BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

ভোটের পরই জোট নিয়ে সিদ্ধান্ত, ফেডারেল ফ্রন্ট নিয়ে মন্তব্য সীতারাম ইয়েচুরির

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 24, 2018 9:21 pm|    Updated: May 24, 2018 9:23 pm

This is what Sitaram Yechuri says about opposition unity

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কর্ণাটকের সরকার গড়া নিয়ে টানটান উত্তেজনা। সুপ্রিম কোর্টের রায়ে বাজিমাত কংগ্রেস-জেডিএস জোটের। দক্ষিণের  রাজনৈতিক ঘটনাপ্রবাহ আরও কাছাকাছি এনেছে বিজেপি বিরোধী শিবিরকে। প্রয়োজনে সংসদে তৃণমূলের সঙ্গে ‘ফ্লোর শেয়ারে’ও আপত্তি নেই সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরির। তবে  ভোটের আগে জোটের পক্ষপাতি নন তিনি। শুক্রবার তিনি বলেন, লোকসভা ভোটে সবকটি ধর্মনিরপেক্ষ দলই নিজেদের মত করে লড়াই করবে। জোট হবে কিনা, তা চূড়ান্ত হবে নির্বাচনের পর।

[পঞ্চায়েত ভোটে বাংলায় গণতন্ত্রকে হত্যা করা হয়েছে, দাবি কৈলাশের]

একটুর জন্যে মোদির গুজরাট হাতছাড়া হয়েছে কংগ্রেসের। কোনওমতে গড় রক্ষা করেছে বিজেপি। তবে আগামী বছর লোকসভা ভোটের আগে কিন্তু কর্ণাটকে বড়সড় ধাক্কা খেল বিজেপি। কংগ্রেসশাসিত এই রাজ্যে বিধানসভাতে কোনও দল সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। তবে বৃহত্তম দল হিসেবে সরকার গঠনের দাবি জানিয়েছিল গেরুয়া শিবির। মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথও নিয়ে ফেলেছিলেন বিএস ইয়েদুরাপ্পা। কিন্তু পরিস্থিতি বদলে যায় সুপ্রিম রায়ে, পদত্যাগ করতে বাধ্য হন ইয়েদুরাপ্পা। কংগ্রেসের সমর্থনে বৃহস্পতিবার কন্নড়ভূমে মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিয়েছেন জেডিএস নেতা কুমারস্বামী। রাহুল-সনিয়া থেকে শুরু করে অখিলেশ-মায়াবতী। বুধবার বেঙ্গালুরুতে শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন সমস্ত বিরোধী দলের প্রথমসারির নেতারা। ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি।

[বিশ্বভারতীর সমাবর্তনে বাদ দেশিকোত্তম, দুঃখপ্রকাশ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের]

কর্ণাটকে বিরোধী ঐক্যের ছবি লোকসভায় আঞ্চলিক দলগুলির ফেডারেল ফ্রন্টের জল্পনাকে আরও উসকে দিয়েছে। দলের রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর বৈঠকে যোগ দিতে শুক্রবার কলকাতা এসেছিলেন সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি। লোকসভা ভোটে জোটের প্রশ্নে দলের অবস্থান স্পষ্ট করলেন তিনি। সীতারাম ইয়েচুরি বলেন, ‘উত্তরপ্রদেশের বহুজন সমাজপার্টি শক্তিশালী। ওড়িশায় শাসকদল বিজেডি। কিন্তু, লোকসভা ভোটে আলাদাভাবে লড়াই করবে ধর্মনিরপেক্ষ দলগুলি। জোটের বিষয়টি চূড়ান্ত হবে, ভোটের পর।’ সিপিএমের সাধারণ সম্পাদকের সংযোজন, ‘ভারতের রাজনীতিটা বুঝতে হবে। ২০০৪-এ লোকসভা ভোটে ত্রিপুরা ও কেরলে কংগ্রসকে হারিয়ে আমরা  ৬১টি আসনে জিতেছিলাম।’ সবচেয়ে উল্লেখ্যযোগ বিষয়, রাজ্যে তৃণমূল হঠাও স্লোগান দিলেও, সংসদে এ রাজ্যের শাসকদলের সঙ্গে ফ্লোর শেয়ারে আপত্তি নেই সিপিএমের সাধারণ সম্পাদকের।

[কাটোয়ায় আতঙ্ক, অজানা ঘাতকের হাতে প্রাণ গেল ৬৮টি ভেড়ার

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে