BREAKING NEWS

১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ১ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

রোজভ্যালি কাণ্ডে সিবিআইয়ের জেরার মুখে সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 3, 2017 11:04 am|    Updated: January 3, 2017 11:04 am

Rose valley scam: Sudip Bandyopadhyay at CGO complex

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তৃণমূল সাংসদ তাপস পালের পর রোজভ্যালি কাণ্ডে সিবিআইয়ের জেরার মুখে পড়লেন সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়৷ মঙ্গলবার সকালে সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে হাজির হন তিনি৷

চিট ফান্ড কাণ্ডের তদন্তে নেমে বেশ কিছু প্রশ্নের উত্তর পেতে সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে অনেক আগেই তলব করেছিল সিবিআই৷ কিন্তু সিবিআইয়ের থেকে ১৮ জানুয়ারি পর্যন্ত সময় চেয়ে নিয়েছিলেন সুদীপ৷ তবে তদন্তের স্বার্থে এত সময় দিতে রাজি হননি গোয়েন্দারা৷ এমনকী বলা হয়েছিল, সাংসদ যদি সিবিআই দপ্তরে না আসেন, সেক্ষেত্রে প্রয়োজনে তাঁর বাড়িতে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে৷ জানুয়ারির ২-৪ তারিখের মধ্যে সিবিআই দপ্তরে হাজিরা দেওয়ার কথা ছিল তাঁর৷ সেই মতোই এদিন সকাল ১০.৫৫ নাগাদ তিনি পৌঁছে যান সল্টলেকে৷ তাঁকে কেন তলব করা হয়েছে, তা জানতেই সিবিআই দপ্তরে এসেছেন বলে জানান সুদীপ৷

উল্লেখ্য, রোজভ্যালি কাণ্ডে তাপস পালকে গ্রেপ্তার করার পরই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছিলেন তৃণমূল নেতৃ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তিনি জানান, নোট বাতিল ইস্যুতে এ রাজ্য কেন্দ্রের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছে বলেই তাঁর দলের একের পর এক সাংসদকে সিবিআইয়ের জেরার মুখে পড়তে হচ্ছে৷ মমতা জানিয়ে ছিলেন, সুদীপকে তলব করা হলে বীরের মতোই সিজিও কমপ্লেক্সে যাবেন তিনি৷ কারণ তিনি কোনও দোষ করেননি৷

সিবিআইয়ের পুরো বিষয়টি মনিটরিং করছে দিল্লির বিশেষ টিম৷ সেখান থেকেই পাঠানো প্রশ্নমালার সামনে বসতে হচ্ছে সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে৷ এই প্রশ্নগুলির উত্তরের উপর দাঁড়িয়ে দ্রুত সিদ্ধান্ত কার্যকর করবে দিল্লি৷ যাদের হাতে এই তদন্তের লাটাই৷

এদিকে সোমবার তাপস পালকে জেরার সিংহভাগ জুড়ে ছিল তৃণমূল সাংসদের বিষয়৷ সুদীপকে তিনি কখনও রোজভ্যালি দপ্তরে দেখেছেন কি না, অর্থনৈতিক লেনদেনে বা ব্যবসা বাড়াতে যুক্ত ছিলেন কি না তাও জানতে চাওয়া হয়৷ জেরার সময় তাপস পাল তাঁর সংসদীয় দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে বিশেষ কোনও তথ্য দেননি৷ বরং বারবার বলেছেন, “আমি তেমন কিছু জানি না৷”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে