BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সোনার মতোই গাড়ির পায়ে প্যানকার্ডের বেড়ি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 30, 2016 3:05 pm|    Updated: August 30, 2016 3:05 pm

An Images

তরুণকান্তি দাস: সোনার পর আয়করের নজরে গাড়ি বাজার৷ এবার শুধু গাড়ি কেনার সময় নয়, তাবাহারি করে সাজাতে গেলেও বিলে প্যান কার্ড নম্বর উল্লেখ বাধ্যতামূলক৷ এখানেই শেষ নয়, পুরনো গাড়ি কেনা বা বিক্রির সময়ও একই পদ্ধতি নিতে হবে৷ এবং নগদে কোনও কেনাকাটা হলে ক্রেতার সমস্ত তথ্য জানাতে হবে৷ না হলে শুধু ক্রেতা বা বিক্রেতা নয়, সংশ্লিষ্ট মোটরডিলারকেও শাস্তি পেতে হবে৷

সব চেয়ে বড় কথা প্যান কার্ডে যদি ভুল উল্লেখ থাকে তবে তার দায় নিতে হবে বিক্রেতাকেই৷ দেখা গিয়েছে, এক ব্যক্তি একাধিক গাড়ি কিনেছেন৷ কখনও বাড়ির কাজের লোক, রাঁধুনি বা সামান্য কর্মচারীর নামে দামি গাড়ি কিনে চড়ছেন অনেক ব্যবসায়ী৷ যেহেতু রাঁধুনি বা এই ধরনের কারও সাধারণত প্যান কার্ড থাকে না, তাই সেই সুযোগ কাজে লাগাচ্ছেন অনেকেই৷ এবার সেই পথও বন্ধ করে দিতে পদক্ষেপ নিল আয়কর দফতর৷ আয়কর দফতরের ডিরেক্টর (ইন্টেলিজেন্স অ্যান্ড ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন) এস এস রানা এবং অতিরিক্ত ডিরেক্টর প্রিয়ব্রত প্রামাণিক জানান, “আমরা উচ্চ আয়ের লোকজনের কালো টাকার লেনদেন প্রথমে বন্ধ করতে চাইছি তাই এই পদক্ষেপ৷ এ জন্য গাড়ি ব্যবসায়ীদেরও সতর্ক থাকতে হবে৷ না হলে তাঁদের শাস্তি পেতে হবে৷”

কী ধরনের শাস্তি হবে? আর্থিক জরিমানার পাশাপাশি দফতরের ক্ষমতাবলে তিনমাসের জেল হবে৷ তারপর ফৌজদারি মামলা চলবে৷ অনেক ব্যবসায়ী বিক্রি বাড়াতে জেনেবুঝে এই ধরনের লেনদেনে উৎসাহ দেন বলে আয়কর দফতরের অভিযোগ৷ কিন্তু প্যান কার্ড নেই এমন কোনও ব্যক্তি গাড়ি কিনতে পারবেন না? প্রিয়ব্রতবাবু বলেন, “অবশ্যই পারবেন৷ সে জন্য একটি ফর্ম পূরণ করতে হবে৷ সাহায্য নিতে হবে ৬১-এ ফর্ম-এর৷ একটি অর্থবর্ষে দুই লাখের বেশি নগদ লেনদেন করলেই এই ফর্ম জমা দিতে হবে৷”

রাজ্যে নতুন গাড়ির পাশাপাশি পুরনো গাড়ি কেনাবেচার বাজার দ্রুত বাড়ছে৷ সেদিকে তাকিয়ে নজরদারি বাড়ানো হচ্ছে৷ প্রিয়ব্রতবাবু বলেন, “গাড়ি কিনতে গেলে কোনওভাবেই প্যান কার্ড ছাড়া লেনদেন চলবে না৷ নগদে যত কম অর্থই ক্রেতা জমা করুন না কেন, প্যান নম্বর উল্লেখ করতেই হবে৷ ভুল প্যান কার্ড দিয়ে বিভ্রান্ত করার কৌশল নিচ্ছেন অনেকেই৷ সেই পথ বন্ধে উদ্যোগী হতে হবে বিক্রেতাকে৷ আমাদের ওয়েবসাইটে গিয়ে ক্রেতার নাম ও জন্মতারিখ উল্লেখ করলেই আসল প্যান নাম্বার বেরিয়ে আসবে৷ তাই ভুল প্যানের উল্লেখ থাকলে ধরে নিতে হবে তা ইচ্ছাকৃত৷ শাস্তি পেতে হবে বিক্রেতা বা গাড়ির ডিলারকে৷”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement