BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

NGO’কে সাহায্য করতেই মহিলা মোর্চার হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে শাড়ির ছবি পাঠিয়েছি: অগ্নিমিত্রা

Published by: Sulaya Singha |    Posted: August 8, 2020 11:19 pm|    Updated: August 8, 2020 11:33 pm

An Images

ফাইল ছবি।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিজেপির মহিলা মোর্চার হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের বেশ কিছু শাড়ির ছবি ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়। আর তারপরই দানা বাঁধে বিতর্ক। তবে কি রাজনীতির মঞ্চে শাড়ির বিজ্ঞাপন করছেন গেরুয়া শিবিরের মহিলা মোর্চার সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পল? এমন অভিযোগকে সম্পূর্ণ উড়িয়ে দিলেন খ্যাতনামা ফ্যাশন ডিজাইনার। জানিয়ে দিলেন, একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাকে সাহায্যের জন্যই শাড়ির ছবিগুলি পোস্ট করেছিলেন। বিজ্ঞাপন বা ব্যবসার খাতিরে নয়।

তাঁর তৈরি পোশাকে সিনেজগৎ থেকে ক্রীড়া জগতের ব্যক্তিত্বরা রীতিমতো ব়্যাম্প মাতিয়ে এসেছেন। আজও তাঁর ডিজাইন করা একটি পোশাক গায়ে চাপাতে অনেকখানি গ্যাঁটের কড়ি খরচ করতে হয়। কিন্তু রাজনীতিতে পা দেওয়ার পরই নিজের পেশাকে দূরে সরিয়ে বঙ্গবিজেপির মহিলা মোর্চার দায়িত্ব কাঁধে তুলে নেন তিনি। সেই তিনিই কিনা মাত্র ২৮০ টাকার শাড়ি বিক্রি করতে হোয়াটসঅ্যাপে ছবি পাঠাচ্ছেন? এমনটা যেন মেনে নেওয়াই কঠিন! বিষয়টা স্পষ্ট করতে যোগাযোগ করা হয় অগ্নিমিত্রা পলের সঙ্গে। ফোনের ওপার থেকে তিনি জানিয়ে দেন তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ একেবারেই ভিত্তিহীন।

[আরও পড়ুন: করোনায় আক্রান্ত মেডিক্যাল কলেজের চিকিৎসককে হেনস্তা, পাড়া ছাড়া করার হুমকি পড়শিদের]

তাঁর কথায়, “২৩ বছরের কেরিয়ারে বহু পোশাক ডিজাইন করেছি। আমার তৈরি একটা রুমালেরও হয়তো ওর চেয়ে দাম বেশি। তাই সামান্য ২৮০ টাকা দিয়ে শাড়ি বিক্রির বিজ্ঞাপনের আমার প্রয়োজন নেই।” এরপরই জুড়ে দেন, “আসলে কলকাতার একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা করোনা আবহে মাস্ক তৈরি করে অর্থ উপার্জন করছে। তাই আমাকে দলের তরফেই বলা হয় যদি শাড়ি তৈরির ক্ষেত্রে আমি তাদের ডিজাইন দিয়ে সাহায্য করতে পারি। সেক্ষেত্রে যেমন দলের একটা ইউনিফর্মও তৈরি হবে, তেমনই ওই সংস্থার হাতেও কিছু অর্থ যাবে।”

অগ্নিমিত্রা এও জানান, যে ওই সংস্থাটি তাঁকে বেশ কিছু শাড়ি পাঠিয়েছিল। তারই ছবি তিনি পাঠিয়েছিলেন গ্রুপে। এমনকী যাঁরা কিনতে আগ্রহী, সেগুলো কোথা থেকে কেনা যাবে, তাও জানিয়ে দিয়েছিলেন গ্রুপেই। এর সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে শাড়ির বিজ্ঞাপনের কোনও সম্পর্ক নেই। এমনকী তিনি এও বলেন, যে বা যারা তাঁর বিরুদ্ধে অবান্তর অভিযোগ তুলে বিতর্ক তৈরির চেষ্টা করেছেন, তাদের নাম পরিচয় সামনে আনা হোক। তিনি যে দলীয় কাজের সঙ্গে নিজের পেশাকে জুড়ে দেননি, তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন খ্যাতনামা ফ্যাশন ডিজাইনার।

[আরও পড়ুন: করোনা কাঁটা, বাবার দেহদানের শেষ ইচ্ছাপূরণ করতে না পারায় আক্ষেপ শ্যামল কন্যা উষসীর]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement