২৯ ভাদ্র  ১৪২৬  সোমবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

অর্ণব আইচ: এক কথায় ‘সাইকো’। ফাঁকা রাস্তায় বাইক চালিয়ে আসত ছেলেটি। চলন্ত বাইক থেকে পথচারী মহিলাদের শ্লীলতাহানি করে পালাত সে। একের পর এক অভিযোগ দায়ের হচ্ছিল লেক থানা এলাকায়। সিসিটিভির ফুটেজেও ধরা পড়েনি বাইকের নম্বর। শুধু ফুটেজে দেখা গিয়েছিল, বাইকে জলের জ্যারিকেন নিয়ে যাচ্ছে সে। সেই সূত্র ধরে তদন্ত চালিয়েই লেক গার্ডেন্সের বাসিন্দা বিকাশকুমার গুপ্তা (৩০) নামে ওই যুবককে গ্রেপ্তার করল লেক থানার পুলিশ। পেশায় সে জল সরবরাহকারী।

[ আরও পড়ুন: পুজো মণ্ডপ তৈরির জন্য কাটা হল গাছ! বিতর্কে টালা পার্ক প্রত্যয় ]

লেকের ঘটনাটির অভিযুক্ত এক ধরনের ‘সাইকো’ বলেই ধারণা পুলিশের। কখনও সকাল, কখনও সন্ধ্যায় লেক এলাকার রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাওয়া মহিলারাই হয়ে উঠত বিকাশ নামে ওই যুবকের ‘টার্গেট’। চলন্ত বাইক থেকে শ্লীলতাহানির প্রথম ঘটনাটি ঘটায় গত এপ্রিলে। তখনই লেক থানায় অভিযোগ দায়ের হয়। এর পর দু’টি অভিযোগ দায়ের হয় মে ও জুন মাসে। যদিও পুলিশের ধারণা, এর মধ্যে আরও কয়েকজন মহিলার শ্লীলতাহানি করে সে। কিন্তু তাঁরা লজ্জায় অভিযোগ দায়ের করেননি। পুলিশ গুরুত্ব দিয়েই তদন্ত শুরু করে। বাইকের নম্বর না পেলেও সিসিটিভির ফুটেজে বাইকে জ্যারিকেন দেখে তদন্ত হয়। এলাকার জলের সরবরাহকারীদের উপর পুলিশ নজর রাখতে শুরু করে। সেই সূত্র ধরেই অভিযুক্ত গ্রেপ্তার হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

[ আরও পড়ুন: এবার ভাঙন তৃণমূলের কর্মচারী ফেডারেশনে, মুকুলে ভরসা রাজ্য নেতার ]

এদিকে, ১০০ ডায়ালে ফোন করে ফের সম্ভ্রম বাঁচল দক্ষিণ কলকাতার নিউ আলিপুরের অভিজাত আবাসনের বাসিন্দা এক মহিলার। এই ঘটনায় ওই আবাসনের নিরাপত্তারক্ষী সুরেশ সিংকে পাঁচ মিনিটের মধ্যেই গ্রেপ্তার করে নিউ আলিপুর থানার পুলিশ। তিনি লালবাজারে ফোন করে জানান, ওই নিরাপত্তারক্ষী আবাসনের মধ্যে একা পেয়ে তাঁর সম্ভ্রমহানি করছে। তিনি সঙ্গে সঙ্গে সঙ্গেই ফোন করেন লালবাজারে। পুলিশ ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং