BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২৯ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

শোভনকে আইনি নোটিস রত্নার, সাতদিনের মধ্যে জবাব তলব

Published by: Sayani Sen |    Posted: November 22, 2018 2:57 pm|    Updated: November 22, 2018 2:57 pm

Ratna notice to Sovan Chatterjee

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্বামী-স্ত্রীর তরজায় ফুটছে মহানগর৷ শোভন চট্টোপাধ্যায় এবং তাঁর স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়ের বিবাদ নিয়ে সর্বত্র চলছে আলোচনা৷ দিন যত এগোচ্ছে, ততই জটিল হচ্ছে সমীকরণ৷ কেকে বিষ মিশিয়ে প্রাণহানির চেষ্টার অভিযোগে সরব হয়েছিলেন শোভন৷ তারই প্রতিবাদে স্বামীর বিরুদ্ধে আইনের দ্বারস্থ রত্না৷ সাতদিনের মধ্যে প্রকাশ্যে শোভন চট্টোপাধ্যায়কে ক্ষমা চাইতে হবে বলেই নোটিসে উল্লেখ করেছেন রত্নার আইনজীবী৷ 

[বৈশাখীকে খুনের চেষ্টা করেছিলেন রত্না, বিস্ফোরক অভিযোগ শোভনের]

২১ বছরের দাম্পত্য সম্পর্ক শোভন-রত্নার৷ সেই সম্পর্কে ছেদ পড়েছে গত বছরই৷ সম্পর্কে ভাঙনের নেপথ্যে বান্ধবী বৈশাখিকেই বারবার দায়ী করেছিলেন রত্না৷ বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কের অভিযোগে সরব হয়েছেন শোভন ঘরনি৷ একাধিকবার সেই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়৷ তাঁর দাবি, নিছক বন্ধুত্বের সম্পর্ককেই অন্য রূপ দেওয়ার চেষ্টা করেছেন রত্না৷ দাম্পত্য সম্পর্কের টানাপোড়েনের জল গড়ায় আদালতে৷ বিবাহ বিচ্ছেদের মামলাও চলছে শোভন-রত্নার৷ ইতিমধ্যেই মন্ত্রিত্ব ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেন শোভন৷ তারপর থেকেই বারবার সামনে আসছে ‘বিপদের বন্ধু’ বৈশাখির নাম৷ রত্নার দাবি, বৈশাখির জন্য দলনেত্রীর সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি হয় তাঁর৷ তার জেরেই মন্ত্রিত্ব এমনকী মেয়র পদ থেকেও ইস্তফা দিতে বাধ্য হয়েছেন শোভন৷ বুধবার দিনভর এই আলোচনাতেই সরগরম ছিল রাজ্য-রাজনীতি৷ সন্ধেয় নীরবতা ভেঙে বন্ধুর পাশেই দাঁড়ান তিনি৷

[ইস্তফা শোভনের, কলকাতার নয়া মেয়র হচ্ছেন ফিরহাদ হাকিম]

রত্না বিনা কারণে বারবারই বৈশাখির বিরুদ্ধে মিথ্যে দোষারোপ করেছেন, কথায় কথায় সেটিই প্রমাণ করার চেষ্টা করেন শোভন৷ শুধু রত্নাই নন, অভিযোগের তিরে কোণঠাসা করার চেষ্টা করেন নিজের সন্তানদের৷ ছেলে সপ্তর্ষি বাবার জন্মদিনে বিষ মেশানো কেক নিয়ে গিয়ে খুনের চেষ্টা করে বলেও বিস্ফোরক অভিযোগ করেন শোভন৷ বৈশাখি ও তাঁর মেয়েকে রত্না খুনের চেষ্টা করেছেন বলেও অভিযোগ করেন কলকাতা পুরসভার সদ্য প্রাক্তন মেয়র৷  বিবাহবিচ্ছেদের কারণ হিসাবে তৃতীয় ব্যক্তির নামও সামনে আনেন তিনি৷ রত্নার সঙ্গে পারিবারিক বন্ধু অভিজিত গঙ্গোপাধ্যায়ের সম্পর্ক রয়েছে বলে অভিযোগ করেন শোভন৷ ওই অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বলেই দাবি করেন রত্না৷ প্রাণহানির চেষ্টা-সহ একাধিক অভিযোগের বিরোধিতায় আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন শোভন ঘরনি৷ বৃহস্পতিবার সকালেই আইনি নোটিস পাঠানোর তোড়জোড় শুরু করে দেন রত্না৷ দুপুরের মধ্যেই রত্নার আইনজীবী শোভনকে আইনি নোটিস পাঠান৷ হয় অভিযোগ প্রমাণ করতে হবে নইলে আগামী সাতদিনের মধ্যে শোভনকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে বলেই নোটিসে উল্লেখ করা হয়েছে৷ 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে