BREAKING NEWS

০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শুক্রবার ২০ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মাঝেরহাট সেতু বিপর্যয়: স্বতঃপ্রণোদিত মামলা রুজু কলকাতা পুলিশের

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: September 5, 2018 3:06 pm|    Updated: September 5, 2018 3:11 pm

Police files suo moto case in Majerhat bridge collapse

ফাইল চিত্র

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মাঝেরহাট সেতু ভেঙে পড়ার প্রায় ২৪ ঘণ্টা পর পুলিশ স্বতঃপ্রণোদিত মামলা রুজু করল কলকাতা পুলিশ৷ আজ, আলিপুর থানায় জামিন অযোগ্য ধারায় মামলাটি দায়ের করেছে কলকাতা পুলিশ৷ ভারতীয় দণ্ডবিধি ৩০৪ (গাফিলতিতে মৃত্যু), ৩০৮ (অনিচ্ছাকৃত খুন), ৪২৭ (ভাঙচুর) ও ৩৪ (একত্রে অপরাধ সংগঠিত করা) ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে৷ তবে, কোনও সংস্থা বা ব্যক্তির নামে মামলা দায়ের না হওয়ায় ‘খড়ের গাদায় সুচ’ খোঁজার উপক্রম হয়ে দাঁড়িয়েছে পুলিশের কাছে৷ এই নিয়ে বিরোধীদলের তরফেও শুরু হয়েছে কটাক্ষের বন্যা৷

[পোস্তার পর মাঝেরহাট, পরপর ব্রিজ বিপর্যয়ে দায়ের জনস্বার্থ মামলা]

পুলিশ সূত্রে খবর, দুর্ঘটনার পর পুলিশকর্মীরা উদ্ধারকাজে ব্যস্ত থাকায় মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত মামলা দায়ের করতে পারেনি পুলিশ৷ মাঝেরহাট সেতুটি নিউ আলিপুর থানা এলাকায় অবস্থিত হলেও এদিন রাতেই পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার আলিপুর থানায় মামলা দায়ের করার নির্দেশ দেন৷ কিন্তু, স্থানীয় থানাকে এড়িয়ে পড়শি থানায় মামলা রুজুর কারণ এখনও স্পষ্ট নয়৷ পুলিশ কমিশনারের নির্দেশ অনুযায়ী আজ দুপুরে আলিপুর থানায় জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে খবর৷ কিন্তু, অভিযুক্ত পক্ষের কোনও নাম উল্লেখ না থাকায় মামলার গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন পর্যবেক্ষক মহলের একাংশ৷ পুলিশ কাকে কোন যুক্তিতে, কীভাবে জেরা করবে তা মামলার গতিপ্রকৃতিতে তা স্পষ্ট নয় বলে দাবি পর্যবেক্ষক মহলের একাংশের৷ মামলায় নির্মাণকারী সংস্থার নাম বা অভিযুক্তপক্ষের নাম উল্লেখ না করে পুলিশ তদন্তের গতি ঠিক কোন পথে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাইছে? উঠছে প্রশ্ন৷

[ব্রিজ ভাঙার জের, ঘুরপথে চলছে দক্ষিণ শাখার একাধিক লোকাল ট্রেন]

সেতু বিপর্যয়ের প্রায় ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে মামলা রুজু করার পাশাপাশি চলছে উদ্ধারকাজ৷ সেতুর চাঙড়ের নিচে কেউ আটকে আছেন কী তা জানতে মঙ্গলবার রাত থেকে শুরু হয়েছে তৎপরতা৷ আজ, বুধবার ক্রেন জাতীয় বিশাল যন্ত্র আনিয়ে মোটা কংক্রিটের চাঙড় ভাঙার কাজও শুরু হয়েছে৷ ভেঙে পড়া চাঙড়ের নিচে মেট্রো রেলের নির্মাণ শ্রমিকদের দু’টি অস্থায়ী শিবির থাকায় মঙ্গলবার রাত থেকে বুধবার দিনভর যুদ্ধকালীন তৎপরতায় চলছে উদ্ধারকাজ৷ ভারতীয় সেনা, বিপর্যয় মোকাবিলা দল, পুলিশ ও স্থানীয় বাসিন্দাদের তৎপরতায় চলছে উদ্ধারকাজ৷

[ব্রিজ ভাঙার সঙ্গে মেট্রো প্রকল্পের কোনও যোগ নেই, প্রাথমিক রিপোর্টে জানাল ‘রাইটস’]

ছবি: অরিজিৎ সাহা

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে