১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ১ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

পদত্যাগ করতে চেয়ে রাজ্যপালের দ্বারস্থ যাদবপুরের উপাচার্য

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 6, 2018 7:06 pm|    Updated: July 6, 2018 7:06 pm

The Vice-Chancellor of Jadavpur University wants to resign

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একদিকে পড়ুয়াদের বিক্ষোভ, অন্যদিকে অধ্যাপকদের কর্মবিরতি। দুইয়ের মাঝে শাঁখের করাত অবস্থা যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুরঞ্জন দাসের। আর এই দুই চাপ একসঙ্গে সহ্য করতে না পেরে এবার রাজ্যপালের কাছে পদত্যাগের ইচ্ছাপ্রকাশ করলেন তিনি। তবে রাজ্যপালের তরফে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নিতে বারণ করা হয়েছে উপাচার্যকে।

পড়ুয়াদের বিক্ষোভ নিয়ে এখন উত্তাল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস। পড়ুয়াদের অভিযোগ, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাবিভাগে ভরতির জন্য প্রবেশিকা পরীক্ষা দিতে হয়। কিন্তু, এবছর দু’বার দিন ঘোষণা করেও পরীক্ষা বাতিল করে কর্তৃপক্ষ। শুধুমাত্র নম্বরের ভিত্তিতে ভরতি সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্মসমিতি। এর প্রতিবাদে বুধবার বিকেল থেকে টানা ৩১ ঘণ্টা উপাচার্য ও রেজিস্ট্রারকে ঘেরাও করে রেখেছিলেন পড়ুয়ারা। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে ঘেরাওমুক্ত হন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুরঞ্জন দাস। এরপর শুক্রবার সকালেই শিক্ষামন্ত্রীর রিজেন্ট পার্কের বাড়িতে যান উপাচার্য ও সহ-উপাচার্য। দীর্ঘক্ষণ চলে বৈঠকে। বৈঠকে প্রবেশিকা পরীক্ষা বাতিল ও পরবর্তী পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

আমরণ অনশনের হুমকি যাদবপুরের পড়ুয়াদের, শিক্ষামন্ত্রীর দ্বারস্থ সুরঞ্জন ]

শিক্ষামন্ত্রীর বাড়ি থেকে বেরিয়েই রাজভবনের উদ্দেশ্যে রওনা দেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুরঞ্জন দাস। রাজভবনে গিয়ে রাজ্যপালের কাছে গোটা ঘটনা বিস্তারিত জানান তিনি। সঙ্গে পদত্যাগের ইচ্ছাও প্রকাশ করেন। কিন্তু রাজ্যপাল কেশরিনাথ ত্রিপাঠী উপাচার্যের আশায় জল ঢেলে দেন। জানিয়ে দেন, এখনই পদত্যাগ দিতে পারবেন না সুরঞ্জন দাস। রাজ্যপাল তাঁকে আশ্বস্ত করেন এই বলে যে বিশ্ববিদ্যালয়ে ঠিক কী হয়েছে, কেনই বা এমন ঘটনা ঘটছে, তা বিস্তরিত জানবেন তিনি। তারপর, প্রয়োজন পড়লে উপাচার্যকে তিনি জরুরি পরামর্শ দেবেন। দরকারে আলোচনাও করবেন উপাচার্যর সঙ্গে। কিন্তু কোনওভাবেই তিনি যেন এখন পদত্যাগপত্র না দেন। এমনকী রাজ্যপাল ঘটনার বিস্তারিত রিপোর্টও চেয়ে পাঠিয়েছেন।

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের আলিপুর ক্যাম্পাসে ‘সারপ্রাইজ ভিজিট’ মুখ্যমন্ত্রীর ]

এদিকে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থা তথৈবচ। শুক্রবার সকাল থেকে ক্লাস বয়কটের ডাক দেন আন্দোলনকারীরা। প্রবেশিকা ফেরানোর দাবিতে আন্দোলনে শামিল অধ্যাপকদের একাংশও। দুপুর ১২টা থেকে ৩টে পর্যন্ত যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মবিরতির ডাক দেন তাঁরা। পড়ুয়াদের তরফেও স্পষ্ট জনিয়ে দেওয়া হয়, দুপুর ৩টের মধ্যে দাবি মানা না হলে, আমরণ অনশন করা হবে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে