BREAKING NEWS

১৪ মাঘ  ১৪২৯  রবিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

‘হাঁফ ছেড়ে বাঁচল কলকাতা’, মন্ত্রী শোভনের ইস্তফায় কটাক্ষ দিলীপের

Published by: Tanujit Das |    Posted: November 20, 2018 9:30 pm|    Updated: November 21, 2018 2:17 pm

 Sovan Chatterjee likely to resign as Mayor

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মন্ত্রী পদে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের ইস্তফার পরেই তাঁকে আক্রমণ করলেন দিলীপ ঘোষ৷ বিজেপির রাজ্য সভাপতি জানান, শোভনের ইস্তফায় শহরের মানুষ হাঁফ ছেড়ে বাঁচলেন৷ এমনকী, মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফার খবর ছড়াতেই  শোভন চট্টোপাধ্যায়ের  থেকে দূরত্ব তৈরি করতে শুরু করেছেন এক সময়ের সহকর্মীরাও৷ মেয়র পারিষদ অতীন ঘোষ সাফ কথা, প্রতিটি দপ্তরেই আধিকারিকরা রয়েছেন৷ ফলে কোনও পদ খালি হলেও কলকাতা পুরসভার কাজে প্রভাব পড়বে না৷ দ্রুত শূন্যপদ পূরণ করে দেবে দল৷

[লোকসভায় তৃণমূলের সঙ্গে জোট নয়, একসুর প্রদেশ কংগ্রেসে]

মন্ত্রী পদ থেকে শোভনের ইস্তফার সিদ্ধান্তে দুঃখপ্রকাশ করেন তাঁর স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়৷ স্বামীর এই অবস্থার জন্য নাম না করে শোভনের ‘প্রিয় বান্ধবী’ বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কেই দায়ী করেছেন তিনি৷ রত্নাদেবীর অভিযোগ, ‘বান্ধবী’র জন্যই শোভন চট্টোপাধ্যায়ের রাজনৈতিক জীবন শেষ হয়ে গিয়েছে৷ ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন  শ্বশুর দুলাল দাসও৷ মহেশতলার বিধায়কের প্রতিক্রিয়া,  পাপের ফল ভোগ করছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়৷ শোনা যাচ্ছে, বুধবার মেয়রের পদ থেকেও ইস্তফা দিতে চলেছেন সদ্য প্রাক্তন মন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায়৷ যদিও এই বিষয়ে এখনও মুখ খোলেননি তিনি৷ তাঁর ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে খবর, দলের শীর্ষ নেতৃত্বের নির্দেশেই মেয়রের পদ থেকে ইস্তফা দেবেন তিনি৷ সেক্ষেত্রে আপাতত মেয়রের দায়িত্ব সামলাতে পারেন পুরসভার সচিব খলিল আহমেদ৷ব্যক্তিগত সম্পর্কে টানাপোড়েনের জেরে মঙ্গলবার সমস্ত মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফা দেন শোভন চট্টোপাধ্যায়৷ তারপরেই তাঁর মেয়র পদ থেকে ইস্তফা নিয়ে গুঞ্জন ছড়িয়েছে৷ নয়া মেয়র কে হবে, তাই নিয়ে জোর জল্পনা শুরু হয়েছে কলকাতা পুরসভার অন্দরে৷ উঠে আসছে মেয়র পারিষদ দেবাশিষ কুমারের নাম৷  এমনকী, ১১৭ নম্বর ওয়ার্ড থেকে যিনি জিতে আসবেন, তাঁকে মেয়র করা হতে পারে বলে শোনা যাচ্ছে৷ দিন কয়েক পরেই ওই ওয়ার্ডে উপনির্বাচন হবে৷

দীর্ঘদিন ধরেই শোভন চট্টোপাধ্যায়ের উপর চটেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ যার বহিঃপ্রকাশ ঘটে মঙ্গলবার৷ এদিন প্রথমে বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী ভর্ৎসনার মুখে পড়েন তিনি৷ প্রশ্নোত্তর পর্বে, আবাসন দপ্তরের একটি প্রশ্নে ভুল উত্তর দেন ওই দপ্তরেরই মন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায়৷ তাঁর ভুল শুধরে দেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী৷ এরপরই শোভনকে নিজের ঘরে ডেকে পাঠান মমতা৷ সূত্রের খবর, সেখানে তাঁকে চরম হুঁশিয়ারি দেন মুখ্যমন্ত্রী৷ দপ্তর চালাতে না পাড়লে ছেড়ে দিতে বলেন৷ এরপর নবান্নে দমকলের  একটি অনুষ্ঠানেও মুখ্যমন্ত্রীর মুখোমুখি হন শোভন চট্টোপাধ্যায়৷ এই অনুষ্ঠানে পরেই মঙ্গলবার দুপুরে নিজের পদত্যাগপত্র নবান্নে মুখ্যসচিবের কাছে পাঠিয়ে দেন শোভন চট্টোপাধ্যায়৷ বিকেলের মধ্যে সেই পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেন মুখ্যমন্ত্রী৷ সন্ধ্যায় সেই পদত্যাগপত্র পাঠিয়ে দেওয়া হয় রাজভবনে৷ মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে দমকল ও আবাসন দপ্তরের দায়িত্ব সামলাতে বলা হয় ফিরহাদ হাকিমকে৷

[ব্যাক্তিগত সম্পর্কের জেরে মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফা শোভনের, ছাড়ছেন মেয়র পদও]

দীর্ঘদিন ধরেই ব্যক্তিগত সম্পর্কের টানাপোড়েন নিয়ে সংবাদের শিরোনামে রয়েছেন কলকাতার পুরসভার মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়৷ বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে চরম বিরোধ চলছে তাঁর৷একাধিকবার দলনেত্রীর ক্ষোভের মুখে পড়তে হয়েছে তাঁকে৷ কয়েক মাস আগে কালীঘাটে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে গিয়ে পদত্যাগের ইচ্ছা প্রকাশ করেন শোভন৷ কিন্তু তখন তাঁকে বোঝান মুখ্যমন্ত্রী৷ তবে এরপরেও পরিস্থিতিতে কোনও বদল ঘটেনি৷ যার ফলে মঙ্গলবার তাঁকে চরম হুঁশিয়ারি দেন মুখ্যমন্ত্রী এবং তারপরেই মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফা দেন শোভন চট্টোপাধ্যায়৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে