৩০ আষাঢ়  ১৪২৬  সোমবার ১৫ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভোট মিটে গিয়েছে৷ কিন্তু রাজনৈতিক সংঘর্ষে ইতি পড়েনি৷ রাজ্যের এপ্রান্ত থেকে ওপ্রান্ত চলছে গুলি-বোমা৷ সেই তালিকায় নাম জুড়েছে বসিরহাটেরও৷ কয়েক সপ্তাহ আগেই তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ন্যাজাট৷ প্রাণহানি হয়েছে তিনজনের৷

[ আরও পড়ুন: এবার টলিউডেও পা রাখল বিজেপি, পথচলা শুরু বঙ্গীয় চলচ্চিত্র পরিষদের]

ওই ঘটনার ঘিরে স্বভাবতই প্রশ্ন উঠেছিল বসিরহাট থেকে সদ্য নির্বাচিত তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান কোথায়? তখন অবশ্য তৃণমূল সাংসদ বিয়ে নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন৷ তুরস্কে ডেস্টিনেশন ওয়েডিং সেরে রবিবারই এ শহরে পা রাখলেন নববধূ৷ সেখানেই বসিরহাটের ন্যাজাটে সংঘর্ষের প্রসঙ্গে মুখ খুললেন অভিনেত্রী-সাংসদ৷

গোলাপি রংয়ের শাড়ি, হাত ভরতি মেহেন্দি, চূড়া, মাথাভরতি সিঁদুর – এক্কেবারে নববধূর বেশে দমদম বিমানবন্দরে দেখা দেন নুসরত৷ সঙ্গে স্বামী নিখিল জৈন৷ বিমানবন্দরে নবদম্পতিকে স্বাগত জানান তাঁদের আত্মীয়রা৷ সেখানে ঘনিষ্ঠ বন্ধুবান্ধবদের আবদারে একপ্রস্থ মালাবদলও সারেন নুসরত-নিখিল৷

[ আরও পড়ুন: আস্তাকুঁড়ের মাঝে পড়ে শিশু, ভাইরাল ভিডিও দেখে দত্তক নিচ্ছেন বলিউড পরিচালক]

NUSRAT-JAHAN

[ আরও পড়ুন: কথায়, সুরে ‘কাটমানি’ প্রতিবাদ তৃণমূল ঘনিষ্ঠ নচিকেতার]

তারকা দম্পতি বিমানবন্দরে আসবেন আর ভিড় জমবে না তা তো হতেই পারে না৷ অনুরাগীদের পাশাপাশি ভিড় জমিয়েছিলেন সাংবাদিকরাও৷ সেখানে বসিরহাটের ন্যাজাট নিয়ে প্রশ্ন করা হয় তাঁকে৷ তিনি বলেন, ‘‘সব কিছু নিয়ন্ত্রণে। দলের লোকজন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রেখেছেন। প্রশাসনের সঙ্গে আমি যোগাযোগ রেখেছি৷ সব কিছু নিয়ন্ত্রণ করেছি।’’

উল্লেখ্য, অশান্তির সময়ে বিয়ের জন্য তুরস্কের বোদরুমে চলে গিয়েছিলেন নুসরত৷ ১৯ জুন বুধবার রীতি মেনে বিয়ে সেরেছেন নুসরত ও নিখিল জৈন। এখন থেকে তিনি নিখিল ঘরনি। তবে আইনি মতে বিয়েটা অবশ্য হবে এদেশেই৷ ডেস্টিনেশন ওয়েডিংয়ে আমন্ত্রিতদের অনেকের পক্ষেই নুসরত-নিখিলের বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকা সম্ভব হয়নি। তাই ৪ জুলাই কলকাতাতেই রাখা হয়েছে রিসেপশন পার্টি। বোঝাই যাচ্ছে, রাজনীতির মাঠে নামলেও আপাতত ব্যক্তিগত জীবনেই বেশি মনোযোগী বসিরহাটের তারকা সাংসদ৷ 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং