BREAKING NEWS

৯ আষাঢ়  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

আচমকাই বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গ্রেপ্তার! সিবিআইয়ের ভূমিকায় ক্ষুব্ধ ৪ মন্ত্রী-বিধায়কের পরিবার

Published by: Arupkanti Bera |    Posted: May 17, 2021 1:04 pm|    Updated: May 17, 2021 1:47 pm

The reaction of their families after the arrest of 4 leaders । Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফিরহাদ হাকিম (Firhad Hakim), সুব্রত মুখোপাধ্যায়, মদন মিত্র এবং শোভন চট্টোপাধ্যায়কে গ্রেপ্তারের পরেই রাজ্য জুড়ে প্রবল রাজনৈতিক চাপানউতোর শুরু হয়েছে। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে বিক্ষোভ চলছে। কিন্তু এই গ্রেপ্তারি নিয়ে অভিযুক্তদের পরিবার কার্যত অন্ধকারে। সংবাদমাধ্যমের সামনে অভিযুক্তদের পরিবারের তরফে যে বয়ান এসেছে, তাতে তাঁরা বিশেষ কিছু জানেন না বলেই জানিয়েছেন। এর মাঝেই জানা গিয়েছে মদন মিত্রের স্ত্রী করোনা আক্রান্ত। ফলে গ্রেপ্তারির পর মদন মিত্রের ক্ষেত্রে বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।  

ফিরহাদ হাকিম গ্রেপ্তার হওয়ার পর তাঁর এক মেয়ে নিজাম প্যালেসে যান। আইনজীবীদের সঙ্গে কথা বলেন। মদন মিত্রের (Madan Mitra) ছেলে জানিয়েছেন, সকাল সাড়ে আটটা নাগাদ কেন্দ্রীয় বাহিনীর প্রায় ২০০-২৫০ জওয়ান নিয়ে সিবিআই অফিসাররা বাড়িতে আসেন। গ্রেপ্তার করে নিয়ে যান মদন মিত্রকে। কেন গ্রেপ্তার, কী ধারায় কিছুই জানানো হয়নি বলে দাবি করেছেন মদন মিত্রের ছেলে। শোভন চট্টোপাধ্যায়ের (Sovan Chatterjee) স্ত্রী তৃণমূল বিধায়ক রত্না চট্টোপাধ্যায়ও নিজাম প্যালেসে যান। নিজাম প্যালেসে পৌঁছে তিনি বলেন, আইনজীবীদের সঙ্গে কথা বলতে এসেছেন। গোটা বিষয় নিয়ে তিনি কিছুই জানেন না। এদিকে শোভন চট্টোপাধ্য়ায়ের বন্ধু তথা অধ্যাপিকা বৈশাখী বন্দ্য়োপাধ্য়ায় বলেন, রাজনৈতিক চক্রান্ত চলছে। তারই শিকার হয়েছেন শোভন চট্টোপাধ্য়ায়।

এদিকে সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের (subrata Mukherjee) আইনজীবী বলেন, যে ধারায় মামলা করা হয়েছে তাতে জামিন হয়। আর এত দিনের পুরনো একটি মামলায় এখন গ্রেপ্তার করার কী প্রয়োজন হল। আইনজীবী আরও বলেন, সুব্রত মুখোপাধ্যায়কে যত বার ডাকা হয়েছে তিনি তদন্তে সহযোগিতা করেছেন। এখন কেন বিনা নোটিসে গ্রেপ্তার করতে হল তা তিনি বুঝতে পারছেন না। আর আজ যদি চার্জশিট জমা দেওয়াই হবে, তবে তার আগে গ্রেপ্তারির কী প্রয়োজন হল। কারণ তদন্ত শেষ হয়ে গেলে আদালতে চার্জশিট জমা দিয়ে দিলেই হল। তবে তাঁরা শুনেছেন বিচারপতির অনুপস্থিতির সুযোগ নিয়ে অভিযুক্তদের হেফাজতে রাখতে চাইছে সিবিআই।

[আরও পডু়ন: ফের নজরে নারদ মামলা, জেনে নিন স্টিং অপারেশনের বৃত্তান্ত]

তৃণমূল নেতা তথা আইনজীবী অনিন্দ্য রাউতও নিজাম প্যালেসে যান। তিনি বলেন, কোনও আইন না মেনেই এই গ্রেপ্তারি হয়েছে। কোনও নোটিস ছাড়াও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও বলেছেন, তাঁকেও গ্রেপ্তার করতে হবে। নিজাম প্যালেসের ১৫ তলা ভিজিটার্স রুমে বসে রয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সিবিআইয়ের উপর চাপ বাড়িয়ে তিনি কার্যত সেখানে অবস্থান বিক্ষোভ করছেন বলেই ওয়াকিবহাল মহলের মত।

[আরও পডু়ন: নিজাম প্যালেসের সামনে উত্তপ্ত পরিস্থিতি, পাঠানো হচ্ছে বাড়তি বাহিনী]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement