১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সন্তানহারার সঙ্গেও প্রতারণা, আর্থিক অনুদানের ৩ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ আইনজীবীর

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: February 20, 2018 1:56 pm|    Updated: February 20, 2018 9:14 pm

Sonarpur: Son dies in accident, lawyer dupes mother of compensatio

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পথ দুর্ঘটনায় আগেই ছেলেকে হারিয়েছিলেন৷ এবার প্রতারকের খপ্পরে পড়ে আর্থিক অনুদানের টাকাটাও পেলেন না এক বৃদ্ধা৷ অভিযোগ, ওই বৃদ্ধার ভোটার কার্ড, আধার কার্ড জাল করে তিন লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করে নিয়েছে আইনজীবী৷ এমনকী, চেক ভাঙানোর জন্য অভিযোগকারীর নামে একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কে ভুয়ো অ্যাকাউন্ট খোলা হয়৷ ঘটনায় অভিযুক্ত এজেন্ট ও আইনজীবীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ওই বৃদ্ধা৷

[ভুল স্যালাইনে পঙ্গু প্রৌঢ়া, ৫ লক্ষ টাকা জরিমানা হাসপাতালের]

ঘটনাটি ঠিক? দক্ষিণ ২৪ পরগনার সোনারপুরের বাসিন্দা রাধারানি খাঁর দুই ছেলে৷ ২০১৩ সালে পথ দুর্ঘটনায় মারা যান তাঁর ছোট ছেলে৷ রাধারানি দেবীর বড় ছেলে অনুপ খাঁয়ের দাবি, দুর্ঘটনা পর তাঁদের বাড়িতে এসেছিলেন বিমা সংস্থার এজেন্ট৷ পথ দুর্ঘটনার ভাইয়ের মৃত্যুর জন্য আর্থিক অনুদানের টাকা পাইয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিলেন তিনি৷ রাধারানি দেবীকে নিয়ে প্রয়োজনীয় নথি সইসাবুদ করিয়ে মামলাও দায়ের করা হয়েছিল৷ কিন্তু, এখনও মৃতের পরিবার আর্থিক অনুদানের টাকা পায়নি বলে অভিযোগ৷  মৃতের দাদা জানিয়েছেন, আর্থিক অনুদানের টাকা পাওয়ার জন্য নতুন করে আলিপুর আদালতে মামলা করেছিলেন তাঁরা৷ আদালত জানায়, অনেক দিন আগেই মামলাটির নিষ্পত্তি হয়ে গিয়েছে লোক আদালতে৷ আর্থিক অনুদানের ৩ লক্ষ টাকার চেক আদালতে জমাও করেছে সংশ্লিষ্ট বিমা সংস্থা৷ অথচ রাধারানি খাঁ বা পরিবারের লোকেরা কিছুই জানতে পারেননি! এখানেই শেষ নয়৷ পরে অভিযোগকারীরা জানতে পারেন, বারুইপুরের একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের শাখায় রাধারানি দেবীর নামে ভুয়ো অ্যাকাউন্ট খুলেছিলেন অভিযুক্ত আইনজীবী৷ সেই অ্যাকাউন্টেই ওই তিন লক্ষ টাকার চেকটি ভাঙানো হয়েছে৷ অভিযুক্ত বিমা এজেন্ট ও আইনজীবীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে৷

[বিয়ের এক মাসের মধ্যেই দম্পতির রহস্যমৃত্যু, উঠছে খুনের অভিযোগ]

ব্যক্তিগত গাড়ির তো বটেই, বাস, ট্রামের মতো পাবলিক ভেহিকলসের বিমা করানো থাকে৷ তাই পথ দুর্ঘটনায় যদি কারও মৃত্যু হয়, মৃতের পরিবারকে আর্থিক অনুদান দেয় সংশ্লিষ্ট বিমা সংস্থা৷ ক্ষতিপূরণ পান আহতরাও৷ তবে সেক্ষেত্রে মৃত বা আহতের পরিবারের লোকেদেরই আর্থিক অনুদান চেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হতে হয়৷ অভিযোগ, এই সুযোগটাকেই কাজ লাগায় একশ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী৷ কার্যত ওত পেতে বসে থাকে তারা৷ দুর্ঘটনার পরই মৃতের বাড়ি গিয়ে আর্থিক অনুদান পাইয়ে দেওয়ার প্রলোভন দেখায় তারা৷ কিন্তু, শেষপর্যন্ত জাল নথি তৈরি নিজেরাই টাকা আত্মসাৎ করে নেয়৷ ঠিক যেমনটা ঘটেছে সোনারপুরের রাধারানি খাঁ-র সঙ্গে৷

[গরুর জলাতঙ্ক, দুধ খেয়ে আতঙ্কে হাসপাতালমুখী কালনার বাসিন্দারা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে