BREAKING NEWS

০৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

৭০ তম সাধারণতন্ত্র দিবসে শহরে ‘গোলাকৃতি’ নিরাপত্তার বন্দোবস্ত

Published by: Utsab Roy Chowdhury |    Posted: January 26, 2019 8:34 am|    Updated: January 26, 2019 10:26 am

Security tighten in Kolkata before R-Day

সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়: সাধারণতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজের জন্য রেড রোডকে এবার প্রায় তিন কিলোমিটার ব্যাসার্ধের ‘গোলাকৃতি’ পুলিশি নিরাপত্তা ব্যবস্থায় ঘিরে ফেলা হচ্ছে। আজ, শনিবার সকাল থেকেই এই বিশেষ ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা রেড রোডে বলবৎ করছেন লালবাজারের পুলিশ কর্তারা। রেড রোডে এবারের এই  ‘গোলাকৃতি’ কঠোর নিরাপত্তায় থাকছেন কলকাতার প্রায় পাঁচ হাজার পুলিশকর্মী। পাশাপাশি, কড়া নজরদারিতে থাকছেন লালবাজারের সাদা পোশাকের গোয়েন্দারাও। শুধু তাই নয়, কুচকাওয়াজ চলাকালীন আকাশপথ থেকেও রেড রোডের উপর কড়া নজরদারি চালাচ্ছে লালবাজারের আকাশযান ‘দুর্দান্ত’-সহ ছ’টি ড্রোন।

পুলিশি নিরাপত্তা ব্যবস্থার শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি দেখতে শুক্রবার বিকেলে রোড রোডে যান কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার-সহ অন্য কর্তারা। প্রস্তুতি খতিয়ে দেখে লালবাজারে ফিরে তিনি অন্য পুলিশ কর্তাদের ডেকে ফের সাধারণতন্ত্র দিবসের নিরাপত্তা নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসেন। লালবাজারের এক পুলিশ কর্তা জানিয়েছেন, “এবার রেড রোডে আমরা প্রায় তিন কিলোমিটার ব্যাসার্ধের গোলাকৃতি নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখছি। রোড রোডকে মাঝখানে রেখে খিদিরপুর থেকে শুরু করে এজেসি বোস রোড হয়ে মেয়ো রোড, ডাফরিন রোড, রাজভবন, বাবুঘাট, আউট্রাম ঘাট পর্যন্ত গোলাকৃতি এই পুলিশি নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকছে। সব মিলিয়ে এই ব্যবস্থার মধ্যে থাকছেন প্রায় পাঁচ হাজার পুলিশকর্মী। পাশাপাশি, রাস্তায় থাকছেন ট্রাফিক পুলিশের কর্মীরাও। আজ, শনিবার সকাল ১০টায় রেড রোডে শুরু হচ্ছে কুচকাওয়াজ। উপস্থিত থাকবেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী-সহ বিশিষ্ট ভিভিআইপিরা। সেই কারণে সকাল ৬টার মধ্যেই রেড রোডকে ‘গোলাকৃতি’ নিরাপত্তা ব্যবস্থায় মুড়ে ফেলা হবে।

লোকসভা ভোটে ‘একলা চলো’ নীতি প্রদেশে কংগ্রেসের, সম্মতি রাহুল গান্ধীর

রেড রোডে এই ‘গোলাকৃতি’ পুলিশি নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্যে থাকছে আটটিরও বেশি ওয়াচ টাওয়ার। আছেন অতিরিক্ত নগরপাল ও যুগ্ম নগরপালরাও। শুধুমাত্র রেড রোডের নিরাপত্তা ব্যবস্থাতেই থাকছেন ২২জন ডিসি। মূলত তাঁরাই গোটা নিরাপত্তা ব্যবস্থায় নেতৃত্ব দেবেন। এছাড়াও আকাশপথে কড়া নজরদারি চালাচ্ছে কলকাতা পুলিশের ছ’টি ড্রোন। কুচকাওয়াজ চলাকালীন আকাশ থেকে রেড রোডের সমস্ত ছবিই লেন্সবন্দি করে এই ড্রোন লালবাজার কন্ট্রোলরুমে পাঠাচ্ছে। সেই ছবি দেখেই কন্ট্রোলরুম থেকে রেড রোডের পুলিশি ব্যবস্থার উপর নজর রাখবেন লালবাজারের কর্তারা। কুচকাওয়াজ চলাকালীন রেড রোডের পাশ্ববর্তী রাস্তাগুলিতে যান চলাচল বন্ধ রাখা হবে। আগাম সতর্কতা হিসাবে শুক্রবার রাত থেকেই রেড রোডের যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়।

[অফিস টাইমে ফের মেট্রো বিভ্রাট, টালিগঞ্জে ছড়াল আগুন আতঙ্ক]

রেড রোডের পাশাপাশি সাধারণতন্ত্র দিবসে যে কোনওরকম নাশকতা রুখতে সারা শহরকে মুড়ে ফেলা হয়েছে কড়া পুলিশি নিরাপত্তায়। এর জন্য আলাদা পুলিশি ব্যবস্থার আয়োজন করেছে লালবাজার। পাশাপাশি, প্রতিটি থানার পুলিশ কর্মীরাও আজ সকাল থেকেই রাস্তায় নেমে কড়া নজরদারি চালাচ্ছেন। কলকাতা পুলিশের এক গোয়েন্দা কর্তা জানান, “আগাম সতর্কতা হিসাবে শুক্রবার সকাল থেকেই শহরের বিভিন্ন হোটেল ও গেস্ট হাউসগুলিতে তল্লাশি চালানো হয়। তল্লাশি চলে বিভিন্ন শপিং মল, জনবহুল বাজার থেকে শুরু করে বাস স্ট্যান্ডগুলিতে। প্রতিটি মেট্রো স্টেশনেও কড়া পুলিশি ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। সেইসঙ্গে নজরদারি চালানো হচ্ছে জলপথেও।

ছবি: শুভাশিস রায়

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে