BREAKING NEWS

১৩ ফাল্গুন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

নেতাজির অনুষ্ঠানে ‘জয় শ্রীরাম’ কেন? ‘অসন্তুষ্ট’ বিজেপির শীর্ষ নেতাদের একাংশ

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: January 26, 2021 6:16 pm|    Updated: January 26, 2021 6:39 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নেতাজির (Netaji) জন্মজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি তোলা নিয়ে এবার বিজেপির (BJP) অন্দরেই অসন্তোষ। সূত্রের খবর, শনিবার ভিক্টোরিয়ায় যা ঘটেছে, তা মোটেই ভাল চোখে দেখছে না বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের একাংশ। তাঁরা মনে করছে, নেতাজির জন্মদিবসের ওই সরকারি অনুষ্ঠানে যা ঘটেছে, সেটা মোটেও কাঙ্ক্ষিত নয়। ভোটের মুখে নেতাজির আবেগ নিয়ে কোনওরকম বিতর্কে না জড়ানোই দলের পক্ষে মঙ্গল।

গত শনিবার নেতাজির জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে ভিক্টোরিয়ায় এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করে কেন্দ্র। রাজনৈতিক মতানৈক্য ভুলে একসঙ্গে অনুষ্ঠানে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতেও তাল কাটে। মুখ্যমন্ত্রী (CM Mamata Banerjee) মঞ্চে বক্তব্য রাখতে ওঠার সঙ্গে সঙ্গেই উপস্থিত দর্শকদের একাংশ ‘জয় শ্রীরাম’ (Jai Sri Ram) স্লোগান দিতে শুরু করেন। তাতেই ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী তাঁদের উদ্দেশে বার্তা দিয়ে মঞ্চ থেকে নেমে আসেন। নেতাজি সম্পর্কিত কোনও ভাষণই রাখেননি। মমতা দাবি করেন, তাঁকে ‘ডেকে এনে অপমান’ করা হয়েছে। আর এত বড় অনুষ্ঠানে এভাবে তাল কেটে যাওয়া নিয়ে নিমেষের মধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে রাজনৈতিক চাপানউতোর।

[আরও পড়ুন: সংঘাত ভুলে রাজভবনের চা চক্রে যোগ মুখ্যমন্ত্রীর, রাজ্যপালের সঙ্গে কথা]

প্রকাশ্যে একাধিক বিজেপি নেতা ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগানের সমর্থনেই মুখ খুলেছেন। কৈলাস বিজয়বর্গীয়, সায়ন্তন বসুরা মনে করছেন, “জয় শ্রীরাম স্লোগান মুখ্যমন্ত্রী সহ্যই করতে পারছেন না। যে স্লোগানই উঠুক না কেন, মুখ্যমন্ত্রীর ভাষণ না দিয়ে মঞ্চ থেকে নেমে যাওয়া কাম্য নয়।” কিন্তু প্রকাশ্যে মমতার পদক্ষেপের বিরোধিতা করলেও দলের অন্দরে এ বিষয়ে অস্বস্তিতে পড়তে হয়েছে বঙ্গ বিজেপি নেতাদের। সূত্রের খবর, বিজেপির তথাকথিত উদারপন্থী নেতারা তো বটেই, কেন্দ্রীয় নেতাদের একাংশও এ বিষয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। দিল্লির তরফে নাকি পুরো ঘটনার বিস্তারিত জানতেও চাওয়া হয়েছে। এমনকী, এই ঘটনায় আরএসএসও (RSS) নাকি অসন্তুষ্ট। নিজেদের অসন্তোষের কথা সংঘ জানিয়েছে দলের শীর্ষ নেতাদের। যদিও, প্রকাশ্যে কোনও কিছুই স্বীকার করতে রাজি নন বিজেপির রাজ্য নেতারা। দলের রাজ্য বিজেপির সহ -সভাপতি প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায় এই অস্বস্তির তত্ত্ব অস্বীকার করে দাবি করেছেন, কেন্দ্রীয় নেতারা এ নিয়ে ক্ষোভপ্রকাশ করেছেন বলে আমার জানা নেই।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement