BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

নিম্নচাপকে শক্তি যোগাচ্ছে অক্ষরেখা, বৃষ্টিস্নাত একুশের মঞ্চ

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 21, 2018 8:23 am|    Updated: August 21, 2020 12:37 pm

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে সুস্পষ্ট নিম্নচাপ। নিম্নচাপকে শক্তিশালী করতে সঙ্গে জুড়েছে একটি নিম্নচাপ অক্ষরেখাও। এই জোটের টানে সপ্তাহান্তে ভারী বৃষ্টির খাঁড়া ঝুলছে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায়। এর মধ্যেই সেজে উঠেছে একুশের মঞ্চ। গোটা রাজ্য থেকে আসতে শুরু করেছে মানুষ। এমন পরিস্থিতিতে সকাল থেকেই শুরু হয়েছে ঝিরঝিরে বৃষ্টি। বেলা বাড়লে তা আরও বাড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

[শহিদদের শ্রদ্ধা জানাতে বর্ধমান থেকে হেঁটে একুশের মঞ্চে ২৫ তৃণমূল কর্মী]

আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে জানানো হয়েছে, বাংলা ও ওড়িশা উপকূলে এই নিম্নচাপের অবস্থান। রাজস্থান থেকে মৌসুমী অক্ষরেখা এসে নিম্নচাপে মিশেছে। এর জেরেই রবিবার পর্যন্ত বিক্ষিপ্ত থেকে ভারী বৃষ্টি হবে রাজ্যজুড়ে। আজ, শনিবার ২১ জুলাই দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির সতর্কতা জারি করা হয়েছে। মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা কলকাতা, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি ও ঝাড়গ্রামে। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা কলকাতা, নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, বাঁকুড়া, পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া ও পশ্চিম মেদিনীপুরে। বাদ যাবে না কলকাতাও। এখানেও বিক্ষিপ্তভাবে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। শুক্রবার আলিপুর হাওয়া অফিসের গণেশকুমার দাস জানিয়েছেন, ২২ জুলাই পর্যন্ত মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। যাঁরা সমুদ্রে গিয়েছেন, তাঁদেরও ফিরে আসতে বলা হয়েছে। বৃষ্টির পূর্বাভাস উত্তরের পাঁচ জেলায়।

[মঞ্চ ভেঙে পড়বে না তো? মোদির সভায় দুর্ঘটনার জেরে প্রশ্ন ‘সাবধানী’ মমতার]

গত ক’দিন গরমে হাঁসফাঁস অবস্থা কলকাতা-সহ রাজ্যের বিভিন্ন জেলার বাসিন্দাদের। নিম্নচাপের পূর্বভাসে স্বভাবতঃই স্বস্তির আবহ। এদিকে নিম্নচাপের ঠেলায় এদিন সকাল থেকেই খেপে খেপে বৃষ্টি হয়েছে মহানগর-সহ আশপাশে। শনিবার থেকে বৃষ্টির পরিমাণ আরও বাড়ার সম্ভাবনার কথা আগেই জানিয়েছিলেন আবহাওয়াবিদরা। জুলাই মাসের শুরু থেকেই কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলা সেরকম বৃষ্টির মুখ দেখেনি শহর। ফলে বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ বেড়ে গিয়ে অস্বস্তিকর পরিবেশ তৈরি হয়। এমনকী, বর্ষার কালো মেঘ সরে গিয়ে পেঁজা তুলোর মতো শরতের আকাশ উঁকি দিচ্ছিল। কিন্তু নতুন নিম্নচাপ বর্ষাকে ফের ছন্দে ফিরিয়ে আনবে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। 

[বর্ধমানে দামোদরে স্নানে গিয়ে ডুবে মৃত ২, সঙ্গীদের ভূমিকা নিয়ে সন্দেহ]

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement