৪ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo দিল্লি ২০২০ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জাতীয় নাগরিকপঞ্জি এবং সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে ফের গর্জে উঠল কলকাতা। এবার শহরের রাস্তায় মিছিল করলেন একদল মহিলা। বৃহস্পতিবার রফি আহমেদ কিদওয়াই রোড থেকে মিছিল শুরু করেন তাঁরা। গান্ধীমূর্তির পাদদেশে গিয়ে শেষ হয় মিছিল। শান্তিপূর্ণ এই মিছিল থেকে বারবার একই সুর ওঠে। মিছিলকারীরা বলেন, “কোনও পরিস্থিতিতেই কাগজ দেখাবেন না।”

CAA এবং NRC’র বিরুদ্ধে গত ১৪ ডিসেম্বর থেকে শাহিনবাগের শাহিন স্কোয়‌্যারের একটি বাস স্ট‌্যান্ডে প্রতিবাদে বসেছেন স্থানীয় মহিলারা। অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে পথ। কনকনে ঠান্ডাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে হাজির আট থেকে আশি। নেই কোনও শীর্ষ নেতৃত্ব। কং হোক কিংবা আপ, কাউকেই এযাবৎকাল দেখা যায়নি সেই প্রতিবাদী জমায়েতের পুরোভাগে। তবুও মহিলাদের সেই আন্দোলনের মুখ শাহিনবাগের ‘দাদিরা’। দিল্লির এই হাড় কাঁপানো ঠান্ডাকে উপেক্ষা করে সেখানে হাজির প্রবীণারা। বয়স কারও সত্তরোর্দ্ধ, তো কেউ বা আবার আশির কোঠায়। সেই কায়দায় পার্ক সার্কাস ময়দানে জমায়েত মহিলা-শিশুদের। মঙ্গলবার রাতে প্রতিবাদীর সংখ্যা ছিল ১২ জন। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত তা বেড়েছে ২০০-এ। সেখানেই এক শিশুর আজাদি স্লোগান নজর কেড়েছে নেটিজেনদের। সেই একইভাবে বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় নাগরিকপঞ্জি এবং সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় মিছিল করলেন সংখ্যালঘু মহিলারা।

[আরও পড়ুন: আমি এলেই অসুস্থ’, জেভিয়ার্সের সমাবর্তনে CU উপাচার্যের অনুপস্থিতিতে তোপ ধনকড়ের]

বৃহস্পতিবার দুপুরে NRC, CAA বিরোধী প্ল্যাকার্ড, পোস্টারে ভরে যায় রফি কিদওয়াই রোড। সংখ্যালঘু মহিলাদের নেতৃত্বেই মূলত এগিয়ে চলে মিছিল। গান্ধীমূর্তির পাদদেশে গিয়ে শেষ হয় মিছিল। মিছিল থেকে বারবারই কোনও পরিস্থিতিতেই নিজেদের পরিচয়পত্র না দেখানোর হুঁশিয়ারি দেন মিছিলকারীরা। তাঁরা বলেন, “জাতীয় নাগরিকপঞ্জি বা NRC কিংবা সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বা CAA মানিনা। আমরা কাগজ দেখাবো না।” এদিনের মিছিল শেষ হয় গান্ধীমূর্তির পাদদেশে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং