১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৬ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

তৃণমূল নেতার নামে আপত্তিকর মন্তব্য, এবার শুভেন্দুকে হাজিরার নির্দেশ বিধাননগর আদালতের

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: November 19, 2022 9:09 pm|    Updated: November 19, 2022 9:13 pm

TMC Leader files a case of Defamation against Suvendu Adhikari Court Asks BJP leader to appear in court | Sangbad Pratidin

ফাইল ছবি

রাহুল রায়: এবার বিধাননগরের মেম্বার ইন কাউন্সিলের নামে আপত্তিকর মন্তব্য করার অভিযোগে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর (Suvendu Adhikari) বিরুদ্ধে সমন পাঠাল বিধাননগর আদালত (Bidhannagar Court)। এই মামলায় আগামী ২১ জানুয়ারি আদালতে হাজিরা দিতে হবে গেরুয়া নেতাকে। 

উল্লেখ্য, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) ভাই, তথা তৃণমূলের (TMC) সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Abhishek Banerjee) বাবা অমিত বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Amit Banerjee) আনা মানহানির মামলায় শুক্রবার শুভেন্দু অধিকারীকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল আলিপুর আদালতের (Alipore Court) বিচারক। এবার তৃণমূল নেতা তথা বিধাননগরের মেম্বার ইন কাউন্সিল দেবরাজ চক্রবর্তীর (Debraj Chakraborty) আনা মানহানির মামলায় শনিবার শুভেন্দু অধিকারীকে বিধাননগর আদালতের সশরীরে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিধাননগর আদালতের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট।

[আরও পড়ুন: আগামী সপ্তাহেই শপথ? বাংলার নবনিযুক্ত রাজ্যপালের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর ফোনালাপে তুঙ্গে জল্পনা]

আগামী ২১ জানুয়ারি শুভেন্দুকে আদালতে সশরীরে হাজির হয়ে তাঁর মন্তব্যের কারণ দর্শানোর নির্দেশ দিয়েছেন বিধাননগর আদালতের বিচারক। উল্লেখ্য, মামলাকারি দেবরাজ অভিযোগ করেন, বিনা প্রমাণে তাঁর নাম করে সংবাদমাধ্যম ও জনসভায় মিথ্যা তথ্য তুলে ধরছেন শুভেন্দু। অসাধু উদ্দেশে সমাজে তাঁকে হেয় করতে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। এই বিষয়ে দেবরাজ চক্রবর্তীর আইনজীবী শুভজিৎ সাহা বলেন, ” শুভেন্দু অধিকারী গত ২০ জুন এবং ৭ সেপ্টেম্বর দেবরাজ চক্রবর্তী এবং আরও কয়েকজনের নামে কুরুচিকর মন্তব্য করেছেন। সেই মন্তব্যের বিরুদ্ধে শুভেন্দুকে আইনি নোটিস পাঠানো হয়েছিল। তবে তার কোনও জবাব পাওয়া যায়নি।”

[আরও পড়ুন: ‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’ ইস্যুর নিয়মে বড়সড় রদবদল, কী নির্দেশিকা মুখ্যসচিবের?]

প্রসঙ্গত, অমিত বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেন, গত ২০ জুন সংবাদমাধ্যমের সামনে শুভেন্দু দাবি করেছিলেন, তিনি নাকি এক হাজার কোটি টাকার মালিক। কিন্তু সেটা পুরোপুরি ভিত্তিহীন। সংবাদমাধ্যমের সামনে শুভেন্দুর এই মিথ্যাচারে তাঁর সম্মানহানি হয়েছে বলে দাবি করেছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাবা। অমিত বাবু জানিয়েছেন, তিনি মুখ্যমন্ত্রীর পরিবারের সদস্য হলেও রাজনীতির সঙ্গে তাঁর কোনও যোগ নেই। তিনি অন্য জগতের মানুষ। এভাবে তাঁর নামে ভ্রান্ত অভিযোগ এনে তাঁর সম্মানহানি করা হচ্ছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে