BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বুধবার ৩০ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

একুশের মঞ্চে নয়া চমক, তৃণমূলের শহিদ দিবসে আমন্ত্রণ জানানো হবে অধ্যাপকদেরও

Published by: Paramita Paul |    Posted: July 9, 2022 3:45 pm|    Updated: July 20, 2022 4:58 pm

Professors will be invited on 21 July Shahid Dibas by TMC | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী।

স্টাফ রিপোর্টার: রাজ্যের প্রত্যেক প্রান্তে চলছে ২১ জুলাইয়ের প্রস্তুতি সভা। কোভিডের কারণে গত দু’বছর কলকাতার ধর্মতলায় ‘শহিদ দিবস’ পালন করতে পারেনি তৃণমূল কংগ্রেস (TMC)। তৃতীয়বার ক্ষমতায় আসার পর এটি হতে চলেছে দলের সর্ববৃহৎ সভা। নানা চমকের পাশাপাশি এবার শহিদ মঞ্চে দেখা যাবে অধ্যাপকদেরও। শুক্রবার তৃণমূল ভবনে শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু একথা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, “মুখ্যমন্ত্রীকে বলেছি মঞ্চে ২১ জুলাইয়ের মঞ্চে অধ্যাপকদের আমন্ত্রণ জানাতে চাই। দলের অধ্যাপক সংগঠনকে সংক্ষিপ্ত তালিকা তৈরি করতে বলেছি। সেই তালিকা মুখ্যমন্ত্রীকে দেব। আশা করছি তিনি অনুমোদন করবেন।”

বেশ কয়েক বছর কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদের (TMCP) নির্বাচন হয়নি। তৃণমূল ছাত্র পরিষদ চায় নির্বাচন হোক। এদিনই যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় তৃণমূল ছাত্র পরিষদ ইউনিট নির্বাচন দাবি করেছে। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, “মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশে আমি প্রতি শুক্রবার তৃণমূল ভবনে ছাত্র, শিক্ষক, শিক্ষাকর্মী-সহ সবার সঙ্গে কথা বলি। ছাত্র নির্বাচন নিয়েও কথা হয়েছে। আমরা চাই স্বচ্ছভাবে ছাত্র নির্বাচন হোক। সমস্ত ছাত্র সংগঠন সেই নির্বাচনে অংশ নিক। কিন্তু এখন আবার কোভিড পরিস্থিতি শুরু হয়েছে। তাই কবে ছাত্র নির্বাচন হবে তা ঠিক হয়নি।” ইউনিট থাকলেও যাদবপুর এবং প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদ দখল করতে পারেনি তৃণমূল। এবার তাদের আশা দু’টি প্রতিষ্ঠানের ছাত্র সংসদেই উড়বে ঘাসফুলের পতাকা।

[আরও পড়ুন: শিনজো আবে হত্যায় ‘অগ্নিপথের ছায়া’, তৃণমূলের মুখপত্রে খোঁচা কেন্দ্রকে]

ওয়েস্ট বেঙ্গল কলেজ অ্যান্ড ইউনিভার্সিটি প্রফেসরস অ্যাসোসিয়েশন (ওয়েবকুপা) এবং অল বেঙ্গল স্টেট গভর্নমেন্ট অ্যাসোসিয়েশন দু’টি সংগঠনই তৃণমূলপন্থী। এবার থেকে দু’টি সংগঠন একসঙ্গে কাজ করবে বলে জানিয়েছেন ব্রাত্যবাবু। তিনি বলেন, “আমাদের সরকার অধ্যাপকদের সবসময় সম্মান করে। আমাদের মধ্যে কোনও বিভাজন নেই।” ওয়েবকুপার সভাপতি কৃষ্ণকলি বসু জানান, সংগঠনের রাজ্যস্তরে কমিটি গঠনের কাজ চলছে।

কোভিড পরিস্থিতিতে কি ফের বন্ধ হয়ে যেতে পারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান? এই প্রশ্ন ঘুরছে শিক্ষা মহলে। এ প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, “এখনও উপর মহল থেকে বা স্বাস্থ্য দপ্তর থেকে এ বিষয়ে কোনও নির্দেশ আসেনি। তাই কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি। কোনও নির্দেশ এলে আমরা ভাবব।” শিক্ষকদের টিউশন করা যে আইনত দণ্ডনীয় তা এদিন আরও একবার মনে করিয়ে দেন ব্রাত্যবাবু। তিনি বলেন, টিউশন করলে শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে কী ব্যবস্থা তা জানাতে চাননি তিনি।

[আরও পড়ুন: জল্পনার অবসান, সোমবারই উদ্বোধন শিয়ালদহ মেট্রোর, জানুন কবে থেকে চালু যাত্রী পরিষেবা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে