৩০ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

অর্ণব আইচ ও অভিরূপ দাস: খোদ কলকাতা দক্ষিণ লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী মালা রায়কে বুথে ঢুকতে বাধা! অভিযোগের তির কেন্দ্রীয় বাহিনীর দিকে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে সাতসকালে উত্তেজনা ছড়াল মুদিয়ালির দেশপ্রাণ বীরেন্দ্রনাথ ইন্সটিটিউটে।নির্বাচন কমিশনের অভিযোগ দায়ের করেছেন তৃণমূল প্রার্থী।

[আরও পড়ুন: সপ্তম দফায় আক্রান্ত বিরোধী এজেন্টরা, বেলগাছিয়ায় অবস্থান বিক্ষোভে সিপিএম প্রার্থী]

শুধু তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থীই নন, মালা রায় কলকাতা দক্ষিণ লোকসভা কেন্দ্রের ভোটারও। প্রতিবারই মুদিয়ালির দেশপ্রাণ বীরেন্দ্রনাথ ইন্সটিটিউটের বুথে ভোট দেন তিনি। তৃণমূল প্রার্থী মালা রায়ের অভিযোগ, রবিবার সকালে যখন ভোট দিতে যান, তখন তাঁকে বুথে ঢুকতে বাধা দেন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা। এমনকী, প্রার্থী হওয়ার প্রমাণও চাওয়া হয়। ঘটনার জেরে তুমুল উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে মুদিয়ালি দেশপ্রাণ বীরেন্দ্রনাথ ইন্সটিটিউটের বুথে। বুথের বাইরে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন কলকাতা দক্ষিণ লোকসভা তৃণমূল প্রার্থী মালা রায়। শেষপর্যন্ত ঘটনার সময়ে ওই বুথে ভোট দেওয়ার জন্য যাঁরা লাইনে দাঁড়িয়েছিলেন, তাঁরাই তৃণমূল প্রার্থী মালা রায়ের সঙ্গে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের পরিচয় করিয়ে দেন। এরপর বুথে ঢুকে ভোট দেন কলকাতা দক্ষিণ লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী মালা রায়।

কমিশনের নিয়ম অনুযায়ী, ভোটের দিনে নিজের নির্বাচনী এলাকার যেকোনও বুথেই ঢুকতে পারেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রার্থীরা। প্রয়োজনে প্রিসাইডিং অফিসারের সঙ্গে কথাও বলতে পারেন তাঁরা। আর এক্ষেত্রে যে বুথে ঢুকতে গিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী বাধা পেয়েছেন বলে অভিযোগ, প্রার্থী নিজে সেই বুথের ভোটারও। তাহলে কেন তাঁকে বাধা দিলেন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা? ঘটনার রীতিমতো ক্ষুদ্ধ কলকাতা দক্ষিণ কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী মালা রায়। কমিশনের অভিযোগ জানিয়েছেন তিনি।

দেখুন ভিডিও:

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং