BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সব কলেজে ‘ফ্রি ওয়াই-ফাই’ দেবে রাজ্য

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 17, 2016 8:42 am|    Updated: June 17, 2016 9:14 am

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: উচ্চশিক্ষার ছাত্র-ছাত্রীদের আরও বেশি তথ্যপ্রযুক্তিমুখী করার পাশাপাশি বিনামূল্যে ইন্টারনেট পরিষেবা পৌঁছে দিতে সমস্ত কলেজে ‘ফ্রি ওয়াই-ফাই’ চালুর সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার৷ প্রথমে ৬০টি সরকারি কলেজে এই পরিষেবা দেওয়া হবে৷ বৃহস্পতিবার বিধানসভা ভবনে একথা জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়৷ ইতিমধ্যে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়কে সরকারের তরফে এই পরিকাঠামো তৈরির জন্য ২৫ কোটি টাকা মঞ্জুর করেছে উচ্চশিক্ষা দফতর৷

উল্লেখ্য, ন্যাকের পরিদর্শনের শর্ত হিসাবে সমস্ত কলেজে সিসিটিভি চালুর জন্য রাজ্য সরকারের তরফে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল৷ সবুজসাথী প্রকল্পে সাইকেল, প্রাথমিকে জুতো ও স্কুলব্যাগ বিনামূল্যে বিলির পর এবার উচ্চশিক্ষাক্ষেত্রে বিনা খরচে ওয়াই-ফাই পরিষেবা রাজ্য সরকারকে তরুণ প্রজন্মের কাছে আরও বেশি জনপ্রিয় করবে বলে মন্তব্য করেছেন পার্থবাবু৷ অনলাইনে মেধাভিত্তিক ভর্তির বিষয়টিতে এ বছর বাড়তি জোর দিয়ে শিক্ষামন্ত্রী ইতিমধ্যে বুঝিয়ে দিয়েছেন রাজ্য সরকার শিক্ষাক্ষেত্রে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের মধ্যে দিয়ে দফতরের কাজে আরও স্বচ্ছতা আনতে চান৷

একইসঙ্গে রাজ্যের অধ্যাপক, শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মীদের নিয়োগ থেকে অবসর, পেনশন-সহ সমস্ত বিষয়টিকেও ধীরে ধীরে অনলাইনে নিয়ে আসতে চান শিক্ষামন্ত্রী৷ ইতিমধ্যে অনলাইনে পেনশন পাওয়ার বিষয়টি চালু হয়েছে৷ এবার অবসরের পাশাপাশি সাধারণ ও মাতৃত্বকালীন ছুটির বিষয়েও কলেজের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের যোগসূত্রের ক্ষেত্রেও অনলাইন চালুর ইচ্ছা রয়েছে দফতরের৷ সব কিছুর মূল লক্ষ্য শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মীদের ‘সার্ভিস বুক’ বিষয়টি নিয়ে যে সমস্ত জটিলতা তৈরি হয় তা দূর করা৷

শিক্ষামন্ত্রী স্পষ্ট করেছেন, কলেজে ওয়াই-ফাই বিনামূল্যে চালু হয়ে গেলে পড়াশোনার ক্ষেত্রে অনেক বেশি সুবিধা হবে ছাত্র-ছাত্রীদের৷ কারণ, প্রয়োজন পড়লেই হাতের মোবাইল থেকে যে কোনও সময় ইন্টারনেট ‘সার্চ’ করে পঠনপাঠনের তথ্য সংগ্রহ করতে পারবে পড়ুয়ারা৷ শিক্ষামন্ত্রীর বার্তা, কলেজের গ্রন্থাগারের পাশাপাশি ফ্রি ওয়াই-ফাই থাকলে বৃহত্তর তথ্যভাণ্ডার খুলে যাবে শিক্ষার্থীদের কাছে৷ আবার প্রয়োজন পড়লে নিজের ই-মেল থেকে কলেজে বসেই ট্যাব-মোবাইল ব্যবহার করে বহির্বিশ্বের সঙ্গে তথ্য আদানপ্রদান করতে পারবে৷ উচ্চশিক্ষা দফতর মনে করছে, জেলার কলেজগুলিতে অনেক সময় ইন্টারনেট পরিষেবা বিঘ্ন ঘটে৷ কিন্তু কলেজ যদি নিজে থেকেই ওয়াইফাই চালু করে তা হলে ইন্টারনেট-লিঙ্ক বিঘ্ন থাকার অজুহাত দেওয়া যাবে না৷ প্রয়োজন পড়লে উচ্চশিক্ষা দফতর থেকে একইসঙ্গে রাজ্যের সর্বত্র একই সময়ে ইমেল বা হোয়াটসঅ্যাপে বার্তা পাঠানো যাবে৷ বস্তুত এই সমস্ত বহুবিধ সুবিধার কথা মাথায় রেখেই রাজ্যের সমস্ত কলেজে ফ্রি ওয়াইফাই পরিষেবা চালুর উদ্যোগ নিয়েছে দফতর৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement