসা বছর একটা আড্ডার মাধ্যমে উপহার দেওয়া হবে। সেই সময়কার শিক্ষক, ছাত্র, সহপাঠী, ক্যান্টিনের কর্মীরা থাকবেন। সেদিনের দিনগুলি আড্ডায় উঠে আসবে।

নোবেলজয়ীকে সপ্তপর্ণী আবাসনের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা দেওয়ার কর্মসূচি নেওয়া হয়। তবে সময়ের উপর ভিত্তি করে সেটা মিনি সংবর্ধনা অনুষ্ঠান। এর আগে অভিজিৎবাবুর মা নির্মলা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সংবর্ধনা দেয় সপ্তপর্ণী। আবাসিকরা জানান, এবার বড় কোনও ব্যবস্থা করা হচ্ছে না। অনুরোধ করা হয়েছে মাত্র আধ ঘণ্টা সময় যদি দেন, তাহলে সংবর্ধনা সভার ব্যবস্থা করা হবে। ঘরে গিয়েও সংবর্ধনা দিয়ে আসার কথা বলা হয়েছে। পাশাপাশি, রেসিডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন বা আবাসিকদের সংগঠনের সদস্য হওয়ার জন্য আবেদন করেছেন নোবেলজয়ী। সেই সদস্যপদও তুলে দেওয়া হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে